ব্রেকিং নিউজ

আপডেট জুলাই ৭, ২০২০

ঢাকা মঙ্গলবার, ৭ জুলাই, ২০২০, ২৩ আষাঢ়, ১৪২৭ , বর্ষাকাল, ১৫ জিলক্বদ, ১৪৪১

রংপুরের পীরগাছায় গুপ্তধনের লোভে বোনকে হত্যা, ভাই গ্রেফতার

নিজস্ব প্রতিবেদক, রংপুর

নিরাপদ নিউজ

রংপুরের পীরগাছায় গুপ্তধন স্বর্ণেও কলসের লোভে আপন ছোট ভাই বড় বোনকে পানিতে চুবিয়ে হত্যা করেছে। নিখোঁজের ২০ ঘন্টা পর পুকুর থেকে উদ্ধার হওয়া ডিএমপি তুরাগ থানার এসআই ফজল মাহমুদের স্ত্রী আকলিমা বেগম (৩০) লাশ উদ্ধার করা হয়। গুপ্তধনের লোভে পুকুরের পানি চুবিয়ে তাকে হত্যা করেছে আপন ছোট ভাই শহিদুল ইসলাম।

রবিবার রাতে উপজেলার ইটাকুমারি গ্রাম থেকে শহিদুল ইসলামকে গ্রেফতারের পর স্বীকারোক্তিমুলক জবানবন্দিতে এ ধরনের  তথ্য দিয়েছেন ঘাতক । সে পীরগাছা উপজেলার তালুক ঈশাদ ডারারপাড় গ্রামের নুরুল ইসলামের ছেলে।

বিষয়টি নিশ্চিত করেছে পীরগাছা থানার ওসি (তদন্ত) ফেরদৌস ওয়াহিদ জানান, রবিবার রাতে পুলিশ উপজেলার ইটাকুমারি গ্রাম থেকে আকলিমা বেগমের ছোট ভাই শহিদুল ইসলামকে আটক করা হয়। পরে তাকে জিজ্ঞাসাবাদে সে বলে তাদের বাড়ি কাছে একটি বটগাছ রয়েছে সেখানে জিন থাকে। ওই জিন তার বোনকে স্বপ্নে বলে তোকে গুপ্তধন দেয়া হবে। বাড়ির পাশের পুকুরে স্বর্ণের কলসি রয়েছে। যা তাকে দেয়া হবে। বিষয়টি আকলিমা তার ছোট ভাই শহিদুল ইসলামকে জানায়। পরে শহিদুল ইসলামের ওই গুপ্তধনের লোভে নিজের বোনকে পুকুরের পানিতে চুবিয়ে মারে। গ্রেফতারের পর তাকে পীরগাছা আমলী আদালতে হাজির করা হলে সে বিচারকের সামনে স্বীকারোক্তি মুলক জবানবন্দি দেয়। পরে তাকে আদালতের মাধ্যমে কারাগারে প্রেরণ করা হয়েছে।

এর আগে নিখোঁজের ২০ ঘণ্টা পর গত বৃহস্পতিবার বিকেলে পীরগাছা উপজেলার তালুক ইসাদ ডারারপাড় গ্রামের বাড়ির পাশের পুকুর থেকে তার লাশ উদ্ধার করে পীরগাছা থানা পুলিশ।

Subscribe
Notify of
guest
0 Comments
Inline Feedbacks
View all comments
0
Would love your thoughts, please comment.x
()
x