ব্রেকিং নিউজ

আপডেট জুন ২২, ২০২০

ঢাকা মঙ্গলবার, ৭ জুলাই, ২০২০, ২৩ আষাঢ়, ১৪২৭ , বর্ষাকাল, ১৫ জিলক্বদ, ১৪৪১

‘চলমান দুর্যোগে কোনো শিল্পী অভুক্ত থাকবে না এই আমাদের প্রতিজ্ঞা’

নিজস্ব প্রতিবেদক

নিরাপদ নিউজ

দেশে করোনা সংক্রমণ শুরু হবার পর প্রতিটি সেক্টরের মতো চলচ্চিত্র শিল্পী ইন্ডাস্ট্রির কর্মী ও পরিযায়ী শিল্পীরা সংকটে পড়েন। অর্থ ও খাবার সংকটে পড়েন পরিযায়ী অভিনয়শিল্পীরা। এ সময় দেশের তারকা শিল্পীরা হোম কোয়ারেন্টিনে থাকলেও সহশিল্পীদের কথা ভাবেননি অনেকেই। দেশের শীর্ষ চলচ্চিত্র তারকা হিসেবে যারা নিজেদের দাবি করেন, এমন তারকারা নিজেরা কোয়ারেন্টিনে থাকলেও খোঁজ নেননি তাদের সাথে যারা কাজ করেন।

এই অবস্থায় চলচ্চিত্র শিল্পী সমিতি পাশে দাঁড়ায় খাদ্য সংকটে পড়া শিল্পীদের পাশে। চলচ্চিত্র শিল্পী সমিতির সাধারণ সম্পাদক জায়েদ খানের তৎপরতায় এই সংকট থেকে পরিত্রাণ পান শিল্পীরা। শিল্পী সমিতির সভাপতি মিশা সওদাগর, অভিনেতা মনোয়ার হোসেন ডিপজল চিত্রশিল্পী নিপুন, চিত্রনায়িকা শিল্পীসহ বেশ ক’জন মানুষের সমন্বয়ে দফায় দফায় ত্রাণ সরবরাহ করা হয় শিল্পীদের মাঝে।

সাধারণ ছুটির মাঝে বিভিন্ন সংস্থাও জায়েদ খান ও মিশার আহবানে সাড়া দিয়ে এগিয়ে আসেন। যার ফলে শিল্পীদের সেই অর্থে সংকটে পড়তে হয়নি। শিল্পী সমিতির প্রচেষ্টাকে কৃতজ্ঞতা জানিয়েছেন বিভিন্নমহল। শিল্পীদের যাতে কোনোভাবেই কোনোরকম সংকটে পড়তে না হয় তার সর্বোচ্চ চেষ্টা করে যাবেন সমিতির নেতারা।

চিত্রনায়ক জায়েদ খান বলেন, ‘আমরা সকল অভিনয়শিল্পীকে সমানভাবে দেখি। আমাদের এই শিল্পীরা কোনো দুর্যোগে অভাবে পড়ুক, না খেয়ে থাকুক এটা চাইবো না। আমরা করোনাভাইরাসের কারণে সাধারণ ছুটির দিনগুলোতে যেভাবে সহায়তা করেছি তা অব্যাহত থাকবে।

জায়েদ খান বলেন, সিনেমার অবস্থা আগে থেকেই খারাপ। এখন একেবারেই কাজ বন্ধ। যারা দৈনিক মজুরিতে কাজ করতেন তাদের অবস্থা আরও খারাপ। আমাদের সহায়তা পেয়ে তারা আনন্দিত। অনেকেই তো বলেছেনও যে, শিল্পী সমিতির সদস্য হিসেবে রয়েছি বহুদিন ধরে। অথচ এ রকম সাহায্য সহযোগিতা এর আগে কোনো দিনই পাইনি। সবচেয়ে বড় বিষয়  হচ্ছে, আমরা সমিতির প্রত্যেকটা সদস্যের সঙ্গেই যোগযোগ করছি। একটা মেডিক্যাল টিম গঠন করেছি। ডাক্তাররা সর্বদা সদস্যদের টেলিফোনে স্বাস্থ্য পরামর্শ দিচ্ছেন।

শিল্পী সমিতির এই নেতা বলেন, ‘ফের ৩০০ শিল্পীর জন্য আমরা খাদ্য নিয়ে এসেছি। এই খাদ্য সামগ্রী আমরা আজকালের মধ্যেই সকলের মাঝে তুলে দেবো। আর যেহেতু কোরবানি দেরি আছে। কোরবানি ঈদে অবশ্যই সকলের জন্যই খাদ্য সামগ্রী ও ঈদ উপহার থাকবে। এর আগে আমরা দফায় দফায় খাদ্য সহায়তা দিয়ে যাবো। চলমান দুর্যোগে কোনো শিল্পী অভুক্ত থাকবে না এই আমাদের প্রতিজ্ঞা।’

Subscribe
Notify of
guest
0 Comments
Inline Feedbacks
View all comments
0
Would love your thoughts, please comment.x
()
x