ব্রেকিং নিউজ

আপডেট ৪ মিনিট ৫১ সেকেন্ড

ঢাকা বৃহস্পতিবার, ১ অক্টোবর, ২০২০, ১৬ আশ্বিন, ১৪২৭, শরৎকাল, ১৩ সফর, ১৪৪২

বিজ্ঞাপন

২শ কোটি টাকা ব্যয়ে দক্ষিণ চট্টগ্রামে ৫ সড়কের প্রশস্তকরণ কাজ করছে দোহাজারী সড়ক বিভাগ

শফিক আহমেদ সাজীব

নিরাপদ নিউজ

দক্ষিণ চট্টগ্রামের পটিয়া বোয়ালখালী ও চন্দনাইশে ২শ’ কোটি ব্যয়ে ৫টি সড়ক প্রশস্তকরণ কাজ চলছে। জেলা মহাসড়কসমূহ যথাযথ মান ও প্রশস্থতায় উন্নীতকরণ প্রকল্প (চট্টগ্রাম জোন) ২য় পর্যায়ের আওতায় এ ৫টি সড়ক প্রশস্তকরণের কাজ শুরু হয়েছে। এ কাজের বাস্তবায়ন করছে দোহাজারী সড়ক বিভাগ। এ কাজের আওতায় প্রতিটি সড়ক ১২ ফিট থেকে ১৮ফিটে উন্নীত করণ ও প্রশস্ততার কাজ চলছে।

বিজ্ঞাপন

সড়কগুলো হচ্ছে, পটিয়া-হাইদগাঁও সড়ক (জেড-১০৫৭)। এ সড়ক নির্মাণে ব্যয় হচ্ছে ১২ কোটি ৭২ লক্ষ ১৪ হাজার টাকা এবং ঠিকাদারী প্রতিষ্ঠান হিসেবে কাজ করছে হাসান টেকনো বিল্ডার্স লি: ও রানা বিল্ডার্স প্রা: লি:, সালেহ আহাম্মদ জেভি। হাসিমপুর রেল স্টেশন-বাগিচারহাট সড়ক (জেড১০৩৬), এ সড়কের ব্যয় হচ্ছে ২৯ কোটি ৯৬ লক্ষ ৯৮ হাজার টাকা এবং ঠিকাদারী প্রতিষ্ঠান হিসেবে কাজ করছে আল আমিন কনস্ট্রাকশন কোম্পানী লি:। পটিয়া-বোয়ালখালী-কানুনগোপাড়া সড়ক (জেড-১০৫৯), এ সড়কের ব্যয় হচ্ছে ৪৫ কোটি ৯ লক্ষ ১৭ হাজার টাকা এবং ঠিকাদারী প্রতিষ্ঠান হিসেবে কাজ করছে হাসান টেকনো বিল্ডার্স ও রানা বিল্ডার্স প্রা: লি:, সালেহ আহাম্মদ জেভি। মইজ্জ্যার টেক-বোয়ালখালী-কানুনগোপাড়া-উদরবন্যা সড়ক (জেড-১০৬৫), এ সড়কে ব্যয় হচ্ছে ৭৮ কোটি ৬৩ হাজার টাকা এবং নির্মাণকারী প্রতিষ্ঠান হিসেবে কাজ করছে হাসান টেকনো বিল্ডার্স লি: ও তাহের ব্রাদার্স লি:।

এছাড়া মইজ্জ্যারটেক-বিএফডিসি মৎস্য বন্দর ফেরীঘাট সড়ক (জেড-১৮০৪) এ সড়কের নির্মাণ ব্যয় হচ্ছে ৩৩ কোটি ৫৯ লক্ষ ৫৭ হাজার টাকা এবং নির্মাণকারী প্রতিষ্ঠান হিসেবে কাজ করছে হাসান টেকনো বিল্ডার্স লি: ও রানা বিল্ডার্স প্রা: লি:।

এ বিষয়ে জাতীয় সংসদের হুইপ সামশুল হক চৌধুরী এমপি বলেছেন, পটিয়ায় প্রতিটি সড়কের উন্নয়নে কাজ করা হচ্ছে। প্রধানমন্ত্রী ঘোষিত উন্নয়ন কর্মকাণ্ডের অংশ হিসেবে পটিয়ার যোগাযোগ ব্যবস্থায় আমূল পরিবর্তন সাধিত হচ্ছে। অল্পদিনের মধ্যে পটিয়া বিওসি রোড হয়ে পার্শ্ববর্তী রাঙ্গুনিয়ার সাথে সড়ক যোগাযোগ স্থাপন করা হবে। যার প্রস্তাব ইতিমধ্যে মন্ত্রণালয়ে পাঠানো হয়েছে। এ সড়ক নির্মাণ হলে পটিয়া রাঙ্গুনিয়া ও বান্দরবানের সাথে সড়ক যোগাযোগে এক সেতুবন্ধন রচিত হবে বলে তিনি জানান।

প্রশস্থকরণকৃত রাস্তাগুলোর মধ্যে পটিয়া-হাইদগাঁও সড়কের মোট দৈর্ঘ্য ৫.২০ কিলোমিটার এবং প্রস্থ ৫.৫০ কিলোমিটার। এর মধ্যে সড়ক প্রশস্থতকরণের কাজ ইতিমধ্যে ২.৮০ কিলোমিটার কাজ শেষ হয়েছে। মজবুতিকরণ কাজ হয়েছে ২.৩০ কিলোমিটার। বিটুমিনাস বাইন্ডার কোর্স ১৫শ’ মিটার, বিটুমিন ওয়ারিং কোর্স ১৫শ’ মিটার তৎমধ্যে ১.২০ কিলোমিটার সড়ক ৫.৫০ মিটার প্রশস্থ রয়েছে। অবশিষ্ট ৪ কিমি’র মধ্যে সিডিউলে ২.৮০ কিলোমিটার প্রশস্থ করণ কথা থাকলেও দোহাজারী সড়ক বিভাগ কর্তৃক ঠিকাদারের মাধ্যমে কাজের স্বার্থে ১.২০ কি.মি প্রশস্থকরণ কাজ করানো হয়েছে। এর মধ্যে ৪টি কালভার্টের কাজ শেষ হয়েছে।

হাসিমপুর রেলস্টেশন-বাগিচার হাট-বরমা সড়কে প্রশস্থকরণ ৩.৭০ মিটার হতে ৫.৫০ মি. এ উন্নীতকরণ। সড়কটির ১০ কি.মি পর্যন্ত প্রশস্থকরণ উন্নীতকরণ করা হয়েছে। এবং যার ৫ কি.মি. এর বিটুমিনাস কাজ ইতিমধ্যে সম্পন্ন হয়েছে। এর মধ্যে সড়কের মজবুতিকরণ সাড়ে ৯ কি. মি. প্রশস্থকরণ সাড়ে ৯ কি. মি, সার্ফেরিং বেইস কোর্স) সাড়ে ৯ কি.মি. আরসিসি বক্স কালভার্ট ২০ কিলোমিটার (৩টি), প্লেট প্যালাসাইডিং ২শ’ মিটার ও রিজিড পেভমেন্টের কাজ সম্পন্ন হয়েছে।

পটিয়া-বোয়ালখালী-কানুনগোপাড়া সড়কটি ১২ কি.মি. দৈর্ঘ্য। এর মধ্যে ৪টি কালভার্টের কাজ শেষ হয়েছে। প্রশস্থকরণ কাজ চলছে ১০ কি.মি.। প্যালাসাইডিং কাজ ২ হাজার মিটারের মধ্যে ১৬শ’ মিটারের কাজ শেষ হয়েছে। আরসিসি রিটেইনিং ওয়াল ৫শ’ মিটারের মধ্যে ২২০ কি. মিটার শেষ হয়েছে। রিজিড পেভমেন্ট ৫শ’ মিটারের মধ্যে ১৮০ মিটার এবং মজবুতিকরণ কাজ ৩ হাজার মিটার শেষ হয়েছে।

মইজ্জ্যারটেক-বোয়ালখালী-কানুনগোপাড়া উদরবন্যা সড়কটি মোট দৈর্ঘ্য ১৬ কি. মি.। এর মধ্যে মজবুতিকরণ কাজ হয়েছে ১২ কি. মি.। প্রশস্থকরণ ১৬ কি. মি. সম্পন্ন। সেতু ৩টির কাজ চলমান, প্যালাসাইডিং ২শ’ কি. মি. রিটেইনিং ওয়াল ১৫০ মিটার।

মইজ্জ্যারটেক-বিএফডিসি মৎস্য বন্দর ফেরীঘাট সড়কটির প্রশস্থকরণ কাজ ৪ কি. মিটার শেষ হয়েছে। বিটুমিনাস বেইস কোর্স ৩ কি. মি. সেতু ২টির কাজ চলমান ও প্যালাসাইডিং ৪শ’ মিটার কাজ সম্পন্ন হয়েছে।

দোহাজারী সড়ক বিভাগের নির্বাহী প্রকৌশলী সুমন সিংহ জানান, জেলা মহাসড়কসমূহ যথাযথ মান ও প্রশস্থতায় উন্নীতকরণ প্রকল্প (চট্টগ্রাম জোন) ২য় পর্যায়ের আওতায় ৫টি সড়ক প্রশস্থকরণের কাজ খুব দ্রুততার সাথে এগিয়ে চলছে। আশা করছি নিদিষ্ট সময়ের আগেই কাজ সমূহ সুষ্ঠুভাবে সম্পন্ন করণ সম্ভব হবে। এই সড়ক সমূহ ১২ ফুট হতে ১৮ ফুট প্রশস্থে উন্নীত হলে এ এলাকার যোগাযোগ ব্যবস্থার সামগ্রিক উন্নয়নে সামগ্রীকভাবে ইতিবাচক প্রভাব পড়বে ও স্বল্প সময়ের মধ্যে মানুষ নিরাপদে গন্তব্যস্থলে পৌঁছাতে পারবে।

এ প্রকল্পের মেয়াদকাল শুরু ২০১৮ সালের ৭ জানুয়ারি এবং মেয়াদকাল শেষ হওয়ার সময় চলতি ২০২০ সালের ৩১ ডিসেম্বর পর্যন্ত। আশাকরি মেয়াদপূর্তির মধ্যেই ৫টি সড়কের প্রশস্থকরণ কাজ শেষ করা হবে।

Subscribe
Notify of
guest
0 Comments
Inline Feedbacks
View all comments
0
Would love your thoughts, please comment.x
()
x