আপডেট জুন ২১, ২০২০

ঢাকা রবিবার, ১২ জুলাই, ২০২০, ২৮ আষাঢ়, ১৪২৭ , বর্ষাকাল, ২০ জিলক্বদ, ১৪৪১

‘মনোবল শক্ত করেই বেঁচে আছি, দুঃখ হয় সাধারণের কষ্ট দেখে’

অনলাইন ডেস্ক

নিরাপদ নিউজ

দুনিয়ার রঙ বদলে যাচ্ছে। জীবন দিয়ে এভাবে মানুষকে প্রকৃতির কাছে হার মানতে হবে, তা কখনও ভাবিনি। প্রকৃতির এমন বৈরী পরিবেশে মনোবল শক্ত করে বেঁচে আছি। তবে দুঃখ হয় সাধারণের কষ্ট দেখে।

রোববার (২১ জুন)  এভাবেই কথাগুলো বলছিলেন প্রবীণ রাজনীতিক এবং গণফোরাম সভাপতি ড. কামাল হোসেন। করোনাকালীন পরিস্থিতি নিয়ে এসব কথা বলেন তিনি।

নিজের কুশল জানিয়ে ড. কামাল হোসেন বলেন, ‘পরিস্থিতি তো আর মানুষের নিয়ন্ত্রণে নেই। এমন পরিস্থিতিতে নিয়ম করে চলাই উত্তম। বাইরে যাই না একেবারেই। ওষুধ-পথ্য নিয়ম করে চলছে। সময় কাটে পরিবারের আপনজনদের সঙ্গেই। করোনা হয়নি, আপাতত এটিই বড় সান্ত্বনা।’

বাংলাদেশের এ সংবিধান প্রণেতা বলেন, ‘রাষ্ট্র চাইলে মানুষকে আরেকটু নিরাপদে রাখতে পারত। প্রচুর সময় পেয়েছিল প্রস্তুতির। তখন আমলে নেয়নি। এখনও নানা অসঙ্গতি। অথচ রোজ মানুষ মরছে, হাজার হাজার আক্রান্ত হচ্ছে। দায় নাগরিকেরও আছে। সচেতনতার প্রশ্নে আমরা একে অপরকে যেভাবে সহায়তা করার কথা, তা করছি না।’

রাজনীতির নয়া বলয় ঐক্যফ্রন্ট প্রধান কামাল হোসেন বলেন, ‘করোনার শেষ কোথায় কেউ নির্ধারণ করতে পারছে না। এমন পৃথিবী আগে কেউ দেখেনি। মানুষ কত অসহায়! ব্যবসা-বাণিজ্য, অর্থনীতি সবই বিপর্যয়ে। সাধারণরা চাকরি হারাচ্ছে। লকডাউন আরও হুমকিতে ফেলে দিচ্ছে জীবন-জীবিকা। সরকার হয়তো পরিস্থিতি সামলানোর চেষ্টা করছে। কিন্তু এভাবে আসলে কতদিন?’

তিনি বলেন, ‘যাদের সঙ্গে কথা বলেছি আগের রাতে, পরের দিন তাদের মৃত্যুর খবর শুনতে হচ্ছে। কত পরিচিত মুখ হারিয়ে গেল। ড. আনিসুজ্জামান, কামাল লোহানী, মোহাম্মদ নাসিমের মতো বন্ধুদের হারাতে হলো। মাঝে মাঝে অসহায় বোধ করছি। এত শোক চারদিকে! আর কত?’

Subscribe
Notify of
guest
0 Comments
Inline Feedbacks
View all comments
0
Would love your thoughts, please comment.x
()
x