ব্রেকিং নিউজ

আপডেট ৩৪ সেকেন্ড

ঢাকা শনিবার, ৮ আগস্ট, ২০২০, ২৪ শ্রাবণ, ১৪২৭, বর্ষাকাল, ১৮ জিলহজ, ১৪৪১

বিজ্ঞাপন

দামুড়হুদায় বজ্রপাত থেকে রক্ষাপেতে লাগানো হচ্ছে তালগাছ: নির্মান করা হয়েছে বজ্র সেন্টার

হাবিবুর রহমান, চুয়াডাঙ্গা প্রতিনিধি

নিরাপদ নিউজ

বজ্রপাত থেকে রক্ষাপেতে চুয়াডাঙ্গার দামুড়হুদা উপজেলার বিভিন্ন গ্রামের মাঠের সড়কের ধারে লাগানো হচ্ছে তালগাছের চারা।মাঠের ভিতরে নির্মান করা হচ্ছে বজ্র সেন্টার।ইতিমধ্যে দামুড়হুদার উপজেলার বিভিন্ন ইউনিয়নের মাঠের রাস্তার ধারে প্রায় ১১শ’চারা লাগানো হয়েছে। নির্মান করা হয়েছে ৫টি বজ্র সেন্টার। বাংলাদেশে সাম্প্রতিক সময়ে বজ্রপাতের সংখ্যা বেড়ে যাওয়ায় ব্যাপক প্রাণহানি ঘটছে। প্রানহানি থেকে রক্ষা পেতে বহুগুনে গুনান্নিত এই তালগাছ লাগানো হচ্ছে ও গড়ে তোলা হচ্ছে বজ্র সেন্টার। প্রাণহানি ও সম্পদহানি কমাবে তা নয় অর্থনৈতিকভাবে লাভজনক তালগাছ।
দামুড়হুদা উপজেলা কৃষি অফিসার মনিরুজামান জানান, সাধারনত উচু গাছে বজ্রপাতের ঘটনা ঘটে থাকে। তালগাছ, নারিকেল গাছ,সুপারি গাছে বেশি বজ্রপাত ঘটে থাকে। বজ্রপাতে বেশিরভাগ মাঠে থাকা কৃষক মারা যায়। কৃষকদের প্রানহানি থেকে রক্ষাপেতে চলতি মরসুমে উপজেলা পরিষদ চত্বর, পুড়াপাড়া, জয়রামপুর ও হৈবতপুর মাঠের রাস্তায় ১১শ’তালগাছের চারা লাগানো হয়েছে।

বিজ্ঞাপন

আগামি মরসুমের জন্য তালের আটি সংগ্রহ করে চারা তৈরির কাজ ও চলছে। শুধু তাই নয় বজ্রপাতের সময় আশ্রয় নেওয়ার জন্য দামুড়হুদার গোবিন্দহুদা, নতিপোতা, কুড়ালগাছি, পারকৃষ্নপুর-মদনা, হাউলি ইউনিয়নের মাঠে বজ্র সেন্টার নির্মান করা হয়েছে। সেখানে বজ্রপাতের সময় করনিয় কি তার দিক নির্দশনা দিয়ে সাইনবোর্ড লাগানো হয়েছে ঐ সেন্টারে। এছাড়াও তালগাছের শিকড় ভেজস ঔষধ হিসাবে ভালো কাজে আসে। এই গাছ থেকে অর্থনৈতিকভাবে লাভবান হওয়া যায়। গাছ থেকে তালের শাষ,পাকাতালের বড়া, তাল মিশ্রি পাওয়া যায়। এতে রয়েছে প্রচুর ভিটামিন। এই গাছ প্রকৃতিক বৈচিত্র বাবুই পাখির আবাসস্থল। গছের পাতায় হাতপাখা তৈরী করা হয়ে থাকে। গাছদিয়ে মাছধরা বা পানিতে ব্যবহারের ডিঙ্গি, ঘরের সিলিং এর কাজ করা হয়ে থাকে। শুধু তাই নয় এই গাছের শিকড় গুচ্ছ হওয়ায় সড়ক, নদীরপাড় সংরক্ষন করে। সুমুদ্র পাড়ের মাছের ঘের ও ভাঙ্গন থেকে রক্ষা করে। কৃষক দেরকে ও আমরা তাদের তালগাছ লাগাতে উদ্বুদ্ধ করছি।

উল্লেখ্য বছর দুয়েক আগে তৎকালিন চুয়াডাঙ্গা জেলা প্রশাসক জিয়া উদ্দীন আহাম্মেদ নিদেশনায় জেলায় ৭লক্ষ তালের চারা লগিয়ে আলড়োন সৃষ্টি করেন।

Subscribe
Notify of
guest
0 Comments
Inline Feedbacks
View all comments
0
Would love your thoughts, please comment.x
()
x