ব্রেকিং নিউজ

আপডেট জুলাই ১১, ২০২০

ঢাকা রবিবার, ১৬ আগস্ট, ২০২০, ১ ভাদ্র, ১৪২৭, শরৎকাল, ২৫ জিলহজ, ১৪৪১

বিজ্ঞাপন

কোভিড ১৯: বিশ্বে গত ২৪ঘন্টায় আক্রান্ত ২লাখ ৪১হাজার ৩১৩জন, মোট আক্রান্ত ১কোটি ২৬লাখ ৩০হাজার ৮৭২জন

এস এম আজাদ হোসেন

নিরাপদ নিউজ

কোভিড-১৯ আক্রান্তে গত ২৪ ঘন্টায় যুক্তরাজ্যকে ছাড়িয়েছে মেক্সিকো,এদিকে পাকিস্তানকে ছাড়ালো সাউথ আফ্রিকা এবং পাকিস্তান ছাড়িয়েছে ইতালীকে। আর বাংলাদেশ দু’দিন আগেই ছাড়িয়েছে ফ্রান্সকে। আজ শনিবার (১১ জুলাই) বাংলাদেশ সময় সকাল ১০টা পর্যন্ত বিশ্বখ্যাত জরিপ সংস্থা ওয়ার্ল্ডোমিটারের তথ্যানুযায়ী, বিশ্বে এখন পর্যন্ত করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন ১ কোটি ২৬ লাখ ৩০ হাজার ৮৭২ জন। এর মধ্যে গত ২৪ ঘণ্টায় আক্রান্ত ২ লাখ ৪১ হাজার ৩১৩ জন। নতুন করে প্রাণ গেছে ৫ হাজার ৪৮৩ জনের। এ নিয়ে করোনারায় মৃত্যু হয়েছে বিশ্বের ৫ লাখ ৬২ হাজার ৮৮৮ জন মানুষ।
আর ইতোমধ্যে সুস্থ হয়ে উঠেছেন ৭৩ লাখ ৬৬ হাজার ৪৮৮ জন।গত ২৪ ঘন্টায় সুস্থ্য হয়েছেন ১ লাখ ৭৯ হাজার ৪১ জন।বিশ্বে বর্তমানে মধ্যম মানের আক্রান্ত ৪৬ লাখ ৪২ হাজার ৮০০ জন এবং গুরুতর অসুস্থ্য ৫৮ হাজার ৬৯৬ জন।

বিজ্ঞাপন

যুক্তরাষ্ট্রে করোনায় আক্রান্তের সংখ্যা বিশ্বে এখন পর্যন্ত সর্বোচ্চ ৩২ লাখ ৯১ হাজার ৭৮৬ জন।সবচেয়ে বেশি মৃত্যুও হয়েছে যুক্তরাষ্ট্রে ১ লাখ ৩৬ হাজার ৬৭১ জন। আক্রান্তের মতো সুস্থ হওয়ার দিক থেকেও সবার শীর্ষে যুক্তরাষ্ট্র। দেশটিতে এ পর্যন্ত অন্তত ১৪ লাখ ৬০ হাজার ৪৯৫ জন করোনা রোগী সুস্থ হয়ে হাসপাতাল ছেড়েছেন।

আক্রান্তের ও মৃতের সংখ্যায় যুক্তরাষ্ট্রের পরেই উঠে এসেছে ব্রাজিল। দেশটিতে এখন পর্যন্ত এ ভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন ১৮ লাখ ৪ হাজার ৩৩৮ জন আর আক্রান্ত হয়ে মারা গেছেন ৭০ হাজার ৫২৪ জন। এখন পর্যন্ত ব্রাজিলে ১২ লাখ ১৩ হাজার ৫১২ জন সুস্থ হয়েছেন।
প্রতিবেশী দেশ ভারত আক্রান্তের সংখ্যায় উঠে এসেছে ৩ নম্বরে। মোট আক্রান্তের সংখ্যা ৮ লাখ ২২ হাজার ৬০৩ জন, আর এখন পর্যন্ত মৃত্যু ২২ হাজার ১৪৪ জনের।ভারতে সুস্থ হয়েছেন ৫ লাখ ১৬ হাজার ২০৬ জন।

আক্রান্তে চতুর্থ অবস্থানে রাশিয়ায় এখন পর্যন্ত আক্রান্ত হয়েছেন ৭ লাখ ১৩ হাজার ৯৩৬ জন। আর মারা গেছেন ১১ হাজার ১৭ জন।অপরদিকে সুস্থ হয়েছেন ৪ লাখ ৮৯ হাজার ৬৮ জন।
পেরুতে মোট আক্রান্ত ৩ লাখ ১৯ হাজার ৬৪৬ জন, মোট মৃত্যু ১১ হাজার ৫০০ জন আর সুস্থ্য হয়েছেন ২ লাখ ১০ হাজার ৬৩৮ জন।

চিলিতে মোট আক্রান্ত ৩ লাখ ৯ হাজার ২৭৪ জন।মোট মৃত্যু ৬ হাজার ৭৮১ জনের এবং সুস্থ্য হয়েছেন ২ লাখ ৭৮ হাজার ৫৩ জন।

স্পেনে আক্রান্ত ৩ লাখ ৯৮৮ জন, মৃত্যু ২৮ হাজার ৪০৩ জন আর সেরে উঠেছে ১ লাখ ৯৬ হাজার ৯৫৮ জন।
মেক্সিকোতে মোট আক্রান্ত ২ লাখ ৮৯ হাজার ১৭৪ জন।মোট মৃত্যু ৩৪ হাজার ১৯১ জনের এবং সুস্থ্য হয়েছেন ১ লাখ ৭৭ হাজার ৯৭ জন।

এর পরের অবস্থানে যুক্তরাজ্য, এখন পর্যন্ত আক্রান্ত হয়েছেন ২ লাখ ৮৮ হাজার ১৩৩ জন। মৃতের সংখ্যায় তৃতীয় দেশটিতে মারা গেছেন ৪৪ হাজার ৬৫০ জন।

ইরানে মোট আক্রান্ত ২ লাখ ৫২ হাজার ৭২০ জন।মোট মৃত্যু ১২ হাজার ৪৪৭ জনের এবং সুস্থ্য হয়েছেন ২ লাখ ১৫ হাজার ১৫ জন।
সাউথ আফ্রিকায় মোট আক্রান্ত ২ লাখ ৫০ হাজার ৬৮৭ জন। মারা গেছেন ৩ হাজার ৮৬০ জন এবং সুস্থ্য হয়েছেন ১ লাখ ১৮ হাজার ২৩২ জন।
পাকিস্তানে মোট আক্রান্ত ২ লাখ ৪৬ হাজার ৩৫১ জন।মোট মৃত্যু ৫ হাজার ১২৩ জনের এবং সুস্থ্য হয়েছেন ১ লাখ ৫৩ হাজার ১৩৪ জন।

ইতালিতে মোট আক্রান্তের সংখ্যা ২ লাখ ৪২ হাজার ৬৩৯ জন।দেশটিতে এই ভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে এখন পর্যন্ত ৩৪ হাজার ৯৪৮ জনের মৃত্যু হয়েছে।আর ইতিমধ্যে ইতালিতে সুস্থ হয়েছেন ১ লাখ ৯৪ হাজার ২৭৩ জন।

সৌদিআরবে মোট আক্রান্ত ২ লাখ ২৬ হাজার ৪৮৬ জন।মোট মৃত্যু ২ হাজার ১৫১ জনের এবং সুস্থ্য হয়েছেন ১ লাখ ৬৩ হাজার ২৬ জন।

তুরস্কে মোট আক্রান্ত ২ লাখ ১০ হাজার ৯৬৫ জন।মোট মৃত্যু ৫ হাজার ৩২৩ জনের এবং সুস্থ্য হয়েছেন ১ লাখ ৯১ হাজার ৮৮৩ জন।

জার্মানিতে মোট আক্রান্ত ১ লাখ ৯৯ হাজার ৫৮৮ জন।মোট মৃত্যু ৯ হাজার ১৩০ জনের এবং সুস্থ্য হয়েছেন ১ লাখ ৮৪ হাজার ৫০০ জন।
ফ্রান্সে মোট আক্রান্ত ১ লাখ ৭০ হাজার ৭৫২ জন। মারা গেছেন ৩০ হাজার ৪ জন এবং সুস্থ্য হয়েছেন ৭৮ হাজার ৩৮৮ জন।

এদিকে দেশে করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে গত ২৪ ঘণ্টায় ৩৭ জনের মৃত্যু হয়েছে। এ নিয়ে ভাইরাসটিতে মৃতের সংখ্যা বেড়ে দাঁড়াল দুই হাজার ২৭৫ জন। একই সময়ে আক্রান্ত হিসেবে শনাক্ত হয়েছেন আরও দুই হাজার ৯৪৯ জন। ফলে মোট শনাক্ত রোগীর সংখ্যা দাঁড়াল এক লাখ ৭৮ হাজার ৪৪৩ জনে।

শুক্রবার দুপুরে করোনা ভাইরাস সংক্রান্ত নিয়মিত অনলাইন স্বাস্থ্য বুলেটিনে এ তথ্য জানান স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের অতিরিক্ত মহাপরিচালক (মহাপরিচালকের দায়িত্বপ্রাপ্ত) অধ্যাপক ডা. নাসিমা সুলতানা।

দেশের মোট ৭৭টি ল্যাবে করোনা পরীক্ষার তথ্য তুলে ধরে তিনি জানান, আজ সকাল ৮টা পর্যন্ত ২৪ ঘণ্টায় নমুনা সংগ্রহ হয়েছে ১৪ হাজার ৩৭৭ জনের। এর মধ্যে পরীক্ষা হয়েছে ১৩ হাজার ৪৮৮টি নমুনা। এ নিয়ে এখন পর্যন্ত মোট নমুনা পরীক্ষার সংখ্যা দাঁড়াল ৯ লাখ ১৮ হাজার ২৭২টি নমুনা।

তিনি আরো জানান, গত ২৪ ঘণ্টায় সুস্থ হয়েছেন আরো এক হাজার ৮৬২ জন। সবমিলিয়ে এ পর্যন্ত সুস্থ হয়েছেন ৮৬ হাজার ৪০৬ জন। শনাক্ত বিবেচনায় সুস্থতার হার ৪৮ দশমিক ৪২ শতাংশ।

গত ২৪ ঘণ্টায় শনাক্তের হার ২১ দশমিক ৮৬ শতাংশ, এ পর্যন্ত শনাক্তের হার ১৯ দশমিক ৪৩ শতাংশ। তবে শনাক্ত বিবেচনায় মৃত্যুর হার এক দশমিক ২৭ শতাংশ।

গত ২৪ ঘণ্টায় যারা মারা গেছেন তাদের বিশ্লেষণ তুলে ধরে নাসিমা সুলতানা বলেন, মৃত ৩৭ জনের মধ্যে ২৯ জন পুরুষ এবং ৮ জন নারী। এখন পর্যন্ত মারা যাওয়া ২ হাজার ২৭৫ জনের মধ্যে পুরুষ এক হাজার ৭৯৯ জন, যা শতকরা ৭৯ দশমিক ০৮ শতাংশ এবং নারী ৪৭৬ জন, শতকরা হিসাবে ২০ দশমিক ৯২ শতাংশ।

গেল ২৪ ঘণ্টায় মারা যাওয়াদের বয়স বিশ্লেষণে জানানো হয়, মারা যাওয়াদের মধ্যে ২১ থেকে ৩০ বছর বয়সসীমার একজন, ৩১ থেকে ৪০ বছরের একজন, ৪১ থেকে ৫০ বছরের সাতজন, ৫১ থেকে ৬০ বছরের মধ্যে নয়জন, ৬১ থেকে ৭০ বছরের মধ্যে ১৫ জন এবং ৭১ থেকে ৮০ বছর বয়সসীমার চারজন রয়েছেন।

মৃতদের মধ্যে ঢাকা বিভাগেরই বাসিন্দা রয়েছেন ১২ জন, চট্টগ্রামে ১৭ জন, রাজশাহী, রংপুর ও সিলেটে দুজন করে এবং বরিশাল ও ময়মনসিংহ বিভাগে একজন করে মৃত্যুবরণ করেছেন। এদের মধ্যে হাসপাতালে মৃত্যুবরণ করেছেন ২৩ জন এবং বাড়িতে থেকে ১৪ জন।

বরাবরের মতোই করোনাভাইরাস থেকে সুরক্ষিত থাকতে সবাইকে সাবান দিয়ে হাত ধোয়া, মুখে মাস্ক পরাসহ স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলার অনুরোধ জানান ডা. নাসিমা।

Subscribe
Notify of
guest
0 Comments
Inline Feedbacks
View all comments
0
Would love your thoughts, please comment.x
()
x