আপডেট অক্টোবর ৭, ২০১৯

ঢাকা মঙ্গলবার, ২৬ মে, ২০২০, ১২ জ্যৈষ্ঠ, ১৪২৭ , গ্রীষ্মকাল, ২ শাওয়াল, ১৪৪১

বুয়েটের ছাত্রকে পিটিয়ে হত্যার ঘটনায় আটক ২

রকিবুল ইসলাম সোহাগ

নিরাপদ নিউজ

নিরাপদনিউজ : বাংলাদেশ প্রকৌশল বিশ্ববিদ্যালয়ের (বুয়েট) শিক্ষার্থী আবরার ফাহাদকে (২১) পিটিয়ে হত্যার ঘটনায় দুজনকে আটক করা হয়েছে। আজ সোমবার সকালে তাদের আটক করে চকবাজার থানা পুলিশ।

এর আগে গতকাল রোববার দিবাগত রাত ৩টার দিকে বিশ্ববিদ্যালয়ের শের-ই–বাংলা হলের নিচতলা থেকে আবরার ফাহাদের লাশ উদ্ধার করে পুলিশ।পরিবার ও সহপাঠীদের দাবি, তাকে পিটিয়ে হত্যা করা হয়েছে।

জানা গেছে, হেফাজতে নেওয়া দুজন হলেন-বুয়েট শাখা ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক মেহেদী হাসান রাসেল ও যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক ফুয়াদ হোসেন৷ তারা দুজনই বুয়েটের শিক্ষার্থী। শের-ই-বাংলা হলে থাকেন।

বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন চকবাজার থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) সোহরাব হোসেন। তিনি জানান, বুয়েটের ছাত্র নিহতের ঘটনায় প্রাথমিকভাবে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য রাসেল ও ফুয়াদ নামে দুজনকে আটক করা হয়েছে। এ বিষয়ে এখনো কোনো মামলা হয়নি। মামলা দায়েরের বিষয়টি প্রক্রিয়াধীন।

তবে আটক দুজন মারধরের সময় অংশ নিয়েছিল কিনা-এমন প্রশ্নের জবাবে ওসি বলেন, ‘বিষয়টি নিশ্চিত না। তবে তদন্তের পর বলা যাবে।’

আবরার ফাহাদ ইলেক্ট্রিক্যাল অ্যান্ড ইলেক্ট্রনিক ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগের দ্বিতীয় বর্ষের ছাত্র ছিলেন। তার বাড়ি কুষ্টিয়ায়।

সহপাঠীরা বলছেন, গতকাল রাত ৮টার দিকে শের-ই বাংলা হলের ১ হাজার ১১ নম্বর কক্ষ থেকে কয়েকজন আবরারকে ডেকে নিয়ে যায়। এরপর রাত ২টা পর্যন্ত তাকে খুঁজে পাওয়া যায়নি। তাদের ধারণা, ২ হাজার ১১ নম্বর রুমে নিয়ে তাকে পেটানো হয়। পরে শের-ই বাংলা হলের একতলা ও দুই তলার মাঝখানের সিঁড়ির ল্যান্ডিংয়ে আবরারকে পড়ে থাকতে দেখেন তারা।

এ ব্যাপারে বুয়েটের ডাক্তার মাসুক এলাহী বলেন, ‘অন্য ছাত্রদের মাধ্যমে খবর পেয়ে শের-ই বাংলা হলের একতলা ও দুই তলার মাঝামাঝি জায়গায় ফাহাদের নিথর দেহ পড়ে থাকতে দেখি। তার শরীরে অনেকগুলো আঘাতের চিহ্ন দেখা গেছে।’

মন্তব্য করুন

Please Login to comment
avatar
  Subscribe  
Notify of