ব্রেকিং নিউজ

আপডেট মার্চ ২৮, ২০২০

ঢাকা শুক্রবার, ৫ জুন, ২০২০, ২২ জ্যৈষ্ঠ, ১৪২৭ , গ্রীষ্মকাল, ১১ শাওয়াল, ১৪৪১

‘নিষেধাজ্ঞা অমান্য করে ট্রাকে যাত্রী বহন,ঘটছে প্রাণহানী’: যা বললেন ইলিয়াস কাঞ্চন (ভিডিও)

রকিবুল ইসলাম সোহাগ

নিরাপদ নিউজ

নিরাপদ নিউজ: করোনা ভাইরাস আতঙ্কে সব ধরনের গণপরিবহন চলাচল বন্ধ ঘোষণা করেছে সরকার। করোনা পরিস্থিতি মোকাবিলায় গত ২৬ মার্চ থেকে আগামী ৪ এপ্রিল পর্যন্ত সারাদেশে গণপরিবহন চলাচল বন্ধ করা হয়। সেই সাথে সরকারের পক্ষ্য থেকে দেশের মানুষ, যাত্রীসাধারণ, গাড়ির মালিক শ্রমিকসহ সংশ্লিষ্ট সবার জ্ঞাতার্থে জানানো হয় ২৬ মার্চ থেকে ৪ এপ্রিল ২০২০ পর্যন্ত সারাদেশে গণপরিবহন লকডাউন করা হয়েছে। ট্রাক, কাভার্ডভ্যান, ওষুধ, জরুরি সেবা, জ্বালানি, পচনশীল পণ্য পরিবহনে নিষেধাজ্ঞার বাইরে থাকবে। পণ্যবাহী যানবাহনে কোনও যাত্রী পরিবহন করা যাবে না। অথচ সরকারি নিষেধাজ্ঞা অমান্য করে মহাসড়কে পিকআপ ভ্যান ট্রাকসহ বিভিন্ন অবৈধ যানবাহন যাত্রী বহন করছে।

নিয়ম না মেনে অসর্তকতা ভাবে চলতে গিয়ে ঘটছে দুর্ঘটনা ও প্রাণহানী। আজ শনিবার সকাল ৬টার দিকে ঢাকা-টাঙ্গাইল মহাসড়কে সদর উপজেলার কান্দিলা নামক স্থানে একটি সড়ক দুর্ঘটনায় প্রাণ হারিয়েছেন ৬জন এবং আহত হয়েছেন ১৩জন। জানা গেছে, ঢাকা থেকে ওই ট্রাকটি সিমেন্ট ও কিছু যাত্রী নিয়ে বগুড়ার দিকে যাচ্ছিল। পথে কান্দিলা এলাকায় পৌঁছলে ট্রাকটি নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে সড়কের পাশে খাদে পড়ে যায়। এতে ৬জন নিহত এবং ১৩ জন আহত হন।

একদিকে সারাদেশে করোনাভাইরাস এর আতঙ্ক অন্যদিকে সড়ক দুর্ঘটনা! এসব এর জন্য নিজেদের সচেতনতার অভাব এবং দায়িত্বশীল ব্যক্তিদের কাজে দায়িত্বের অবহেলাকে দায়ি করে ফেসবুক লাইভে এসে ক্ষোভ প্রকাশ করলেন নিরাপদ সড়ক চাই আন্দোলনের প্রতিষ্ঠাতা চেয়ারম্যান চিত্রনায়ক ইলিয়াস কাঞ্চন।

আজ রাতে তিনি তার নিজস্ব ফেসুবক লাইভে এসে বলেন, সারাদেশ লকডাউন। সরকার ঘোষনা করেছে সারাদেশে গণপরিবহন বন্ধ এবং মালবাহী পরিবহন ট্রাকে উঠে কেউ চলাচল করবেন না। এরপরও আমরা কতোটা অসচেতন, সব বাধা অমান্য করে জীবনের ঝুঁকি নিয়ে এভাবে যাত্রা করেই যাচ্ছি। এবং সরকার যাদের এসব দেখার দায়িত্ব দিয়েছেন সেইসব সংশ্লিষ্টকর্তৃপক্ষরা তাঁরা তাঁদের দায়িত্ব কতটা পালন করছেন তা নিয়েও প্রশ্ন তুলে ইলিয়াস কাঞ্চন বলেন, আপনাদের চোখের সামনে দিয়ে এভাবে এতগুলো মানুষ কিভাবে ট্রাকে যাত্রা করতে পারে। এটি দেখার দায়িত্ব কি আপনাদের নয়। আপনারা কাজ করবেন সরকার আপনাদের বেতন দেবে এই বেতনের টাকাটা আসে জনগণের থেকে। যে জনগণের টাকায় আপনার বেতন হয় সেই জনগণের জীবন রক্ষায় আপনার অপর অর্পিত দায়িত্ব কেন আপনারা যথাযথ ভাবে পালন করবেন না? আপনাদের কি মৃত্যুর ভয় নেই! মৃত্যুর পর আল্লাহর কাছে গিয়ে কি জবার দেবেন। ইলিয়াস কাঞ্চন সড়ক নিরাপত্তায় নিয়োজিত সকলকে উদ্দেশ্য করে বলেন দয়া করে আপনারা সকলে নিজেরা নিজেদের দায়িত্বগুলো সঠিকভাবে পালন করুন।

লাইভে ইলিয়াস কাঞ্চন আরো বলেন, আজ করোনা ভাইরাস মহামারিতে দেশ লকডাউন অবস্থায় আছে। হয়তো কদিন পর আস্তে আস্তে এই পরিস্থিতি আবার স্বাভাবিক হয়ে আসবে। তবে আমরা যদি নিয়ম না মেনে চলি তাহলে করোনা ভাইরাস আরো মারাত্মক আকার ধারন করবে। সেই সাথে দেশের সড়ক দুর্ঘটনার বিষয়কে এড়িয়ে গেলে চলবেনা। করোনার মতো সড়ক দুর্ঘটনা রোধেও আমাদের এখনই কার্যকর পদক্ষেপ গ্রহণ করা উচিত।প্রতিদিন সড়কে ১৫ থেকে ২০জন মারা যাচ্ছে এই মৃত্যুর মিছিল আমাদের বন্ধ করতে যথাযথ পদক্ষেপ গ্রহন করতেই হবে।

লাইভে ইলিয়াস কাঞ্চন, সবাইকে আইন মেনে চলার পরামর্শ দেন। তার মতে,করোনাভাইরাস এবং সড়ক দুর্ঘটনা কমাতে হলে সচেতনতার বিপল্প নেই। আমরা সকলে যদি নিয়ম মেনে সঠিকভাবে চলি তাহলে করোনা ভাইরাস থেকে যেমন মুক্তি পাব তেমনি সড়কের সকল নিয়ম মেনে পথ চললে দুর্ঘটনার হাত থেকেও নিজেদের রক্ষা করতে পারব। এই সচেতনতার ক্ষেত্রে আমরা যারা দায়িত্বহীন। যারা নিয়ম মানিনা তাদের জন্য আইনের প্রয়োগ প্রয়োজন বলে মনে করেন ইলিয়াস কাঞ্চন। দেশে আজ যেমন করোনা আতঙ্কে সবাইকে আইন মানতে বাধ্য করা হচ্ছে। তেমনি দুর্ঘটনারোধেও আইনের প্রয়োগ প্রয়োজন। দেশের নতুন সড়ক পরিহন যে আইনটি রয়েছে তা যতক্ষণ পর্যন্ত প্রয়োগ না হবে, ততক্ষণ পর্যন্ত পরিবর্তন আসবে না। এই আইন যথাযথভাবে কার্যকর ও প্রয়োগ করা হলে সড়ক দুর্ঘটনা কমবে বলে মনে করেন ইলিয়াস কাঞ্চন।

পরিশেষে ইলিয়াস কাঞ্চন সবাইকে ধন্যবাদ ও নিরাপদে থাকার আহবান জানিয়ে ফেসবুক থেকে বিদায় নেন।

মন্তব্য করুন

Please Login to comment
avatar
  Subscribe  
Notify of