আপডেট মে ১৮, ২০২০

ঢাকা বৃহস্পতিবার, ৯ জুলাই, ২০২০, ২৫ আষাঢ়, ১৪২৭ , বর্ষাকাল, ১৭ জিলক্বদ, ১৪৪১

করোনাঝুঁকিতেও সিলেটে ঈদবাজারে মানুষের ঢল: ভয়াবহ পরিস্থিতির আশঙ্কা

জহিরুল ইসলাম মিশু, সিলেট ব্যুরো

নিরাপদ নিউজ

করোনাভাইরাস মহামারীতে সারা বিশ্ব এখন হুমকির মুখে। বাংলাদেশ ও করোনার পরিস্থিতি ভয়াবহ আকার ধারণ করছে। আজ পর্যন্ত বাংলাদেশে আক্রান্ত সংখ্যা প্রায় ২৩ হাজার। মৃত্যুবরণ করেছেন প্রায় তিনশত লোক। সিলেট বিভাগে আক্রান্ত প্রায় ৪০০। মৃত্যুবরণ করেছেন ৯ জন।

সিলেটে একদিকে লাফিয়ে লাফিয়ে বাড়ছে করোনা আক্রান্তের সংখ্যা, অন্যদিকে ঈদের কেনাকাটা করতে সিলেটে মার্কেটগুলোতে মানুষের হুলস্থুল কাণ্ড।
আসন্ন ঈদুল ফিতরকে সামনে রেখে সরকার সারাদেশে ব্যবসাপ্রতিষ্ঠান সকাল ১০ টা থেকে ৪ টা পর্যন্ত খোলা রাখার সিদ্ধান্ত দিয়েছেন,কিন্তু সিলেট সিটি কর্পোরেশনের মেয়র আরিফুল হক চৌধুরী সিলেটের ব্যবসায়ী নেতৃবৃন্দের সাথে বৈঠক করে এ সিদ্ধান্ত নেয়া হয় কোন দোকানপাট খোলা থাকবে না।
সিলেটবাসীর উদ্বেগ-উৎকণ্ঠা বাড়িয়ে দিয়ে আজ থেকে নগরের হাসান মার্কেট, হকার মার্কেট সহ বিভিন্ন মার্কেট খুলে দেওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছেন ব্যবসায়ীরা।

আজ নগরীর জিন্দাবাজার, বন্দরবাজার,হকার মার্কেট, রাস্তার পাশে অবস্হিত সকল দোকানে ও ফুটপাতের দোকানগুলোতে উপচে পড়া ভিড় লক্ষ্য করা গেছে। কিছু দোকানে জীবাণুনাশক স্প্রে ব্যবহার করা হলেও প্রায় সকল দোকানগুলোতে মানা হচ্ছেনা সামাজিক দূরত্ব ও স্বাস্থ্যবিধিও।
দোকানগুলোতে পুরুষ ক্রেতার চেয়ে মহিলা ক্রেতাদের সংখ্যা অনেক বেশি দেখা গেল। কিছু ক্রেতাদের সাথে কথা হলে উনারা জানান বাচ্চাদের ঈদের কেনাকাটা করতে উনারা মার্কেট এসেছেন।

কিছু ব্যবসায়ীরা পুলিশের কথা না শোনে রাস্তার উপরে দোকান দিয়ে জনদুর্ভোগের কারণ হয়ে দাঁড়িয়েছে। শুধু তাই নয়, এসব ব্যবসায়ীরা বড় করোনা ঝুঁকির মুখে ফেলছেন মানুষদের।

এদিকে ঈদকে সামনে রেখে প্রশাসনের পক্ষ থেকে অস্থায়ী ব্যবসায়ীদেরকে রেজিস্টারি মাঠে বসার জন্য বলা হলেও তারা জুড়ে বসেছেন নগরীর সব ফুটপাত।


এ ব্যাপারে কোতয়ালী থানার ওসি সেলিম মিয়া বলেন- আমরা নিয়মিত অভিযান পরিচালনা করে আসছি। পুলিশ সদস্যরা অভিযান চালিয়ে ফুটপাতের দোকান তুলে দেয়। অভিযান শেষ হলে আবার তারা ফুটপাতে চলে আসে। তবে তাদের বিরুদ্ধের অভিযান চলমান থাকবে।

এদিকে সরকারি নির্দেশনা এবং স্বাস্থ্যবিধি না মানায় সিলেট নগরীতে ৬টি দোকানকে আজ সোমবার জরিমানা করেছে ভ্রাম্যমাণ আদালত।
নগরীর জিন্দাবাজার ও বন্দরবাজার এলাকায় অভিযানে নামে জেলা প্রশাসনের ভ্রাম্যমাণ আদালত। অভিযানে সরকারি নির্দেশনা ও স্বাস্থ্যবিধি মেনে না চলার কারণে এসব এলাকার ৬ দোকান মালিককে মোট সাড়ে ১০ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়।

এদিকে হাসান মার্কেট, হকার মার্কেট ও রাস্তার পাশের দোকান খোলার সিদ্ধান্তকে আত্মঘাতী বলে মনে করছেন সিলেটের সচেতন মহল। তারা বলছেন, যেখানেই জনসমাগম হবে সেখানেই এর সংক্রমণ বৃদ্ধি পাবে। তাই অবিলম্বে ব্যবসায়ীদের এই আত্মঘাতি সিদ্ধান্ত থেকে সরে আসার আহবান জানান তারা।তা না হলে ভয়াবহ পরিস্থিতির সৃষ্টি হবে বলে আশঙ্কা প্রকাশ করা হচ্ছে।

Subscribe
Notify of
guest
0 Comments
Inline Feedbacks
View all comments
0
Would love your thoughts, please comment.x
()
x