ব্রেকিং নিউজ

আপডেট ১২ সেকেন্ড

ঢাকা শনিবার, ৮ আগস্ট, ২০২০, ২৪ শ্রাবণ, ১৪২৭, বর্ষাকাল, ১৭ জিলহজ, ১৪৪১

বিজ্ঞাপন

এ কে এম জাহাঙ্গীর খান ও শহীদুল হক খানের একসঙ্গে তিন ছবি

লিটন এরশাদ

নিরাপদ নিউজ: দীর্ঘ ২০ বছরের বিরতি শেষে দেশীয় চলচ্চিত্রের মুভিমোঘল হিসেবে খ্যাত কিংবদন্তী প্রযোজক এ কে এম জাহাঙ্গীর খান এক সঙ্গে তিনটি ছবির মহরত করলেন। ছবি তিনটি স্বাধীনতা, ডাক দিয়াছেন দয়াল আমারে ও রাধারমণ। তিনটি ছবিরই পরিচালক শহীদুল হক খান। ছবির মহরতে প্রধান অতিথি হয়ে এসেছিলেন মাননীয় মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক মন্ত্রী আ. ক. ম. মোজাম্মেল হক। বিশেষ অতিথি ছিলেন সাংবাদিক রাহাত খান, চিত্রনায়িকা অঞ্জনা, পরিচালক সমিতির সভাপতি মুশফিকুর রহমান গুলজার, প্রযোজক ও পরিবেশক সমিতির সভাপতি খোরশেদ আলম খসরু। অনুষ্ঠানে ছবি তিনটির ঘোষণা দেন এ কে এম জাহাঙ্গীর খান। তিনি বলেন- মা, নোলক, নয়নমনি, সূর্য্যকন্যা, সীমানা পেরিয়ে, চন্দ্রনাথ, শুভদার মতো অনেক ছবি আমি বানিয়েছি। ৮২ বছর বয়সে এসে মনে হলো আর কত দিন বাঁচবো জানি না তাই ভালো কিছু ছবি করে যেতে চাই। আমার বিশ্বাস শহীদুল হক খানের মতো নির্মাতা আমার স্বপ্ন পূরণ করতে পারবেন। এই তিনটি ছবির শিল্পী তালিকা এখনো চূড়ান্ত হয়নি। তবে স্বাধীনতা ছবিতে আসাদুজ্জামান নূর ও তারিনকে নেয়ার ইচ্ছে আছে। তাদের না পেলে চঞ্চল চৌধুরী ও জাকিয়া বারী মম কে নেব। ডাক দিয়াছেন দয়াল আমারে ছবির দুইটি প্রধান চরিত্রে অভিনয় করবেন সোহেল রানা ও মৌসুমী। রাধারমণ ছবির নাম ভূমিকায় থাকবেন সৈয়দ হাসান ইমাম। সঙ্গে একট গুরুত্বপূর্ণ চরিত্রে থাকবেন অঞ্জনা। রাধা ও কৃষ্ণের চরিত্রে পরীমনি ও আরেফিন শুভকে নেয়ার কথা ভাবা হচ্ছে। এছাড়া অন্নান্য ছবির অন্নান্য চরিত্রের শিল্পী নির্বাচন করে নভেম্বর মাস থেকে ছবির কাজ শুরু করবো। বেগম বদরুন নাহার খান নিবেদিত এই তিনটি ছবির সংগীত পরিচালনা করবেন শেখ সাদী খান। চিত্রগ্রহণে থাকবেন এ্যালবার্ট খান।
মহরত অনুষ্ঠান উদ্বোধন করে মাননীয় মন্ত্রী বলেন- তিনটি ছবির নামই আমার পছন্দ হয়েছে। স্বাধীনতা তো আমাদের হৃদয়ের স্পন্দন। বঙ্গবন্ধুর স্বপ্ন। আমাদের অর্জন। এই ছবির সাথে আমি আছি। যে কোন সহযোগিতায় পাশে থাকবো। আমার বিশ্বাস জাতির জনক বঙ্গবন্ধু আর্দশ বঙ্গবন্ধু কন্যা মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার স্বপ্নকে সঙ্গে নিয়ে যারা এই চলচ্চিত্র নির্মাণ করার প্রস্তুতি নিয়েছেন তাদের কর্ম সফল হবেই।
পরিচালক শহীদুল হক খান তার বক্তব্যে মাননীয় মন্ত্রী ও এ কে এম জাহাঙ্গীর খানের প্রতি কৃতজ্ঞতা জানান। তিনি বলেন- আমি লিভার ক্যান্সারে আক্রান্ত। এর আগে অনেক ছবি বানিয়েছি। অনেক টিভি নাটক বানিয়েছি। আমার চেষ্টা থাকবে এই ছবিগুলো যেন চিরকালের জন্য স্মরণীয় হয়ে থাকে।

বিজ্ঞাপন
Subscribe
Notify of
guest
0 Comments
Inline Feedbacks
View all comments
0
Would love your thoughts, please comment.x
()
x