ব্রেকিং নিউজ

আপডেট নভেম্বর ৯, ২০১৯

ঢাকা বৃহস্পতিবার, ৯ জুলাই, ২০২০, ২৫ আষাঢ়, ১৪২৭ , বর্ষাকাল, ১৭ জিলক্বদ, ১৪৪১

দেশে ফেরত পাঠানোর প্রক্রিয়া দ্রুত সম্পন্ন হোক

রকিবুল ইসলাম সোহাগ

নিরাপদ নিউজ

নিরাপদ নিউজ : বাংলাদেশে এসে পরবর্তীতে ভিসার মেয়াদ শেষ হয়ে গেলে অনেকে তাদের নিজ দেশে ফিরে যায় না। এরকম মেয়াদোত্তীর্ণ অবস্থায় যারা আছে তাদের চিহ্নিত করার উদ্যোগ নিয়েছিল সরকার। ভিসার মেয়াদ ফুরিয়ে যাওয়ার পরও অবৈধভাবে বাংলাদেশে থেকে যাওয়া এমন প্রায় ১১ হাজার বিদেশিকে চিহ্নিত করা হয়েছে। সংখ্যার হিসেবে এটি কম নয়। এমনিতেই ১১ লক্ষাধিক রোহিঙ্গার বোঝা বইতে হচ্ছে, এর সঙ্গে অবৈধভাবে থাকা এসব বিদেশি নাগরিক বোঝা ভারি করছে।

মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক মন্ত্রী আ ক ম মোজাম্মেল হক জানিয়েছেন, সরকারি খরচে অবৈধভাবে থেকে যাওয়া বিদেশি নাগরিকদের নিজ দেশে ফেরত পাঠানোর পরিকল্পনা নিয়েছে সরকার। চিহ্নিত করা গেলেও তাদের দেশে ফেরত পাঠানো যাচ্ছে না জানিয়ে মন্ত্রী বলেঠেন, এখন সমস্যা দেখা যাচ্ছে যে ফেরত যাবে সেই টাকাও নেই ওদের কাছে। সেসব দেশের দূতাবাসও নেই আমাদের দেশে যে তাদের কাছে হস্তান্তর করা যাবে। এই অবৈধ অভিবাসীদের কারাগারে রাখলে সেখানেও তারা অপরাধে জড়াবে। এটি উদ্বেগের বিষয়।

যে ১১ হাজার বিদেশি নাগরিককে চিহ্নিত করা হয়েছে, তাদের বেশিরভাগই নাইজেরিয়া, তানজানিয়ার মত আফ্রিকান দেশের নাগরিক। এসব অবৈধ অভিবাসীদের কেউ কেউ বিভিন্ন অপরাধের সঙ্গে জড়িত। যারা ভিসার মেয়াদ শেষ হওয়ার পরও অবৈধভাবে অবস্থান করছে বা কোনো অপরাধে জড়িয়ে পড়েছে, তারা জেল খানায় রয়েছেন। তাদের দূতাবাসে যোগাযোগ করার পরও তাদের নিয়ে যাওয়া হচ্ছে না এরকম সংখ্যাও রয়েছে। যারা অবৈধভাবে রয়েছে, তারা অপরাধের সাথে জড়িয়ে পড়ছে। শুধু অপরাধের সাথে জড়িত রয়েছে তা নয়, যারা ব্যবসা বাণিজ্য করতে এসেছিল, মেয়াদ শেষে থেকে গেছে সেরকমও আছে। আবার সবাইকে ধরাও যাচ্ছে না। যাদের ধরা হয়েছে তারা কারাগারে রয়েছে।

এদের নিয়ে অবস্থাটা উভয় সংকটের মতো। একে তো অবৈধভাবে রয়েছে, অন্যদিকে বাইরে থাকলেও অপরাধে জড়াচ্ছে আবার কারাগারে নিলেও সেখানে পরিবেশ নষ্ট করছে। পৃথিবীর বিভিন্ন দেশে অভিবাসন সমস্যা রয়েছে। অনুন্নত দেশ থেকে উন্নত দেশে যাওয়ার প্রবণতা পৃথিবীব্যাপী লক্ষ্য করা যায়। বাংলাদেশের মতো স্বল্পন্নোত থেকে উন্নয়নশীল দেশে পৌঁছানোর প্রক্রিয়ায় থাকা একটি দেশে অন্য দেশের নাগরিকদের থেকে যাওয়ার ঝোঁক ভালো লক্ষণ নয়।

নাইজেরিয়া, তানজানিয়ার মত অনুন্নত আফ্রিকান দেশের নাগরিকদের এদেশে মাইগ্রেশনের প্রবণতা রোধ করতে হবে। দেশের নাগরিকদের ভেতরেই অপরাধপ্রবণতা বেশি, সেখানে বিদেশিদের প্রশ্রয় দেওয়া কোনওভাবেই সম্ভব নয়। এর আগে আমরা দেখেছি, মাদকপাচারসহ ব্যাংকের এটিএম কার্ড জালিয়াতিতে কাজ করে এসব বিদেশি নাগরিকদের বিভিন্ন চক্র। তাই বাংলাদেশে থেকে যাওয়া বিদেশিদের যেভাবেই হোক তাদের নিজ নিজ দেশে ফেরাতে হবে। অবৈধভাবে বসবাসকারী লোকগুলোকে তাদের দেশে ফেরত পাঠানোর সরকারের কাছে টাকা বরাদ্দ দেওয়ার জন্য আবেদন করা হবে বলে মন্ত্রী জানিয়েছেন। আমরা আশা করি সরকার এ বিষয়ে দ্রুত সাড়া দেবে এবং তাদের শিগগিরই ফেরত পাঠানোর প্রক্রিয়া শুরু হবে।

Subscribe
Notify of
guest
0 Comments
Inline Feedbacks
View all comments
0
Would love your thoughts, please comment.x
()
x