ব্রেকিং নিউজ

আপডেট ১৭ মিনিট ৩৭ সেকেন্ড

ঢাকা বুধবার, ১৫ জুলাই, ২০২০, ৩১ আষাঢ়, ১৪২৭ , বর্ষাকাল, ২৩ জিলকদ, ১৪৪১

বহুল আলোচিত বাবরি মসজিদের স্থানে ‘রাম মন্দির’ নির্মাণ শুরু ১০ জুন

অনলাইন ডেস্ক

নিরাপদ নিউজ

বহুল আলোচিত বাবরি মসজিদের জায়গায় রাম মন্দির নির্মাণ শুরু হচ্ছে চলতি মাসেই। করোনাভাইরাস মহামারির মধ্যেই আগামী ১০ জুন বিতর্কিত এই মন্দির নির্মাণ কাজ শুরু হতে যাচ্ছে। রাম নবমী বা অক্ষয় তৃতীয়াতে নির্মাণ শুরুর কথা থাকলেও তা হয়নি। এবার করোনাকে সঙ্গী করেই সে কাজে নামছে ট্রাস্ট। প্রথমে শিবের আরাধনা তারপর শুরু হবে মন্দির নির্মাণের কাজ।

১০ জুন সকাল ৮ টা থেকে মহাদেব আরাধনা শুরু হবে শশাঙ্ক শেখর মন্দিরে। এমনটাই প্রকাশিত হয়েছে একটি সর্বভারতীয় সংবাদ মাধ্যমের প্রতিবেদনে।

দ্য হিন্দুর খবরে বলা হয়েছে, মন্দির নির্মাণে নরেন্দ্র মোদি ঘোষিত ট্রাস্টের পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে, প্রথমে শিবের আরাধনা হবে। তারপর শুরু হবে মন্দির নির্মাণের কাজ। ১০ জুন সকাল ৮ টা থেকে মহাদেব আরাধনা শুরু হবে শশাঙ্ক শেখর মন্দিরে। টানা ২ ঘণ্টা আরাধনা চলবে। এরপর এদিনই মন্দির নির্মাণের কাজ শুরু করবে এল অ্যান্ড টি সংস্থা। এ জন্য এরই মধ্যে সব আয়োজন সম্পন্ন করা হয়েছে।

গত ২৬ মে মন্দিরের নির্মাণস্থলে গিয়েছিলেন রাম জন্মভূমি তীর্থক্ষেত্র ট্রাস্টের চেয়ারম্যান মোহন্ত নৃত্যগোপাল দাস। সেখানে পূজার পর রাম মন্দিরের কাজ শুরুর ঘোষণা দিয়েছিলেন তিনি।

গত বছরের ৯ নভেম্বর দেশটির শীর্ষ আদালতের রায় ঘোষণার পর রাম মন্দির নির্মাণে ট্রাস্ট গঠনের জন্য সময় ছিল তিন মাস। ওই রায়ে সুপ্রিম কোর্ট বলেছিলেন, বিতর্কিত রাম মন্দির-বাবরি মসজিদের স্থানে রাম মন্দির নির্মিত হবে; বিকল্প হিসেবে বাবরি মসজিদ নির্মাণের জন্য মুসলিম ওয়াকফ বোর্ডকে পাঁচ একর জমি অন্যত্র দেয়া হবে।

দিল্লি নির্বাচনের তিন দিন আগে লোকসভায় সেই ট্রাস্ট গঠনের কথা বলেছিলেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি। সরকারপক্ষের এমপিরা সেদিন ‘জয় শ্রী রাম’ ধ্বনি তুলেছিলেন।

মন্দিরটি হবে মোট ১২৫ ফুটের। যদিও তা বাড়িয়ে ১৬০ ফুট করার প্রস্তাব এসেছে নানা মহল থেকে। মন্দিরের প্রথম তলা হবে ১৮ ফুটের। সেখানে থাকবে রাম লালার মূর্তি। দ্বিতীয় তলা হবে ১৫ ফুট ৯ ইঞ্চির। সেখানে গড়ে তোলা হবে রামের দরবার।

Subscribe
Notify of
guest
0 Comments
Inline Feedbacks
View all comments
0
Would love your thoughts, please comment.x
()
x