ব্রেকিং নিউজ

আপডেট অক্টোবর ১৯, ২০১৯

ঢাকা রবিবার, ৫ জুলাই, ২০২০, ২১ আষাঢ়, ১৪২৭ , বর্ষাকাল, ১৩ জিলক্বদ, ১৪৪১

জাতীয় হকার্স লীগ ঘোষিত ৫ দফা দাবি বাস্তবায়ন করা হবে: শ্রম ও কর্মসংস্থান প্রতিমন্ত্রী

লিটন এরশাদ

সংবাদ বিজ্ঞপ্তি, নিরাপদ নিউজ: গত ১৬ অক্টোবর বাংলাদেশ জাতীয় হকার্স লীগের ২০তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী এবং সন্ত্রাস, জঙ্গিবাদ, চাঁদাবাজ, দখলবাজ ও মাদক নিমূলের দাবিতে জাতীয় প্রেকক্লাবে আলোচনা সভা সংগঠনের প্রতিষ্ঠাতা সভাপতি মোঃ নুরুল ইসলামের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত হয়।
উক্ত আলোচনা সভায় প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন, গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকারের শ্রম ও কর্মসংস্থান মন্ত্রণালয়ের মাননীয় প্রতিমন্ত্রী বেগম মুন্নুজান সুফিয়ান এমপি। বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের সদস্য ও সাবেক খাদ্যমন্ত্রী এ্যাড. কামরুল ইসলাম এমপি। প্রধান বক্তা ছিলেন বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ কেন্দ্রীয় সদস্য শেখ মোহাম্মদ আলী। আলোচক ছিলেন ঢাকা দক্ষিণ সিটি কর্পোরেশনের উপ-সচিব, প্রধান সম্পত্তি কর্মকর্তা মোঃ রাসেল সাবরিন, আওয়ামী লীগ কেন্দ্রীয় নেতা এম.এ. করিম। আরও বক্তব্য রাখেন সংগঠনের যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক আব্দুল মান্নান, শাহদাত হোসেন, সাংগঠনিক সম্পাদক মোঃ আরিফ, ঢাকা মহানগরের সভাপতি মোঃ জামাল হোসেন নুর, সাধারণ সম্পাদক গাজী আফজাল হোসেন সহ প্রমুখ।
সভায় বেগম মুন্নুজান সুফিয়ান বাংলাদেশ জাতীয় হকার্স লীগ ঘোষিত ৫ দফা দাবির প্রতি সমর্থন করে বলেন, হকার্সদের আইডি কার্ড প্রদান, হকার্সদের পুর্নবাসন, হকার্স মার্কেটের নির্ধারিত স্থান নির্ধারণসহ সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের সাথে পরামর্শক্রমে বাংলাদেশ জাতীয় হকার্স লীগের ৫ দফা দাবি বাস্তবায়নের আশ্বাস প্রদান করেন। তিনি মাননীয় প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে দেশের চলমান উন্নয়নের ধারা অব্যাহত রাখতে সারা বাংলাদেশের হকার্সদের ঐক্যবদ্ধ হওয়ার আহ্বান জানান।
সভায় নেতৃবৃন্দ বলেন, মাননীয় প্রধানমন্ত্রী গত ১৯/০৪/২০১৬ইং স্মারক সংখ্যা ০৩.০৭৩.০৪৬.২০.০০.০০২.২০১৫-১৪৭ অনুচ্ছেদ অনুযায়ী হকার্স পুর্নবাসন এজেন্ডা একনেক সভায় বাস্তবায়ন করার কথা বলেছেন। কিন্তু নগর ভবনে বারবার মিটিং হলেও মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর এজেন্ডা এখন পর্যন্ত বাস্তবায়ন করা হয় নাই। যার ফলে এখনও নিরীহ হকাররা ফুটপাতে বসে ব্যবসা করতে পারছে না। তারা এখন পরিবার পরিজন নিয়ে দূর্বিসহ জীবন যাপন করছে। হকার্সদের নামে হকার্স মার্কেট রয়েছে কিন্তু উক্ত মার্কেটে কোন হকাররা দোকান বরাদ্দ পান নাই। তাই অবিলম্বে মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর জননেত্রী শেখ হাসিনার ঘোষণা বাস্তবায়ন করার জন্য সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের নিকট উদার্ত্ত আহ্বান জানান।
৫ দফা দাবি সমূহঃ সিটি কর্পোরেশন কর্তৃক হকারদের আইডি কার্ড প্রদান করতে হবে, নির্দিষ্ট স্থানে হাকর্স মার্কেট নির্মাণ করা ও যে সকল হকার্স মার্কেট রয়েছে তাতে হকারদের দোকান বরাদ্দ দেওয়া, হকার্সদের পুর্নবাসনের লক্ষে চাকুরী প্রদান করা, হলিডে মার্কের্টের স্থান নির্ধারণ করে মার্কেট নির্মান করা, ঢাকা মহানগরের সকল হকারদের এক করে সিটি কর্পোরেশনের আওতায় এনে সরকারী ডিসিআরের মাধ্যমে ট্যাক্স আদায় করার ব্যবস্থা করা।

মন্তব্য করুন

Please Login to comment
avatar
  Subscribe  
Notify of