ব্রেকিং নিউজ

আপডেট ৬ মিনিট ৪৩ সেকেন্ড

ঢাকা বৃহস্পতিবার, ৪ জুন, ২০২০, ২১ জ্যৈষ্ঠ, ১৪২৭ , গ্রীষ্মকাল, ১১ শাওয়াল, ১৪৪১

আপন আহসানের রবীন্দ্র সংগীত ‘একলা চলো রে’

বিনোদন প্রতিবেদক

নিরাপদ নিউজ

ভিন্নধারা গান নিয়ে বরাবরই দর্শক-শ্রোতাদের সামনে হাজির হন সময়ের প্রতিশ্রুতিশীল কণ্ঠশিল্পী আপন আহসান। নিজের লেখা ও সুর করা গান গেয়েই স্বাচ্ছন্দ্যবোধ করেন তিনি। তবে এবারই প্রথম রবীন্দ্র সংগীতে কণ্ঠ মেলালেন তিনি। রক ধাঁচে রবীন্দ্রনাথ ঠাকুরের ‘একলা চলো রে’ গানটি রেকর্ড করেছেন তিনি।

গানটির সংগীতায়োজন করেছেন আরেক তরুণ তুর্কী সংগীত পরিচালক বর্ণ চক্রবর্তী। হিউজ স্টুডিওতে গানটির একটি ভিডিও তৈরি করেছেন বর্ণ। জাপাস্টি কোম্পানি লিমিটেডের সহায়তায় গানটি সম্প্রতি শিল্পীর নিজস্ব ইউটিউব চ্যানেল ‌‘আপন আহসান মিউজিকে’ প্রকাশ পেয়েছে।

কণ্ঠশিল্পী আপন আহসান বলেন, এই প্রথম আমি রবীন্দ্র সংগীত গাওয়ার চেষ্টা করেছি। রবীন্দ্রনাথের ‘একলা চলো রে’ গানটিকে রক ধাঁচে গাওয়ার চেষ্টা করেছি। আশা করি, দর্শক-শ্রোতারা গানটিকে একটু ভিন্ন আয়োজনে সাদরে গ্রহণ করবেন।

এর আগে, আপন আহসানের চারটি একক অ্যালবাম মুক্তি পেয়েছে। লেজার ভিশনের ব্যানারে ১১টি গানের ‘স্বপ্নের রোদ’ (২০১২) এবং ৬টি গানের ‘ভাবো আরেকবার’ (২০১৪) অ্যালবাম মুক্তি পায়। অন্যদিকে ৮টি গানের ‘আজানের সুর’ (২০১৫) ও ৯টি গানের ‘ক্ষমা করে দাও’ (২০১৬) অ্যালবাম দুটি প্রকাশ পায় অনলাইনে।

২০১৬ সালের ঈদুল ফিতরে আপন আহসানের ‘ঈদ মোবারক’ শিরোনামের গানটি দর্শক-শ্রোতামহলে ব্যাপক সাড়া জাগিয়েছে। এর পর সংগীত পরিচালক বর্ণ চক্রবর্তীর সংগীতায়োজনে পুরাতন সিনেমার গান, বৈশাখ ও ইসলামি ধাঁচের বেশ কয়েকটি গান উপহার দেন।

লক্ষ্মীপুরের সন্তান আপন আহসান ২০০২ সালে গানের স্বপ্ন নিয়ে ঢাকায় আসেন। ২০০৪ সালে তার লেখা প্রথম গান রিলিজ হয় সঙ্গীতার ব্যানারে। গীতিকার হিসেবে পথচলা শুরু। দেশের অনেক স্বনামধন্য শিল্পীর কণ্ঠে রয়েছে তার লেখা গান। টানা দুবার সিটিসেল-চ্যানেল আই মিউজিক অ্যাওয়ার্ডও অর্জন করে আপনের লেখা গান।

কয়েকটি মিক্সড অ্যালবামে গান করলেও ২০১২ সালে প্রকাশ পায় তার প্রথম গানের অ্যালবাম ‘স্বপ্নের রোদ’। এ পর্যন্ত পাঁচটি একক অ্যালবাম প্রকাশ পায় তার।

মন্তব্য করুন

Please Login to comment
avatar
  Subscribe  
Notify of