ব্রেকিং নিউজ

আপডেট মে ৭, ২০২০

ঢাকা রবিবার, ৩১ মে, ২০২০, ১৭ জ্যৈষ্ঠ, ১৪২৭ , গ্রীষ্মকাল, ৭ শাওয়াল, ১৪৪১

খাবের বিষ দিয়ে বানর হত্যা: তদন্ত কমিটি গঠন

মাদারীপুর প্রতিনিধি

নিরাপদ নিউজ

মাদারীপুর পৌরসভার মধ্যখাগদী এলাকায় খাবারে বিষ মিশিয়ে ১৫টি বানরকে হত্যার ঘটনায় অতিরিক্ত জেলা ম্যাজিস্ট্রেট লুৎফুন নাহার নাজীমকে প্রধান করে চার সদস্যের তদন্ত কমিটি গঠন করেছে জেলা প্রশাসন। বৃহস্পতিবার দুপুরে মাদারীপুরের জেলা ম্যাজিস্ট্রেট ও জেলা প্রশাসক মো. ওয়াহিদুল ইসলাম এই তদন্ত কমিটি গঠন করেন। কমিটিকে আগামী তিন কার্যদিবসের মধ্যে ঘটনাস্থলে গিয়ে তদন্ত করে প্রতিবেদন জমা দিতে বলা হয়েছে।

তদন্ত কমিটির অন্য সদস্যরা হলেন, অতিরিক্তি পুলিশ সুপার মোহাম্মদ বদরুল আলম মোল্লা, জেলা প্রাণী সম্পদ কর্মকর্তা ডা. এ. কে. এম আনোয়ারুল হক ও সহকারী বন সংরক্ষক (ভারপ্রাপ্ত সামাজিক বন কর্মকর্তা) তাপস কুমার সেনগুপ্ত। এদিকে ৫টি বানরের পোস্টমডেম করা হয়েছে। পোস্টমডেমের নমুনা সংগ্রহ করে ঢাকায় পাঠানো হয়েছে।

এর আগে মঙ্গলবার বিকেলে মাদারীপুর পৌরসভার ৯নং ওয়ার্ডের চরমুগরিয়ার মধ্যখাগদি এলাকায় খাবার সাথে বিষ মিশিয়ে ১৫টি বানর হত্যা করে স্থানীয়রা। খবর পেয়ে ঘটনাস্থল পরিদর্শণ করেন সামাজিক বন বিভাগের কর্মকর্তারা। পরে মৃত বানরের নমুনা সংগ্রহ করে পরীক্ষার জন্য নিয়ে আসা হয় জেলা প্রাণী সম্পদ অফিসে। এ ঘটনায় সদর মডেল থানায় ফৌজদারি এবং বন্যপ্রানী সংরক্ষণ ও নিরাপত্তা আইনে আলাদা দুটি মামলা দায়ের করে বন বিভাগ।

স্থানীয় সূত্র জানায়, মাদারীপুর পৌরসভার চরমুগরিয়া এলাকার ৮ ও ৯নং ওয়ার্ডে শত বছর ধরে মানুষের পাশাপাশি বসবাস করে আসছে বানর। এ অঞ্চলে এখনও আড়াই হাজারের মতো বানর আছে। বানরের খাবরের তীব্র সংটক দেখা দেওয়ায় বানরগুলো দলে দলে ভাগ হয়ে আশপাশের বিভিন্ন স্থানে ছড়িয়ে ছিটিয়ে রয়েছে। কিছু বানরকে স্থানীয়রা স্বেচ্ছায় সকাল-বিকেল খাবার দেয়। তবে কিছু বানর খাবার না পেয়ে তারা কিছু লোকের বাড়িতে প্রায়ই হানা দেয়। কখনো কখনো ঘরে ভিতরে প্রবেশ করে রান্না করা খাবার ছিনিয়ে খায়। বানরের উৎপাত সহ্য করতে না পেরে অনেকেই বানরগুলোকে লক্ষ করে ইট-পাটকেল ছুঁড়ে মারলে বানরগুলো ভয়ে পালিয়ে যায়। কিন্তু সম্প্রতি ঘটছে ভিন্ন ঘটনা। মাস তিনে আগেও অন্তত ৫টি বানরকে খাবারের সাথে বিষ দিয়ে মেরে ফেলা হয়। তখন বিষয় মানুষের মধ্যে জানাজানি না হলেও মঙ্গলবার বিকেলে খাবারের সাথে বিষ মিশিয়ে একত্রে অনেক বানর মেরে ফেলার বিষয়টি নজর আসে স্থানীয়দের। মৃত অবস্থায় উদ্ধার হওয়া ১৫টি বানকে মধ্য খাদগী এলাকার একটি খাল পাড়ে মাটি চাপা দেওয়া হয়েছে। এ ঘটনায় বিভিন্ন গণ্যমাধ্যমে একাধিক সংবাদ প্রকাশ হওয়ার পরে বৃহস্পতিবার তদন্ত কমিটির গঠন করলো জেলা প্রশাসন।

জেলা প্রাণী সম্পদ কর্মকর্তা ডা. এ. কে. এম আনোয়ারুল হক বলেন, পুলিশ মৃত বানরগুলো উদ্ধার করে আমাদের কাছে দিলে তার মধ্যে থেকে আমরা ৫টি বানরের পোস্টমডেম করেছি। ঢাকা থেকে রিপোর্ট না আসা পর্যন্ত আমরা বানর হত্যার ব্যাপারে কোনো কিছু বলতে পারবো না।

মন্তব্য করুন

Please Login to comment
avatar
  Subscribe  
Notify of