আপডেট ৫৯ সেকেন্ড

ঢাকা রবিবার, ১২ জুলাই, ২০২০, ২৮ আষাঢ়, ১৪২৭ , বর্ষাকাল, ২০ জিলক্বদ, ১৪৪১

নাগরিকত্ব আইন নিয়ে মুর্শিদাবাদ রণক্ষেত্র, নিহত ২

রকিবুল ইসলাম সোহাগ

নিরাপদ নিউজ

নিরাপদ নিউজ: ভারতের সংশোধিত নাগরিকত্ব আইন (সিএএ) ও প্রস্তাবিত জাতীয় নাগরিক পঞ্জি (এনআরসি) এর বিরুদ্ধে প্রতিবাদ, বিক্ষোভ দেখাতে গিয়ে রণক্ষেত্রে পরিণত হয়েছে পশ্চিমবঙ্গের মুর্শিদাবাদ জেলার জলঙ্গি এলাকা। দুই পক্ষের সংঘর্ষে এখন পর্যন্ত দুই জনের মৃত্যুর খবর পাওয়া গেছে।

জানা যায়, আইনের প্রতিবাদে বুধবার জলঙ্গী থানার সাহেবনগর এলাকায় হরতালের ডাক দেয় নাগরিক সমাজ। তারই অংশ হিসেবে এদিন সকাল বেলায় এক বিক্ষোভ কর্মসূচি নেয়া হয়েছিল। বিক্ষোভের অংশ হিসেবে সড়ক অবরোধ করে নাগরিক সমাজের একাংশ। আর সেই অবরোধকে কেন্দ্র করে উত্তপ্ত হয়ে ওঠে সাহেবপাড়া। কারণ সড়ক অবরোধের প্রতিবাদ করে জলঙ্গি ব্লক তৃণমূল কংগ্রেস। ব্লক সভাপতি তাহিরউদ্দিন শেখের নেতৃত্বে কয়েকজন ব্যক্তি গাড়ি নিয়ে এসে অবরোধ হঠাতে যায়। এসময় উভয় পক্ষের মধ্যে তীব্র সংঘর্ষ শুরু হয়ে যায়। দুই পক্ষের সংঘর্ষের মধ্য থেকেই চলে গুলি। সংঘর্ষে এখনো পর্যন্ত দুই জনের মৃত্যুর খবর পাওয়া গেছে।

সংঘর্ষের মধ্যেই গুলিতে রাস্তায় লুটিয়ে পড়েন আনারুল বিশ্বাস (৬৫) নামে এক ব্যক্তি। পরে তাকে হাসপাতালে নিয়ে গেলে মৃত বলে ঘোষণা করা হয়। অন্যজনের পরিচয় এখনো জানা যায়নি। সংঘর্ষে আহত হয়েছে পাঁচ জন। আহতদের নিয়ে যাওয়া হয়েছে মুর্শিদাবাদ মেডিক্যলে কলেজে। এরমধ্যে আলাউদ্দিন বিশ্বাস (৪০) এর অবস্থা গুরুতর হওয়ায় তাকে বহরমপুরে স্থানান্তরিত করা হয়েছে।

ঘটনার পরে সাহেবনগর প্রচণ্ড উত্তেজনা ছড়িয়ে পড়ে। ভাঙচুর করা হয়েছে বেশ কয়েকটি গাড়ি, কয়েকটি গাড়িতে আবার অগ্নিসংযোগ করা হয় বলে অভিযোগ।

ঘটনাস্থলে পরিস্থিতি সামলাতে নামানো হয়েছে রাপিড একশন ফোর্স (আরএএফ), কমব্যাট ফোর্স। উত্তেজনা চরমে থাকায় গোটা এলাকা পুলিশের নিয়ন্ত্রণে আনতে বেশ বেগ পেতে হচ্ছে।

তবে অবরোধকারীদের দাবি তারা শান্তিপূর্ণভাবে অবরোধ করছিলেন। কিন্তু জলঙ্গীর ব্লক সভাপতি তাহের উদ্দিন শেখ দাঁড়িয়ে থেকে এই হামলা চালায়। পুলিশ গোটা ঘটনার কারণ খতিয়ে দেখছে।

যদিও তাহির উদ্দিন শেখ নিজে এই অভিযোগ অস্বীকার করেছেন। তার অভিযোগ এই সংঘর্ষের পেছনে স্থানীয় কংগ্রেস এবং সিপিআইএম সমর্থকদের মদদ ছিল।

Subscribe
Notify of
guest
0 Comments
Inline Feedbacks
View all comments
0
Would love your thoughts, please comment.x
()
x