ব্রেকিং নিউজ

আপডেট জুন ২৯, ২০২০

ঢাকা শুক্রবার, ৩ জুলাই, ২০২০, ১৯ আষাঢ়, ১৪২৭ , বর্ষাকাল, ১০ জিলক্বদ, ১৪৪১

চট্টগ্রামে নকল স্যানিটাইজার তৈরির অভিযোগে ৬ মাসের দণ্ড

শফিক আহমেদ সাজীব

নিরাপদ নিউজ

চট্টগ্রামের সুপারিপাড়ায় নকল স্যানিটাইজার তৈরির অভিযোগে ৬ মাসের দণ্ড। ক্যান্সার সহায়ক নকল হ্যান্ড স্যানিটাইজার তৈরী করছে এমন খবরে নগরীর দেওয়ানহাট এলাকার মধ্যম সুপারিপাড়ার এ আর চট্টলা কেমিক্যাল নামের প্রতিষ্ঠানে অভিযান চালিয়েছে জেলা প্রশাসনের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট। অভিযানে নকল হ্যান্ড স্যানিটাইজার তৈরির সত্যতা পাওয়া গেলে ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালনা করে প্রতিষ্ঠানটি সিলগালা করে বন্ধ করে দেয়া হয় এবং প্রায় ২০ লাখ টাকার হ্যান্ড স্যানিটাইজার তৈরির নানা রকম সরঞ্জাম জব্দ করে ধ্বংস করেন নির্বাহী মাজিস্ট্রেট। এছাড়াও প্রতিষ্ঠানটির মালিক রাশেদকে নকল ও ত্বকের ক্ষতিকারক হ্যান্ড স্যানিটাইজার তৈরীর অপরাধে ৬ মাসের কারাদণ্ড ও ৫০ হাজার টাকা জরিমানা করেন ম্যাজিস্ট্রেট ম্যাজিস্ট্রেট ওমর ফারুক। ২৯ জুন ২০২০ সোমবার দুপুর ১২টা থেকে বিকাল ৪টা পর্যন্ত সাধারণ মানুষের কাছ থেকে অভিযোগ পেয়ে কোনো ধরণের সাইনবোর্ড বিহীন এ প্রতিষ্ঠানে অভিযান পরিচালনা করা হয়। এসময় ওষুধ প্রশাসনের সহকারী পরিচালক হোসাইন মোহাম্মদও উপস্থিত ছিলেন। প্রশাসন সূত্রে জানা যায়, এ আর চট্টলা কেমিক্যাল নামের প্রতিষ্ঠানটি বিভিন্ন সুরক্ষা সামগ্রী বানানোর প্রায় শ’খানেক ক্ষতিকর কেমিক্যাল ড্রামে করে মজুদ করেন। মজুদকৃত এসব ড্রাম থেকেই কারখানার মালিক মো. রাশেদ নিজ হাতে কোনো ধরণের ক্যামিস্ট ও ল্যাব ছাড়া কেমিক্যাল মিশ্রণ করে বোতলজাত করে মোড়কের মাধ্যমে তার কোম্পানির লেভেল লাগিয়ে চট্টগ্রামসহ দেশের বিভিন্ন জায়গায় বাজারকাত করে আসছিল। ম্যাজিস্ট্রেট ওমর ফারুক বলেন, এ আর চট্টলা কেমিক্যাল নামক প্রতিষ্ঠানটি দীর্ঘদিন ধরে বিভিন্ন নামীদামী ব্র্যান্ড এর হ্যাক্সিসল নকল করে বানাচ্ছিলো। বিষয়টি জানতে পোরে ছদ্মবেশে এলাকার মানুষের কাছে খোঁজ নিয়ে প্রতিষ্ঠানটির খোজ মিলে। প্রতিষ্ঠানে গিয়ে দেখা যায়, বাজারে সয়লাব করা নকল হ্যান্ড সানিটাইজারের মূল কারখানা এটি। এখানে প্রতিষ্ঠানটির নেই কোন সাইনবোর্ড। গলির ভিতর বড় একটি টিনশেডের বদ্ধঘরে সকল প্রকার মালামাল একত্রে রেখে নিজেদের তৈরি স্যানিটাইজার, স্যাভলন, হারপিকসহ বিভিন্ন সুরক্ষা সামগ্রী বোতলজাত করে বাজারজাত করে আসছেন। যেগুলো মানুষের ত্বকে ক্যান্সার সৃষ্টিতে সহায়ক।

মন্তব্য করুন

Please Login to comment
avatar
  Subscribe  
Notify of