ব্রেকিং নিউজ

আপডেট জুলাই ১০, ২০২০

ঢাকা মঙ্গলবার, ৪ আগস্ট, ২০২০, ২০ শ্রাবণ, ১৪২৭, বর্ষাকাল, ১৩ জিলহজ, ১৪৪১

বিজ্ঞাপন

করোনা: বিশ্বে মোট আক্রান্ত ১কোটি ২৩লাখ ৮৯হাজার ৫৫৯জন, মৃত্যু ৫লাখ ৫৭হাজার ৪০৫জন

এস এম আজাদ হোসেন

নিরাপদ নিউজ

আজ শুক্রবার (১০ জুলাই) বাংলাদেশ সময় সকাল ১০টা পর্যন্ত বিশ্বখ্যাত জরিপ সংস্থা ওয়ার্ল্ডোমিটারের তথ্যানুযায়ী, বিশ্বে এখন পর্যন্ত করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন ১ কোটি ২৩ লাখ ৮৯ হাজার ৫৫৯ জন। এর মধ্যে গত ২৪ ঘণ্টায় আক্রান্ত ২ লাখ ২২ হাজার ৮৭১ জন। নতুন করে প্রাণ গেছে ৫ হাজার ৩৫৯ জনের। এ নিয়ে করোনারায় মৃত্যু হয়েছে বিশ্বের ৫ লাখ ৫৭ হাজার ৪০৫ জন মানুষ।

বিজ্ঞাপন

আর ইতোমধ্যে সুস্থ হয়ে উঠেছেন ৭১ লাখ ৮৭ হাজার ৪৪৭ জন।গত ২৪ ঘন্টায় সুস্থ্য হয়েছেন ১ লাখ ২২ হাজার ৬৭৫ জন।বিশ্বে বর্তমানে মধ্যম মানের আক্রান্ত ৪৫ লাখ ৮৬ হাজার ২৫১ জন এবং গুরুতর অসুস্থ্য ৫৮ হাজার ৪৫৬ জন।

যুক্তরাষ্ট্রে করোনায় আক্রান্তের সংখ্যা বিশ্বে এখন পর্যন্ত সর্বোচ্চ ৩২ লাখ ১৯ হাজার ৯৯৯ জন।সবচেয়ে বেশি মৃত্যুও হয়েছে যুক্তরাষ্ট্রে ১ লাখ ৩৫ হাজার ৮২২ জন। আক্রান্তের মতো সুস্থ হওয়ার দিক থেকেও সবার শীর্ষে যুক্তরাষ্ট্র। দেশটিতে এ পর্যন্ত অন্তত ১৪ লাখ ২৬ হাজার ৪২৮ জন করোনা রোগী সুস্থ হয়ে হাসপাতাল ছেড়েছেন।

আক্রান্তের ও মৃতের সংখ্যায় যুক্তরাষ্ট্রের পরেই উঠে এসেছে ব্রাজিল। দেশটিতে এখন পর্যন্ত এ ভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন ১৭ লাখ ৫৯ হাজার ১০৩ জন আর আক্রান্ত হয়ে মারা গেছেন ৬৯ হাজার ২৫৪ জন। এখন পর্যন্ত ব্রাজিলে ১১ লাখ ৫২ হাজার ৪৬৭ জন সুস্থ হয়েছেন।
প্রতিবেশী দেশ ভারত আক্রান্তের সংখ্যায় উঠে এসেছে ৩ নম্বরে। মোট আক্রান্তের সংখ্যা ৭ লাখ ৯৪ হাজার ৮৪২ জন, আর এখন পর্যন্ত মৃত্যু ২১ হাজার ৬২৩ জনের।ভারতে সুস্থ হয়েছেন ৪ লাখ ৯৫ হাজার ৯৬০ জন।

আক্রান্তে চতুর্থ অবস্থানে রাশিয়ায় এখন পর্যন্ত আক্রান্ত হয়েছেন ৭ লাখ ৭ হাজার ৩০১ জন। আর মারা গেছেন ১০ হাজার ৮৪৩ জন।অপরদিকে সুস্থ হয়েছেন ৪ লাখ ৮১ হাজার ৩১৬ জন।
পেরুতে মোট আক্রান্ত ৩ লাখ ১৬ হাজার ৪৪৮ জন, মোট মৃত্যু ১১ হাজার ৩১৪ জন আর সুস্থ্য হয়েছেন ২ লাখ ৭ হাজার ৮০২ জন।

চিলিতে মোট আক্রান্ত ৩ লাখ ৬ হাজার ২১৬ জন।মোট মৃত্যু ৬ হাজার ৬৮২ জনের এবং সুস্থ্য হয়েছেন ২ লাখ ৭৪ হাজার ৯২২ জন।

স্পেনে আক্রান্ত ৩ লাখ ১৩৬ জন, মৃত্যু ২৮ হাজার ৪০১ জন আর সেরে উঠেছে ১ লাখ ৯৬ হাজার ৯৫৮ জন।

এর পরের অবস্থানে যুক্তরাজ্য, এখন পর্যন্ত আক্রান্ত হয়েছেন ২ লাখ ৮৭ হাজার ৬২১ জন। মৃতের সংখ্যায় তৃতীয় দেশটিতে মারা গেছেন ৪৪ হাজার ৬০২ জন।

মেক্সিকোতে মোট আক্রান্ত ২ লাখ ৮২ হাজার ২৮৩ জন।মোট মৃত্যু ৩৩ হাজার ৫২৬ জনের এবং সুস্থ্য হয়েছেন ১ লাখ ৭২ হাজার ২৩০ জন।

ইরানে মোট আক্রান্ত ২ লাখ ৫০ হাজার ৪৫৮ জন।মোট মৃত্যু ১২ হাজার ৩০৫ জনের এবং সুস্থ্য হয়েছেন ২ লাখ ১২ হাজার ১৭৬ জন।

ইতালিতে মোট আক্রান্তের সংখ্যা ২ লাখ ৪২ হাজার ৩৬৩ জন।দেশটিতে এই ভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে এখন পর্যন্ত ৩৪ হাজার ৯২৬ জনের মৃত্যু হয়েছে।আর ইতিমধ্যে ইতালিতে সুস্থ হয়েছেন ১ লাখ ৯৩ হাজার ৯৭৮ জন।

পাকিস্তানে মোট আক্রান্ত ২ লাখ ৪০ হাজার ৮৪৮ জন।মোট মৃত্যু ৪ হাজার ৯৮৩ জনের এবং সুস্থ্য হয়েছেন ১ লাখ ৪৫ হাজার ৩১১ জন।
সাউথ আফ্রিকায় মোট আক্রান্ত ২ লাখ ৩৮ হাজার ৩৩৯ জন। মারা গেছেন ৩ হাজার ৭২০ জন এবং সুস্থ্য হয়েছেন ১ লাখ ১৩ হাজার ৬১ জন।

সৌদিআরবে মোট আক্রান্ত ২ লাখ ২৩ হাজার ৩২৭ জন।মোট মৃত্যু ২ হাজার ১০০ জনের এবং সুস্থ্য হয়েছেন ১ লাখ ৬১ হাজার ৯৬ জন।

তুরস্কে মোট আক্রান্ত ২ লাখ ৯ হাজার ৯৬২ জন।মোট মৃত্যু ৫ হাজার ৩০০ জনের এবং সুস্থ্য হয়েছেন ১ লাখ ৯০ হাজার ৩৯০ জন।

জার্মানিতে মোট আক্রান্ত ১ লাখ ৯৯ হাজার ১৯৮ জন।মোট মৃত্যু ৯ হাজার ১২৫ জনের এবং সুস্থ্য হয়েছেন ১ লাখ ৮৩ হাজার ৬০০ জন।
ফ্রান্সে মোট আক্রান্ত ১ লাখ ৭০ হাজার ৯৪ জন। মারা গেছেন ২৯ হাজার ৯৭৯ জন এবং সুস্থ্য হয়েছেন ৭৮ হাজার ১৭০ জন।

এদিকে কোভিড-১৯ আক্রান্ত হয়ে বাংলাদেশে গত ২৪ ঘণ্টায় আরও ৪১ জনের মৃত্যু হয়েছে। এ নিয়ে ভাইরাসটিতে মোট দুই হাজার ২শ৩৮ জন মারা গেলেন।

বৃহস্পতিবার (০৯জুলাই) দুপুরে স্বাস্থ্য অধিদফতরের করোনাভাইরাস বিষয়ক নিয়মিত হেলথ বুলেটিনে এ তথ্য জানানো হয়। বুলেটিন উপস্থাপন করেন অধিদফতরের অতিরিক্ত মহাপরিচালক অধ্যাপক ডা. নাসিমা সুলতানা।

একই সময় নতুন করে শনাক্ত হয়েছে তিন হাজার তিনশ ৬০জন। এ নিয়ে দেশে মোট করোনা আক্রান্ত রোগীর সংখ্যা দাঁড়ালো ১ লাখ ৭৫ হাজার ৪শ ৯৪ জনে। এছাড়া আক্রান্তদের মধ্যে নতুন করে সুস্থ হয়েছেন তিন হাজার ৭শ ৬ জন। এ নিয়ে মোট সুস্থ হলো ৮৪ হাজার ৫শ ৪৪ জন।

নাসিমা সুলতানা জানান, সারাদেশে ৭৬টি ল্যাবে গত ২৪ ঘণ্টায় নমুনা সংগ্রহ করা হয়েছে ১৫ হাজার ৮শ ৬২টি। মোট নমুনা পরীক্ষা করা হয়েছে ১৫ হাজার ৬শ ৩২টি। এ পর্যন্ত নমুনা পরীক্ষা হয়েছে নয় লাখ চার হাজার ৭শ৮৪টি।

তিনি জানান, ২৪ ঘণ্টায় মৃত্যু ৪১ জনের মধ্যে ২৯ জন পুরুষ ও নারী ১২ জন। এদের মধ্যে রয়েছেন ঢাকা বিভাগে ১২ জন, চট্টগ্রাম বিভাগে ১৪ জন, রাজশাহী, ময়মনসিংহ ও সিলেট বিভাগে দুই জন করে ছয় জন, খুলনা বিভাগে ছয় জন, রংপুর বিভাগে তিন জন। এদের মধ্যে হাসপাতালে মারা গেছেন ৩৮ জন, বাসায় মারা গেছেন তিন জন।

মৃত্যুদের বয়স বিশ্লেষণে দেখা যায়, ৮১-৯০ বছরের মধ্যে দুই জন, ৭১ -৮০ বছরের মধ্যে নয় জন, ৬১-৭০ বছরের মধ্যে ২২ জন, ৫১-৬০ বছরের মধ্যে ১১ জন, ৪১ – ৫০ বছরের মধ্যে তিন জন, ৩১-৪০ বছরের মধ্যে দুই জন, ১১ – ২০ বছরের মধ্যে এক জন ও ০-১০ বছরের মধ্যে একজন।

নাসিমা জানান, গত ২৪ ঘণ্টায় আইসোলেশনে এসেছেন ৮শ ৭৯ জন ও আইসোলেশন থেকে ছাড় পেয়েছেন ৬শ ৬৮ জন। এ পর্যন্ত আইসোলেশনে এসেছেন ৩৪ হাজার ২২ জন। বর্তমানে আইসোলেশনে আছেন ১৭ হাজার ৬৭ জন।

Subscribe
Notify of
guest
0 Comments
Inline Feedbacks
View all comments
0
Would love your thoughts, please comment.x
()
x