ব্রেকিং নিউজ

আপডেট নভেম্বর ১৫, ২০১৯

ঢাকা শুক্রবার, ১০ জুলাই, ২০২০, ২৬ আষাঢ়, ১৪২৭ , বর্ষাকাল, ১৮ জিলক্বদ, ১৪৪১

দুই তরুণের তৎপরতায় বড় ধরনের দুর্ঘটনার হাত থেকে রক্ষা পেলো ‘চট্টলা এক্সপ্রেস’

রকিবুল ইসলাম সোহাগ

নিরাপদ নিউজ

নিরাপদনিউজ : কুমিল্লায় রেলওয়ে লেভেলক্রসিংয়ের গেটম্যান ও ২ তরুণের তৎপরতায় বড় ধরনের দুর্ঘটনার হাত থেকে রক্ষা পেলো চট্টলা এক্সপ্রেস। বেঁচে গেলেন ট্রেনের প্রায় হাজার খানেক যাত্রী।

বৃহস্পতিবার সন্ধ্যা ৬টার দিকে ঢাকা-চট্টগ্রাম রেলপথের কুমিল্লার সদর উপজেলার কালিজুড়ি এলাকার মুড়াপাড়া রেল সড়কে মাটিবাহী একটি ট্রাক আটকে গেলে গেটম্যান টিপু এবং স্থানীয় দুই তরুণ সুমন (১৬) ও সুজন (১৭) তাৎক্ষণিক প্রায় আধা কিলোমিটার দূরে গিয়ে শার্ট খুলে লাল পতাকা উঁচিয়ে সিগনাল দিয়ে ট্রেনটিকে থামায়। পরে দেড় ঘণ্টার চেষ্টায় রেললাইনে আটকে যাওয়া ট্রাকটি সরিয়ে নিলে ট্রেন চলাচল স্বাভাবিক হয়।

স্থানীয় সূত্র জানায়, বৃহস্পতিবার সন্ধ্যা ৬টার দিকে কুমিল্লা সদর উপজেলার মূড়াপাড়া রেল ক্রসিং পাড় হওয়ার সময় রেলের ডাবল লাইনের কাজে ব্যবহৃত মাটিবাহী একটি ডাম্প ট্রাক রেল রাস্তার আটকে যায়। এ সময় ক্রসিংয়ের পাশে থাকা সুমন ও সুজন বিষয়টি দেখতে পেয়ে গেটম্যান টিপুকে অবহিত করে। গেটম্যান টিপু তাৎক্ষণিক কুমিল্লা রেলওয়ে স্টেশনে খবর নিয়ে জানতে পারে ইতিমধ্যে চট্টগ্রামগামী চট্টলা এক্সপ্রেস পার্শ্ববর্তী রসুলপুর স্টেশন থেকে ছেড়ে এসেছে। এ সময় গেটম্যান টিপু দুই তরুণকে সাথে নিয়ে প্রায় আধা কিলোমিটার উত্তরে বানাসুয়া গোমতী সেতু এলাকায় গিয়ে গায়ের শার্ট খুলে এবং লাল পতাকা উঁচিয়ে চট্টলা এক্সপ্রেস ট্রেনটিকে থামার সংকেত দেয়। সংকেত পেয়ে ট্রেনটি ইমার্জেন্সি ব্রেক চেপে ট্রাক দুর্ঘটনাস্থলে কিছুটা অদূরে এসে থামে। এ সময় ট্রেনের যাত্রীদের মধ্যে আতঙ্ক সৃষ্টি হয়। প্রায় দেড় ঘণ্টা বন্ধ থাকার পর ভ্যাকুর সহায়তায় দুর্ঘটনা কবলিত ট্রাকটিকে সড়ানোর পর চট্টলা এক্সপ্রেস ট্রেনটি চট্টগ্রামের উদ্দেশ্যে ছেড়ে যায়।

এ বিষয়ে জানতে চাইলে মুড়াপাড়া লেভেল ক্রসিংয়ের গেটম্যান মো. টিপু জানান, রেলওয়ের ডাবল লাইন প্রজেক্টের একটি মাটি ভর্তি ট্রাক সন্ধ্যায় লেভেল ক্রসিং গেইটের ওপর বিকল হয়ে পড়ে। এ সময় রসুলপুর স্টেশন থেকে কুমিল্লামুখে ছেড়ে আসছিল চট্টলা এক্সপ্রেস। আমি স্থানীয় তরুণকে সাথে নিয়ে দৌড়ে গিয়ে শার্ট ও লাল পতাকা উচিয়ে থামানোর সংকেত দিলে ইমার্জেন্সি ব্রেক করে দুর্ঘটনা থেকে রক্ষা পায় চট্টলা এক্সপ্রেস ও সহস্রাধিক যাত্রী।

বিষয়টি নিশ্চিত করে কুমিল্লা রেলওয়ে স্টেশনের সহকারী স্টেশন মাস্টার রাফাতুল ইসলাম জানান, তিনজনের বুদ্ধিমত্তা ও তৎপরতায় চট্টগ্রাম অভিমুখী চট্টলা এক্সপ্রেস একটি বড় ধরনের দুর্ঘটনা থকে রক্ষা পায়। উদ্ধারকাজ চলাকালে কুমিল্লা রেলওয়ে স্টেশনে ঢাকা অভিমুখী মহানগর গোধূলি এবং রসুলপুর স্টেশনে চট্টগ্রাম অভিমুখী সুবর্ণ এক্সপ্রেস আটকা পড়ে বলে জানান তিনি। দেড় ঘণ্টা পর এ রেল সড়কে চলাচল স্বাভাবিক হয়।

কুমিল্লা কোতয়ালী মডেল থানার ওসি আনোয়ারুল হক জানান, খবর পেয়ে তাৎক্ষণিকভাবে আমিসহ সঙ্গীয় পুলিশ ফোর্স ঘটনাস্থলে উপস্থিত হই। ট্রাকটিকে উদ্ধার করে পুলিশ হেফাজতে রাখা হয়েছে।

Subscribe
Notify of
guest
0 Comments
Inline Feedbacks
View all comments
0
Would love your thoughts, please comment.x
()
x