আপডেট নভেম্বর ২৯, ২০১৯

ঢাকা বৃহস্পতিবার, ২৮ মে, ২০২০, ১৪ জ্যৈষ্ঠ, ১৪২৭ , গ্রীষ্মকাল, ৩ শাওয়াল, ১৪৪১

মানবপাচারের ভয়ঙ্কর ফাঁদ: রঙিন স্বপ্ন দুঃস্বপ্নে পরিণত

রকিবুল ইসলাম সোহাগ

নিরাপদ নিউজ

নিরাপদ নিউজ : মানবপাচারের ভয়ঙ্কর ফাঁদ পেতেছে একটি চক্র। দেশের বেকার যুবকদের কাছে ইউরোপের স্বপ্নের দেশ স্পেনের কথা বলে পাঠিয়ে দেয়া হচ্ছে উত্তর আফ্রিকার দেশ আলজেরিয়ায়। বিশেষ করে গ্রামের সহজ-সরল মানুষ প্রতারিত হচ্ছে সবচেয়ে বেশী। পরিশেষে স্পেন যাওয়া তো দুরের কথা, দালালদের দেখানো ‘রঙিন স্বপ্ন’ দুঃস্বপ্নে পরিণত হয়। প্রথমে যুবকদের বলা হয়, আলজেরিয়া ট্রানজিট। সেখান থেকে তারা চলে যাবে মরক্কো। এরপর মরক্কো হয়ে সরাসারি স্পেন। সংশ্লিষ্ট রিক্রুটিং এজেন্সি ও দালালচক্র তাদের কথা বিশ্বাস করাতে বিশ্ব মানচিত্র দেখিয়ে যুকদের এমনভাবে বলছে, স্পেনে প্রবেশ যেনো ওয়ান/টুর ব্যাপার মাত্র। এমনকি ট্রেনিং সেন্টারগুলো থেকেও একই কথা বলা হচ্ছে তাদের। কিন্তু বাস্তবতা সম্পূর্ণই ভিন্ন। আলজেরিয়ায় যাওয়ার পর মানবতার জীবনযাপন করছেন ভাগ্য বদলের আশায় বিদেশ পাড়ি জমানো বাংলাদেশিরা। কেউ কেউ স্পেনের যাওয়ার আশায় মরক্কো পাড়ি দিয়ে আরো ভয়ঙ্কর ভোগান্তিতে পরে যান।

বিভিন্ন সংবাদ মাধ্যমে আমরা জানতে পারি, সম্প্রতি এমন ৪২ বাংলাদেশি বিদেশের মাটিতে আটকা পড়ে মানবেতর জীবনযাপন করছেন। ইতোমধ্যে এই অবস্থা থেকে দেশে ফিরেছেন অনেকেই। এমনই ভাগ্য বিড়ম্বনার শিকার কয়েকজন গণমাধ্যমকে জানিয়েছেন, রিক্রুটিং এজেন্সি তাদের স্পেনে যাওয়ার জন্য প্রথমে আলজেরিয়া পাঠায়। স্বপ্ন দেখায়, প্রতি মাসে ৫০-৬০ হাজার টাকা বেতনের। কিন্তু দেখা যায় আলজেরিয়ায়ই তাদের শেষ গন্তব্য। সেখানে থেকে তারা মানবেতর জীবনযাপন করছেন। আলজেরিয়ায় গিয়ে কাজ করা গেলেও ঠিকমতো বেতন দেয়া হয় না। ফেরত আসা কর্মীদের অভিযোগ, বেতন চাইলে মারধর করা হয়। অভিযোগ রয়েছে, জনশক্তি কর্মসংস্থান ও প্রশিক্ষণ ব্যুরোর ছাড়পত্র নিয়েই কর্মী প্রেরণ করছে কিছু রিক্রুটিং এজেন্সি। কিন্তু সেখানে গিয়ে তারা প্রতারিত হচ্ছেন। আমরা বলতে চাই, তাহলে জনশক্তি কর্মসংস্থান ও প্রশিক্ষণ ব্যুরো কী করছে? তাদের কাজই কী?
আলজেরিয়ায় আটকেপড়া ও ফেরত আসা যুবকরা জানিয়েছেন, এ বিষয়ে রিক্রুটিং এজেন্সির সঙ্গে যোগাযোগ করলে তারা বলে- বিদেশ পাঠানোর কথা আমরা পাঠিয়েছি। এখন সেখানে সমস্যা থাকলে কী করবো? তারা আরো বলে, আলজেরিয়াতে তাদের লোক আছে। তারা স্পেনে লোক পাঠায়। আপনারা তাদের সঙ্গে যোগাযোগ করে স্পেন চলে যেতে পারেন।

সম্প্রতি ফেরত কয়েকজন জানান, জীবন বাঁচানোর তাগিদে পরিবার থেকে টাকা নিয়ে নিজ থেকে বিমান টিকিট কেটে শূন্য হাতে দেশে ফিরে আসেন। দেশে ফেরত আসার পর সংশ্লিষ্ট রিক্রুটিং এজেন্সির সঙ্গে যোগাযোগ করলে তাদের হুমকি দেয়া হয়। তবে সার্বিক ঘটনা শুনে আমাদের কাছে স্পষ্ট যে, স্পেনে পাঠানোর স্বপ্ন দেখিয়ে তাদের আলজেরিয়ায় পাঠানো হচ্ছে। বিষয়টা উদ্বেগজনক। আশা করছি, সেখানকার দূতাবাস থেকে সরকারকে এ ব্যাপারে করণীয় জানানো হবে। দ্রুত এ ধরনের প্রতারণা বন্ধ করতে না পারলে আরও অনেককে বিপদে পড়তে হবে। দেশের ভাবমূর্তিও ক্ষুণœ হবে বলে মনে করছি আমরা। এ ব্যাপারে এখনই যথাযথ ব্যবস্থা নেয়া জরুরি।

মন্তব্য করুন

Please Login to comment
avatar
  Subscribe  
Notify of