ব্রেকিং নিউজ

আপডেট এপ্রিল ১২, ২০২০

ঢাকা রবিবার, ৩১ মে, ২০২০, ১৭ জ্যৈষ্ঠ, ১৪২৭ , গ্রীষ্মকাল, ৭ শাওয়াল, ১৪৪১

মানুষ ঘরবন্দি হয়ে পড়ার কারণে খাদ্যবর্জ্য কমে গেছে: চরম খাদ্যসংকটে প্রাণিকুল

রকিবুল ইসলাম সোহাগ

নিরাপদ নিউজ

নিরাপদ নিউজ: বগুড়ার ধুনট উপজেলায় করোনাভাইরাস সংক্রমণের শঙ্কায় মানুষ ঘরবন্দি হয়ে পড়ার কারণে খাদ্যবর্জ্য কমে গেছে। এতে করে চরম খাদ্যসংকটে পড়েছে কুকুর, বিড়াল ও কাকসহ প্রাণিকুল।

জানা গেছে, করোনা সংক্রমণের কারণে অফিস, স্কুল-কলেজ, গণপরিবহন বন্ধের ঘোষণা দেয় সরকার। এতে সাধারণ মানুষেরা ঘরবন্দি হয়ে পড়ে। উপজেলাজুড়ে চলছে অঘোষিত লকডাউন। স্থবির হয়ে পড়েছে জনজীবন। বাজারে মানুষের আনাগোনা সীমিত হয়ে পড়েছে। ফলে মানুষের খাদ্যবর্জ্য একেবারেই কমে গেছে। সব দোকানপাট, হোটেল-রেস্টুরেন্ট বন্ধ রয়েছে। আবর্জনার ভাগাড়গুলোতে এখন উচ্ছিষ্ট খাদ্য মিলছে না। এতে বেওয়ারিশ প্রাণিকুল চরম খাবার সংকটে পড়েছে। বিশেষ করে বিড়াল, কুকুর ও কাকের খাবারের সংকট সবচেয়ে বেশি।

জীববৈচিত্র্য সংরক্ষণে স্বেচ্ছাসেবী সংগঠন স্বাধীন জীবনের নির্বাহী পরিচালক আব্দুর রাজ্জাক নাছিম বলেন, করোনা দুর্যোগে মানুষ ঘরবন্দি হয়ে পড়ায় পরিবেশের ওপর ক্ষতির প্রভাব কমেছে। এতে পরিবেশের পরিবর্তন ঘটছে। আবার মানুষের খাদ্যবর্জ্য কমে যাওয়ার কারণে কুকুর, বিড়াল ও কাকের মতো বেওয়ারিশ প্রাণির খাবারের সংকট হচ্ছে। তাই যার যার অবস্থান থেকে এসব প্রাণীর সাহায্যে পাশে দাঁড়ান। সবাই অন্তত একটি বাচ্চা কুকুরের দায়িত্ব নিলে এ দেশে কারো না খেয়ে থাকতে হবে না। এ পৃথিবী শুধু মানুষের জন্য নয়, প্রাণীদেরও।

ধুনট উপজেলা প্রাণিসম্পদ কর্মকর্তা সাইফুল ইসলাম বলেন, এখন তো সবাই মানুষের নিরাপত্তা নিয়েই বেশি চিন্তিত। তবে এটা ঠিক যে, এ প্রাণীগুলোর দিকেও নজর দেওয়া দরকার। অবশ্য এগুলোর খাবারের জন্য আগেও আমরা কখনো কিছু করিনি। এ ধরনের পরিস্থিতি তৈরি হয়নি। তাই আমরা প্রস্তুত ছিলাম না। সংশ্লিষ্ট সবার সঙ্গে কথা বলে দেখি এসব প্রাণিকুলের জন্য আমরা কতটুকু কী করতে পারি।

মন্তব্য করুন

Please Login to comment
avatar
  Subscribe  
Notify of