ব্রেকিং নিউজ

আপডেট ৩৬ মিনিট ৬ সেকেন্ড

ঢাকা শনিবার, ৮ আগস্ট, ২০২০, ২৪ শ্রাবণ, ১৪২৭, বর্ষাকাল, ১৮ জিলহজ, ১৪৪১

বিজ্ঞাপন

কোভিড-১৯: মৃত্যুর মিছিলে যেসব দেশ

এস এম আজাদ হোসেন

নিরাপদ নিউজ

মহামারী করোনাভাইরাসের প্রাণঘাতি থাবায় তছনছ হয়ে গেছে পুরো বিশ্ব।প্রাণান্ত চেষ্টা করেও পুরোপুরি বাগে আনা যায়নি এর আগ্রাসন। গবেষকরা বলছেন করোনার প্রথম ধাক্কা এখনো শেষ হয়নি,পরবর্তী থাবা নাকি আরো ভয়ংকর হতে পারে।কারণ ভাইরাসটি ইতোমধ্যে রুপ বদল করেছে ঘন ঘন এবং নতুনরুপে ভয়ংকর হয়ে উঠছে। আক্রমনের প্রথমদিকে কিছু কমন উপসর্গ থাকলেও কিছু দিনের মধ্যে উপসর্গবিহীন আক্রান্ত রোগী এবং মৃত্যু বিশ্বস্বাস্থসংস্থাসহ পুরো বিশ্বকে ভাবিয়ে তুলেছে।বিশ্বের অনেক দেশ এই মহামারীর ভ্যাকসিন আবিষ্কারের উদ্যোগ নিলেও বস্তুত এখনো পর্যন্ত তা ট্রায়াল পর্যায়ে আছে।এদিকে বিশ্বের অর্থনীতি এক নাজুক অবস্থার মধ্যে নিপতিত হয়েছে।বেকার হয়েছে কোটি কোটি মানুষ।দারিদ্র্যসীমার নীচে নেমে গেছে প্রায় এক তৃতীয়াংশ জনগণ।

বিজ্ঞাপন

মহামারী করোনার থাবায় বিশ্বের ২১৩টি দেশ ও অঞ্চল আক্রান্ত হয়েছে।মৃত্যুর মিছিল বেড়েই চলেছে। বিশ্বখ্যাত জরিপ সংস্থা ওয়ার্ল্ডোমিটারের তথ্যানুযায়ী, বিশ্বে এখন পর্যন্ত (৭ জুলাই সকাল ১১টা) করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন ১ কোটি ১৭ লাখ ৪৬ হাজার ৮২৬ জন। এর মধ্যে গত ২৪ ঘণ্টায় আক্রান্ত ১ লাখ ৮৭ হাজার ৬১৩ জন। নতুন করে প্রাণ গেছে ৪ হাজার ২৪ জনের। এ নিয়ে করোনারায় মৃত্যু হয়েছে বিশ্বের ৫ লাখ ৪০ হাজার ৮১০ জন মানুষ।

আর ইতোমধ্যে সুস্থ হয়ে উঠেছেন ৬৭ লাখ ৪১ হাজার ৫৮৩ জন।গত ২৪ ঘন্টায় সুস্থ্য হয়েছেন ২ লাখ ৫ হাজার ৬৮১ জন।বিশ্বে বর্তমানে মধ্যম মানের আক্রান্ত ৪৪ লাখ ৬ হাজার ৫৪৮ জন এবং গুরুতর অসুস্থ্য ৫৭ হাজার ৮৮৫ জন।

করোনাভাইরাসের আক্রমণে মৃত্যুর মিছিলে বিশ্বের ২১৩ টি দেশ ও অঞ্চল যোগ হয়েছে।এরমধ্যে ভয়াবহ অবস্থায় আছে যুক্তরাষ্ট্র,ব্রাজিল,ভারত,রাশিয়া,যুক্তরাজ্য,স্পেন,ইতালী,ফ্রান্স, জার্মানি,ইরান,পাকিস্তান,মেক্সিকো,তুরস্কসহ আরও কয়েকটি দেশ।

একনজরে যদি আমরা করোনায় মৃত্যুর দিক দিয়ে প্রথম সারিতে কোন কোন দেশ আছে তা যদি দেখতে চাই তাহলে প্রথমেই উঠে আসবে যুক্তরাষ্ট্রের নাম। দেশটিতে এখন পর্যন্ত মৃত্যু হয়েছে ১ লাখ ৩২ হাজার ৯৭৯ জন।

দ্বিতীয় অবস্থানে ব্রাজিল। দেশটিতে এখন পর্যন্ত এ ভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে মারা গেছেন ৬৫ হাজার ৫৫৬ জন।

মৃতের সংখ্যায় তৃতীয় অবস্থানে যুক্তরাজ্য, দেশটিতে মারা গেছেন ৪৪ হাজার ৩৩৬ জন।

চতুর্থ অবস্থানে ইতালী।দেশটিতে এই ভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে এখন পর্যন্ত ৩৪ হাজার ৮৬৯ জনের মৃত্যু হয়েছে।

পঞ্চম অবস্থান মেক্সিকোতে মোট মৃত্যু ৩১ হাজার ১১৯ জনের।

করোনায় মৃত্যুতে এর পরেই আছে ইউরোপের দেশ ফ্রান্সে আক্রান্ত হয়ে মারা গেছেন ২৯ হাজার ৯২০ জন।

সপ্তম অবস্থানে স্পেন।স্পেনে আক্রান্ত হয়ে মৃত্যু ২৮ হাজার ৩৮৮ জনের।

৮ম অবস্থানে এশিয়ার দেশ ভারত।প্রতিবেশী দেশ ভারতে এখন পর্যন্ত মৃত্যু ২০ হাজার ১৭৪ জনের।

এশিয়ার আরেক দেশ ইরান আছে নবম স্থানে। ইরানে মোট মৃত্যু ১১ হাজার ৭৩১ জনের।

দক্ষিণ আমেরিকার আর এক দেশ পেরু আছে দশম অবস্থানে। পেরুতে মোট মৃত্যু ১০ হাজার ৭৭২ জন।

ইউরোপের দেশ রাশিয়া এগারতম অবস্থানে রয়েছে।রাশিয়ায় এখন পর্যন্ত মারা গেছেন ১০ হাজার ২৯৬ জন।

করোনায় মৃত্যুতে এর পরের অবস্থানগুলিতে যথাক্রমে বেলজিয়াম ৯৭৭৪ জন,জার্মানি ৯০৯২জন,কানাডা ৮৬৯৩ জন,চিলি ৬৩৮৪ জন,নেদারল্যান্ডস ৬১২৮ জন,সুইডেন ৫৪৩৩ জন,তুরস্ক ৫২৪১ জন,পাকিস্তান ৪৮৩৯ জন ও বিশতম স্থানে ইকুয়েডর ৪৮২১ জন।আর করোনার উৎপত্তি স্থল চীন রয়েছে ২১তম স্থানে।চীনে এ পর্যন্ত মৃত্যু ৪৬৩৪ জন।

সারকথা হলো- মহামারী এই করোনা ভাইরাস শিগগিরই যাচ্ছে না। আরও বহু মানুষ এতে আক্রান্ত হবেন, মারাও যাবেন অনেকে। তবে মনে রাখতে হবে, আপনার হয়তো করোনা নিয়ে আগ্রহ কমে গেছে, কিন্তু আপনার ওপর করোনার আগ্রহ একদমই কমেনি।

লেখকঃ সাংবাদিক, সমাজকর্মী।

Subscribe
Notify of
guest
0 Comments
Inline Feedbacks
View all comments
0
Would love your thoughts, please comment.x
()
x