ব্রেকিং নিউজ

আপডেট ১৪ মিনিট ১৪ সেকেন্ড

ঢাকা সোমবার, ১৩ জুলাই, ২০২০, ২৯ আষাঢ়, ১৪২৭ , বর্ষাকাল, ২২ জিলকদ, ১৪৪১

ফেসবুকে লাইভে এসে সাকিবের জন্য কাঁদলেন মৌসুমী!

রকিবুল ইসলাম সোহাগ

নিরাপদ নিউজ

নিরাপদনিউজ: ম্যাচ পাঁতানোর প্রস্তাব গোপন রাখায় সাকিব আল হাসানের ওপর আইসিসির দুই বছরের নিষেধাজ্ঞা মানতে পারছেন না চিত্রনায়িকা মৌসুমী। ফেসবুকে লাইভে এসে বিশ্বের অন্যতম সেরা অলরাউন্ডারের জন্য কাঁদলেন তিনি।

আজ বুধবার সন্ধ্যা ৭টার দিকে স্বামী ওমর সানীর ফেসবুক থেকে লাইভে আসেন মৌসুমী। সেখানে তিনি বলেন, ‘একটা পদ্মা সেতু তৈরি করা যতটা সহজ বা সম্ভব, একজন সাকিব আল হাসানকে তৈরি করা সম্ভব না। হাজার হাজার বছর অপেক্ষা করলেও একজন সাকিব আল হাসানকে তৈরি করা সম্ভব না। আমাদের মাঝে আমরা সেই সাকিব আল হাসানকে পেয়েছি। সাকিব আমাদের অহংকার, আমাদের দেশরত্ন। আমাদের দেশের অহংকার, আমাদের দেশের সম্পদ।’

মৌসুমী আরও বলেন, ‘সেই সাকিব আল হাসান আমাদের ভালোবাসা থেকে দূরে সরে যাচ্ছে, ক্রিকেট থেকে দূরে সরে যাচ্ছে। আমি একজন ভক্ত হিসেবে সাকিবের এই কষ্টটা মেনে নিতে পারছি না বলেই প্রতিবাদ জানাচ্ছি। সাকিব আল হাসান ফিরে আসো আমাদের মাঝে। সাকিব, কেউ না থাকুক আমি তোমার সাথে আছি। আমি চাই তোমাকে নিয়ে আমাদের দেশ আরও অনেক দূর এগিয়ে যাবে। তুমি আমাদের প্রধানমন্ত্রীর অহংকার। প্রধানমন্ত্রী তোমার সাথে রয়েছে। পুরো দেশবাসী তোমার সাথে রয়েছে। তার সবকিছু বিবেচনা করা হোক এবং আমাদের মাঝে আমাদের সাকিবকে ফেরত দেওয়া হোক।’

এই চিত্রনায়িকা বলেন, ‘আমাদের ক্রিকেটকে যারা সমৃদ্ধশালী দেখতে চান, তারা সবাই সাকিব আল হাসানের পাশে থাকুন। এই ষড়যন্ত্রকে অবশ্যই মেনে নেবেন না। সবাইকে অনেক অনেক ধন্যবাদ।’

প্রসঙ্গত, ম্যাচ ফিক্সিংয়ের প্রস্তাব পেয়ে সেটি প্রত্যাখ্যান করলেও আইসিসির দুর্নীতি-বিরোধী ট্রাইব্যুনালকে না জানানোর কারণে সাকিবকে নিষিদ্ধ করা হয়েছে। গতকাল সন্ধ্যায় এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে আইসিসির পক্ষ থেকে এ তথ্য জানানো হয়। আইসিসির দুর্নীতি-বিরোধী কোডের তিনটি আইন লঙ্ঘন করায় সাকিবকে এই শাস্তি দেওয়া হয়।

বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, দুই বছরের নিষেধাজ্ঞা দেওয়া হলেও সাকিব দোষ স্বীকার করায় শর্ত সাপেক্ষে এক বছরের শাস্তি স্থগিত করেছে আইসিসি। সেই শর্ত পূরণ সাপেক্ষে ২০২০ সালের ২৯ অক্টোবর থেকে ক্রিকেটে ফিরতে পারবেন সাকিব।

Subscribe
Notify of
guest
0 Comments
Inline Feedbacks
View all comments
0
Would love your thoughts, please comment.x
()
x