ব্রেকিং নিউজ

আপডেট ১২ সেকেন্ড

ঢাকা মঙ্গলবার, ১৪ জুলাই, ২০২০, ৩০ আষাঢ়, ১৪২৭ , বর্ষাকাল, ২২ জিলকদ, ১৪৪১

নওগাঁয় শিক্ষক কর্তৃক ৯ম শ্রেণির ছাত্রী ধর্ষিত

রকিবুল ইসলাম সোহাগ

নিরাপদ নিউজ

ইখতিয়ার উদ্দীন আজাদ, নিরাপদ নিউজ: নওগাঁর মান্দায় শিক্ষক কর্তৃক সংখ্যালঘু পরিবারের ৯ম শ্রেণির এক শিক্ষার্থী (১৪) ধর্ষণের শিকার হয়েছে বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে। গত শুক্রবার সকালে উপজেলার কাঁশোপাড়া ইউনিয়নের ছোট চকচম্পক গ্রামে এ ঘটনাটি ঘটে। শিক্ষক আমিনুল ইসলাম ওই গ্রামের মৃত মহির উদ্দিনের ছেলে ও ছোট চকচম্পক বালিকা বিদ্যালয়ের সহকারি শিক্ষক। ভিকটিম শিক্ষার্থীর দাদি অভিযোগ করে জানান, ‘শুক্রবার সকালে ৭টার দিকে আমার নাতনিকে প্রাইভেট পড়ার জন্য প্রতিবেশি শিক্ষক আমিনুল ইসলামের বাসায় নিয়ে যাই।

 

নাতনিকে সেখানে রেখে আমি বাসায় চলে আসি। এ সময় সেখানে আর কোনো শিক্ষার্থী উপস্থিত ছিল না। এ অবস্থায় কিছুক্ষণ পরে নাতনি কাঁদতে কাঁদতে বাসায় ফিরে তার মায়ের নিকট শিক্ষক আমিনুল কর্তৃক ধর্ষণের বিষয়টি অবহিত করে।’ শিক্ষার্থীর দাদি আরও অভিযোগে বলেন, অন্য শিক্ষার্থীদের অনুপস্থিতিতে শিক্ষক আমিনুল ইসলাম আমার নাতনিকে ডেকে বাসার তিনতলার একটি কক্ষে নিয়ে যায়। সেখানে মুখ চেপে ধরে ইচ্ছার বিরুদ্ধে তাকে ধর্ষণ করে। শিক্ষক আমিনুলের পরিবার প্রভাবশালী হওয়ায় সংখ্যালঘু পরিবারটি চরম আতঙ্কে রয়েছে বলেও দাবি করেন ভিকটিমের দাদি। স্থানীয়রা জানান,এ ঘটনায় ভিকটিম শিক্ষার্থীর মা বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক রহিদুল ইসলামের নিকট গত শনিবার মৌখিক অভিযোগ দেন।

 

কিন্তু প্রধান শিক্ষক এ বিষয়ে কোনো পদক্ষেপ না নিয়ে ঘটনাটি ধামাচাপা দেয়ার চেষ্টা করেন। শিক্ষক আমিনুল ইসলামের বিরুদ্ধে একাধিক নারী কেলেঙ্কারির অভিযোগ রয়েছে বলেও দাবি করেন স্থানীয়রা। অবশেষে গত সোমবার ভিকটিমের মা বাদি হয়ে মান্দা থানায় শিক্ষক আমিনুল ইসলামের বিরুদ্ধে নারী ও শিশু নির্যাতন আইনে মামলা দায়ের করেছেন। মান্দা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মোজাফফর হোসেন জানান, ঘটনাটি অবহিত হয়ে শিক্ষক আমিনুল ইসলামের বিরুদ্ধে মামলা রুজু করা হয়েছে। ভিকটিমের ডাক্তারী পরীক্ষাসহ আসামিকে আটকের চেষ্টা চলছে বলে তিনি জানান।

Subscribe
Notify of
guest
0 Comments
Inline Feedbacks
View all comments
0
Would love your thoughts, please comment.x
()
x