ব্রেকিং নিউজ

আপডেট এপ্রিল ৯, ২০২০

ঢাকা শুক্রবার, ২৯ মে, ২০২০, ১৫ জ্যৈষ্ঠ, ১৪২৭ , গ্রীষ্মকাল, ৫ শাওয়াল, ১৪৪১

একযুগ পর নিখোঁজ পিতার দেখা পেল সন্তান!

রকিবুল ইসলাম সোহাগ

নিরাপদ নিউজ

নজরুল ইসলাম দয়া,নিরাপদ নিউজ: রাজধানীর বায়তুল মোকাররম মসজিদের সামনের রাস্তার ধারে এক ষাটার্দ্ধ বৃদ্ধের সাথে ৬দিন ধরে খোলা আকাশের নিচে দিনরাত পার করছেন সংশোধন চলচ্চিত্রের নির্মাতা ও অভিনেতা রাসেল মিয়া। ওই বৃদ্ধের পা ধুয়ে দেয়া থেকে শুরু করে ভেজা কাপড় দিয়ে শরীরও মুঠে দিচ্ছেন তিনি। বাসা থেকে নিজ হাতে খাবার রান্না করে নিয়ে যাচ্ছেন পথেরধারে। বৃদ্ধকে খাইয়ে তারপর খাবার খাচ্ছেন ইউটিউভ অভিনেতা রাসেল। রাস্তার ধারে ওই বৃদ্ধের সাথে একই বিছানায় ঘুমাচ্ছেন। ষাটার্দ্ধ বৃদ্ধের সাথে খোলা আকাশের নিচে যেন সংসার পেতেছেন অভিনেতা রাসেল মিয়া ! বর্তমানে করোনাভাইরাসের এই সময়ে এমন কান্ডে রাসেল মিয়া করোনায় আক্রান্ত হতে পারেন বলে শঙ্কা করছেন তাঁর ভক্তরা।

বৃদ্ধকে সেবাযত্নের বেশকিছু ছবি সামজিক যোগাযোগ মাধ্যমে নানা প্রশ্নে রিতিমতো ভাইরাল হয়েছে। আসলে ওই মানসিক ভারসাম্যহীন ষাটার্দ্ধ বৃদ্ধের সাথে রাসেল মিয়ার সম্পর্কটা কি ? এমনভাবে সেবা করছেন, ‘যেন সবকিছুর উর্দ্ধে ওই বৃদ্ধ ! সে-কি তাঁর খুব আপন কেউ ? ’ প্রশ্নের উত্তর খুঁজছেন রাসেল মিয়ার ভক্তরা। অবশেষে রাসেল মিয়া যা জানালেন, তা শুনে সবাই আবেগে আপ্লুত হবেন। ভাগ্যের কি নির্মম পরিনতি !

বৃহস্পতিবার (৯ এপ্রিল)  ইউটিউভ অভিনেতা রাসেল মিয়া মুঠোফোনে জানালেন, ‘উনি আমার আব্বা ! প্রায় ১২ বছর আগে হঠাতই উধাও হয়ে গিয়েছিল। ভেবেছিলাম, আব্বা হয়তো আমাদের মাঝে নেই। আমার আব্বা এখন রাস্তার পাগল (মানসিক ভারসাম্যহীন)। ভাগ্যের কি নির্মম খেলা, ১২ বছর আগের আব্বা আজ পাগল হয়ে ফিরে এসেছে। তবুও তো আমার আব্বা। আমি তো ফেলে যেতে পারিনা। রাসেল মিয়া বলেন, আব্বা আমার মাথার ছাতা। শুধু করোনা কেন, জীবন গেলে যাক, আমি আব্বাকে ছাড়া কোথাও যাচ্ছিনা! সম্পত্তির লোভে নিজের মানুষগুলো আব্বার সাথে চরম বেইমানি করেছে। আব্বাকে আগে সুস্থ করি, সময় হলে মুখ খুলব ইনশাআল্লাহ।

পরিবারসূত্র বলছে, ১২ বছর আগে হঠাতই গায়েব হয়ে যান সেকেন্দার আলী। অনেক খোঁজখবরের চেষ্টায় ব্যর্থ হয়ে তাঁর আশা ছেড়ে দেয় পরিবার। সবাই ভেবেছিল, ‘তিনি হয়তো আর বেঁচে নেই’। কিন্তু আশাহত ছিলেন না ছেলে রাসেল মিয়া। থানায় করেছিলেন জিডি। অবশেষে ১২ বছর আগে হারিয়ে যাওয়া জন্মদাতার দেখা পেল সংশোধন চলচ্চিত্রের নির্মাতা ও অভিনেতা রাসেল মিয়া। গত ৪ এপ্রিল রাজধানীর শাজাহানপুর থানা পুলিশ নিখোঁজ হওয়া সেকেন্দার আলীকে উদ্ধার করে অভিনেতা রাসেল মিয়ার জিম্মায় দিয়েছে বলেও জানানো হয়।

বিশ্বজুড়ে করোনাভাইরাসে বেড়েই চলেছে লাশের মিছিল। বাংলাদেশেও কিছুটা করোনা সংক্রমণ শুরু হতে না হতেই আতঙ্কে রয়েছে সারাদেশ। ঘর থেকে বের হচ্ছেন না সাধারণ জনগণ, সড়ক থেকে শুরু করে গ্রামের রাস্তায় ও শহর-বাজারে প্রশাসণের ব্যাপক কড়াকড়ি চলছে। কর্মহীন হয়ে পড়েছে খেটে খাওয়া মানুষগুলো। এমন সময় খেটে খাওয়া ও পথের মানুষের বিভিন্ন দাবি তুলে স্লোগান দিয়ে চলেছেন সংশোধন চলচ্চিত্রের নির্মাতা ও ইউটিউভ অভিনেতা রাসেল মিয়া। এরমধ্যে বেশকিছু দাবি আলোর মুখ দেখেছে। রান্না করা খাবার নিয়ে পথের মানুষের কাছে ছুটে চলেছেন রাসেল মিয়া। সৃস্টিকর্তাকে গালি দিয়েছিল রিতা দেওয়ান নামের এক বাউলশিল্পী। এঘটনায় একটি মামলাও করেছেন অভিনেতা রাসেল মিয়া। এরমাঝে জীবনের সবচেয়ে বড় পুরস্কারটি পেলেন তিনি। হারিয়ে যাওয়া জন্মদাতার সন্ধান পেয়ে আনন্দে আত্মহারা এই অভিনেতা।

মন্তব্য করুন

Please Login to comment
avatar
  Subscribe  
Notify of