ব্রেকিং নিউজ

আপডেট ৩ সেকেন্ড

ঢাকা বৃহস্পতিবার, ১ অক্টোবর, ২০২০, ১৬ আশ্বিন, ১৪২৭, শরৎকাল, ১৩ সফর, ১৪৪২

বিজ্ঞাপন

বর্ণ-শিউলির ‘মুঝে হুয়া হ্যায় পেয়ার’

বিনোদন প্রতিবেদক

নিরাপদ নিউজ
দীর্ঘ চার বছর পর মুক্তি পেল দেশের তরুণ ও প্রতিশ্রুতিশীল সংগীত পরিচালক বর্ণ চক্রবর্তীর দ্বিতীয় হিন্দি গান ‘মুঝে হুয়া হ্যায় পেয়ার’। ভারতের পশ্চিমবঙ্গের শিল্পী শিউলি সমাদ্দারের কণ্ঠে বর্ণ চক্রবর্তীর লেখা এ গানটির মিউজিক ভিডিয়ো এখন হিউজ টিভির ইউটিউব চ্যানেলে। বর্ণ চক্রবর্তী ও শিউলি সমাদ্দার জুটি একসঙ্গে কাজ করেছেন। রবীন্দ্র সংগীত ‘পুরানো সেই দিনের কথা’ গানটি করেছেন তারা।
বিজ্ঞাপন

‘মুঝে হুয়া হ্যায় পেয়ার’ গানটির কথা ও সুর বর্ণ চক্রবর্তীর নিজেরই। গানের রেকর্ডিং ও মিউজিক ভিডিয়ো নির্মিত হয়েছে পশ্চিমবঙ্গের কলকাতায়। মিউজিক ভিডিয়ো নির্মাণও বর্ণ চক্রবর্তীর। ‘হিউজ স্টুডিয়োর’ ব্যানারে প্রকাশিত গানটির অনলাইন পার্টনার ইউটিউব ভিত্তিক দেশের জনপ্রিয় চ্যানেল ‘হিউজ টিভি’।

এর আগে ২০১৬ সালের নভেম্বরে ‘কুচ ইশ্ তারাহ’ শিরোনামে একটি গান লিখেন বর্ণ চক্রবর্তী। ওই গানের সার্বিক সংগীতায়োজনও তার নিজেরই। গানটিতে কণ্ঠ দিয়েছিলেন ভারতের আরেক তরুণ সঙ্গীত পরিচালক ও কণ্ঠশিল্পী প্রয়াগ জোশি।

‘মুঝে হুয়া হ্যায় পেয়ার’ গানটি সম্পর্কে কণ্ঠশিল্পী শিউলি সমাদ্দার বলেন, ‘বর্ণ চক্রবর্তীর সুরের ভক্ত আমি। তার কাজ আমার খুব ভালো লাগে। তার থেকেও বড় কথা আমরা বাঙালি। যুগে যুগে বাঙালিরা বাংলার পাশাপাশি হিন্দি গানে সফল হয়েছেন। আমরাও চেষ্টা করেছি একটা ভালো গান করার। আশা করি সবার খুব ভালো লাগবে।’

সংগীত পরিচালক বর্ণ চক্রবর্তী বলেন, ‘ছোটবেলা থেকেই বাংলা গানের পাশাপাশি হিন্দি গান শুনে বড় হয়েছি। তখনই ভাবতাম যদি একটা হিন্দি গান বানাতে পারতাম! সেই ইচ্ছা থেকেই আমার কথায় ‘কুচ ইস তারাহ’ শিরোনামের গানটি ভারতীয় শিল্পী প্রয়াগ জোশীকে দিয়ে গাওয়ানো হয়। গানটি বেশ প্রশংসিতও হয় দুই দেশে। তারপর দীর্ঘদিন পর আরেক ভারতীয় শিল্পীর কণ্ঠে এলো ‘মুঝে হুয়া হ্যায় পেয়্যার’। আশা করি গানটি সবার ভালো লাগবে।’

‘মুঝে হুয়া হ্যায় পেয়ার’ গানটি ‘হিউজ টিভি’র ইউটিউব চ্যানেল ছাড়াও আন্তর্জাতিকভাবে গান কেনাবেচার অনলাইন স্টোর অ্যামাজন মিউজিক, গুজল প্লে মিউজিক, স্পটিফাই ও আইটিউনস-এও পাওয়া যাবে।

এদিকে গেল ঈদুল আজহা উপলক্ষে ‘হিউজ টিভিতে’ মুক্তি পেয়েছে বর্ণ চক্রবর্তীর মিউজিক ভিডিয়ো ‘সময়গুলো’। চমৎকার এ গানটি লিখেছেন শিফফাত শাহরিয়ার। সুর, সংগীতায়োজন ও ভিডিয়ো নির্মাণ বর্ণ চক্রবর্তীর নিজেরই।

করোনা পরিস্থিতির মধ্যেই গত মে মাসে বর্ণ চক্রবর্তীর ‘ফিরে এসো’ শিরোনামে একটি মিউজিক ভিডিয়ো প্রকাশ হয়। গানটির শুটিং হয়েছে ভারতের পশ্চিমবঙ্গের মেদিনীপুরে। গত ৮ ফেব্রুয়ারি বর্ণ চক্রবর্তীর পঞ্চম নিবেদন ‘বর্ণ উইথ কালারস-৫’ শিরোনামের একটি মিক্স অ্যালবাম বাজারে আসে।

এর আগে, ২০১৬ সালে ‘বর্ণ উইথ কালারস ভলিউম-৪’ অ্যালবামটি প্রকাশিত হয়। হিউজ স্টুডিয়োর ব্যানারে ২০১২ সাল থেকে তরুণ তুর্কীদের নিয়ে গানের এ অডিয়ো-ভিডিয়ো সিরিজ ‘বর্ণ উইথ কালারস’ প্রকাশিত হয়ে আসছে।

গানের ভুবনে তরুণ তুর্কি বর্ণ চক্রবর্তী। তার বাবা-মা গানের মানুষ। তাই ছোটবেলা থেকে গানের ভেতরেই বেড়ে উঠা তার। চারুকলায় উচ্চতর ডিগ্রি নিয়েও তার পরিচিতি, তিনি গানের মানুষ। ২০১২ সাল থেকে নির্মাণ করে চলেছেন অসংখ্য মিউজিক ভিডিয়ো, নাটক, বিজ্ঞাপন ও প্রামাণ্যচিত্র।

বর্ণ চক্রবর্তী দেশের গুণী শিল্পী ফাহমিদা নবী, পারভেজ সাজ্জাদ, জয় শাহরিয়ার ও বেলাল খানের মতো জনপ্রিয় শিল্পীদের নিয়েও কাজ করেছেন। ‘রবীন্দ্র ফিউশন-১’ এবং ‘লালন ফিউশন-১’ শিরোনামে দুটি ভিন্নধর্মী কাজ করেছেন। একইভাবে ফিল্মি সিরিজের তিনটি অ্যালবামও করেছেন তিনি।

এছাড়া বিভিন্ন দিবসকে ঘিরে আয়োজন থাকে বর্ণ চক্রবর্তীর। বাবা-মা দিবস কিংবা প্রাণের পয়লা বৈশাখে থাকে ভিন্ন আয়োজন। যা শ্রোতাদের কাছে বেশ জনপ্রিয় হয়ে উঠেছে। সমাজের নানা অসঙ্গতি নিয়েও গান প্রকাশ করেন। হরতাল-অবরোধের ক্ষতিকর দিক নিয়ে ‘দেশ প্রেমিক’ এবং ‘সংখ্যালঘু’ শিরোনামের গান দুটি বেশ শ্রোতাপ্রিয়তা পেয়েছে।

Subscribe
Notify of
guest
0 Comments
Inline Feedbacks
View all comments
0
Would love your thoughts, please comment.x
()
x