ব্রেকিং নিউজ

আপডেট ২৩ মিনিট ২৮ সেকেন্ড

ঢাকা শুক্রবার, ৪ ডিসেম্বর, ২০২০, ১৯ অগ্রহায়ণ, ১৪২৭, হেমন্তকাল, ১৮ রবিউস সানি, ১৪৪২

বিজ্ঞাপন

ঈদের অগ্রীম শুভেচ্ছা ও স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলার আহ্বান জানালেন ইলিয়াস কাঞ্চন (ভিডিও)

তানিয়া ইসলাম

নিরাপদ নিউজ

সামাজিক মাধ্যম ফেসবুক লাইভে এসে ঈদের অগ্রীম শুভেচ্ছা জানালেন নিরাপদ সড়ক চাই সংগঠনের প্রতিষ্ঠাতা ও চেয়ারম্যান চিত্রনায়ক ইলিয়াস কাঞ্চন। তিনি ঈদের শুভেচ্ছা জানানোর পাশাপাশি চলমান সড়ক দুর্ঘটনা এবং প্রাণঘাতী করোনাভাইরাস মোকাবিলায় সবাইকে আইন ও স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলার আহ্বান জানিয়েছেন। লাইভে এসে তিনি আরো বলেন, একদিকে সড়ক দুর্ঘটনায় মৃত্যুর মিছিল অন্যদিকে করোনা ভাইরাসে প্রতিদিন বাড়ছে মৃত্যুর সংখ্যা। করোনার কারণে গণপরিবহন বন্ধ থাকলেও ট্রাক/মিনি ট্রাকসহ যেসব যানবাহন চলাচল করার নির্দেশ ছিলো সেই সব গাড়িগুলোই কিন্তু দুর্ঘটনা ঘটিয়েছে্। দুর্ঘটনায় মৃত্যু কিছুতেই কমছেনা। সব মিলিয়ে বর্তমান পরিস্থিতি নিয়ে অনেকটা শঙ্কায় আছি। মহান আল্লাহ তায়ালা আমাদের সকলকে সড়ক দুর্ঘটনা ও করোনা থেকে মুক্তি দিন সেই কামনা করি। ইলিয়াস কাঞ্চন সকলের উদ্দেশ্যে আরো বলেন, সড়ক দুর্ঘটনারোধে সড়কের সকল নিয়ম মেনে পথ চলুন এবং করোনা ভাইরাস সংক্রমন প্রতিরোধে সকলে স্বাস্হ্য বিধি অনুযায়ী সামাজিক ও শারীরিক দূরত্ব মেনে চলুন।

বিজ্ঞাপন

ইলিয়াস কাঞ্চন সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের একটি বক্তব্যকে সামনে তুলে ধরে বলেন, সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের বলেছেন
এবারের ঈদযাত্রা অনেকের জন্য অন্তিম যাত্রার ঝুঁকি নিয়ে আসবে। সত্যিই কিন্তু তাই। বর্তমান সময়ে যে পসিস্থিতি দাড়িয়েছে এক দিকে করোনা অন্যদিকে সড়ক দুর্ঘটনা আমরা যদি এখনই সঠিকভাবে নিয়ম মেনে না চলি, স্বাস্থ্যবিধি প্রতিপালনের বিষয়টি সর্বোচ্চ গুরুত্ব না দেই ঈদযাত্রা অনেকের জন্য অন্তিম যাত্রার ঝুঁকি নিয়ে আসবে।

ইলিয়াস কাঞ্চন বলেন, আপনারা যারা এমন আছেন এবার ঈদে বাড়ি না গেলেই নয়। শুধু তারাই যাবার চেষ্টা করুন। আর যাদের ক্ষেত্রে হয়তো বা না গেলেও তেমন কোন ক্ষতি হবেনা। দয়াকরে তারা জীবনের ঝুঁকি নেবেন না। এবারের ঈদে যাত্রা করা থেকে বিরত থাকুন। দেশে সড়ক দুর্ঘটনা এবং করোনার পাশাপাশি সম্প্রতি দেখা দিয়েছে বন্যা। এই বন্যা নিয়েও তিনি কথা বলেন। বন্যায় দেশে সড়ক দুর্ঘটনা এবং করোনার পাশাপাশি সম্প্রতি দেখা দিয়েছে বন্যা। এই বন্যা নিয়েও তিনি কথা বলেন। বন্যায় পানিবন্দি হয়ে পড়েছে হাজার হাজার মানুষ। তীব্র পানির স্রোতে চরাঞ্চলের যোগাযোগ ব্যবস্থা প্রায় বিচ্ছিন্ন হয়ে গেছে। বন্যার পানিতে ডুবে গেছে কয়েক হাজার পরিবারের ঘরবাড়ি। গবাদিপশু থেকে শুরু করে অনেক কিছুই ভাসিয়ে নিয়ে গেছে বন্যা। বাড়িঘর তলিয়ে চরম বিপাকে পড়েছে বহু বানভাসি পরিবার। দেখা দিয়েছে খাবারের তীব্র হাহাকার। খাবার সংগ্রহ করতে না পারায় অনেক বানভাসি অসহায় পরিবার অনাহারে-অর্ধাহারে দিন কাটাচ্ছে। এসব অসহায় মানুষের পাশে সমাজের বিত্তবান মানুষগুলোকে দাড়ানোর আহবান জানান তিনি। ইলিয়াস কাঞ্চন বলেন, আমি নিজে ব্যক্তিগত ভাবে এবং আমার সংগঠনের নেতৃবৃন্দদের সহযোগিতায় সম্প্রতি ২২ জুলাই বগুুড়া ও সুনামগঞ্জে প্রায় ৬শতাধিক পরিবারের মাঝে খাদ্য সামগ্রী পাঠিয়েছি এবং আমার শাখা সংগঠনগুলোও এই কার্যক্রম অব্যহত রেখেছে। সেই সাথে ইলিয়াস কাঞ্চন বলেন করোনাকালে শুরু থেকে আমরা চেষ্টা করে যাচ্ছি স্বাস্থ্যবীধি মেনে সকলের পাশে দাড়াতে। ইলিয়াস কাঞ্চন বলেন এযাবৎ নিসচার পক্ষ্য থেকে সারাদেশে প্রায় ৩০লক্ষ টাকা এই করোনায় ক্ষতিগ্রস্তদের পাশে দাড়াতে ব্যায় করেছি এবং আমাদের এসব কার্যক্রম অব্যহত থাকবে। প্রায় প্রতিদিন আমার শাখা সংগঠন দেশের কোথাওনা কোথাও এই সেবা মুলক কাজ করে যাচ্ছে। ইলিয়াস কাঞ্চন তার সংগঠনরে সকল কর্মিবৃন্দদের ধন্যবাদ জানান। দেশের এই দুর্যোগকালিন সময়ে অসহায় মানুষদের পাশে দাড়ানোর জন্য।

লাইভ ভিডিওতে ইলিয়াস কাঞ্চন মোটরসাইকেল চালকদের উদ্দেশ্যে বলেন, আপনারা মোটরসাইকেলে যারা দুর্ঘটনায় মারা যাচ্ছেন তাদের বেশীরভাগ যুবক শ্রেনীর মানুষ। করোনা যুবকদের ক্ষতি করতে পারছেনা কারণ যুবকদের রোগপ্রতিরোধ ক্ষমতা বেশী একারণে তুলনামুলক ভাবে করোনায় বয়স্ক মানুষ বেশী মারা যাচ্ছে। কিন্তু দু:খের বিষয় সড়ক দুর্ঘটনা থেকে এই যুব সমাজকে বাঁচানো যাচ্ছেনা। তিনি সকল মোটরসাইকেল চালককে সতর্কতার সাথে এবং নিয়ম মেনে পথ চলার আহবান জানান।

পরিশেষ ইলিয়াস কাঞ্চন তার ভক্তসহ দেশবাসী সকলের প্রতি আহবান জানান একটি করে হলেও যেন সবাই গাছ লাগান। তিনি বলেন একদিন হয়তো আমি থাকবনা। আপনারা যারা আমাকে ভালোবাসেন অন্তত তারা আমাকে স্বরণ করে হলেও গাছ লাগান। যখন আমি থাকবনা তখন এই গাছ থাকবে। ইলিয়াস কাঞ্চন বলেন, বর্তমান সময় গাছ লাগানোর উপযুক্ত সময়। এ সময় আলো-বাতাস, বৃষ্টি পর্যাপ্ত থাকে বলে চারাও সঠিকভাবে বেড়ে ওঠে।

Posted by Ilias Kanchan on Wednesday, July 29, 2020

Subscribe
Notify of
guest
0 Comments
Inline Feedbacks
View all comments
0
Would love your thoughts, please comment.x
()
x