ব্রেকিং নিউজ

আপডেট ৩৬ মিনিট ৪৬ সেকেন্ড

ঢাকা মঙ্গলবার, ২৬ জানুয়ারি, ২০২১, ১২ মাঘ, ১৪২৭, শীতকাল, ১২ জমাদিউস সানি, ১৪৪২

বিজ্ঞাপন

বৃহত্তম রেল সেতুর কাজ শুরু: রেলের উন্নয়নে সমন্বিত উদ্যোগ প্রয়োজন

সম্পাদকীয়

নিরাপদ নিউজ

রেলওয়েকে নিয়ে অতীতে অনেক ষড়যন্ত্র হয়েছে। কোনো কোনো আন্তর্জাতিক অর্থলগ্নিকারী প্রতিষ্ঠানের প্রেসক্রিপশনে ‘অলাভজনক’ তকমা লাগিয়ে অনেক রেলপথ বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে। দীর্ঘদিন সংস্কার না করায় অনেক রেলপথ দিয়ে ট্রেন চলাচল প্রায় বন্ধ হয়ে গিয়েছিল। এমনকি শিল্প-কারখানা, খাদ্যগুদামের সঙ্গে থাকা রেলপথও তুলে নেওয়া হয়েছিল। রেল ওয়ার্কশপ, স্লিপার তৈরির কারখানাও বন্ধ হওয়ার উপক্রম হয়েছিল। ইঞ্জিন ও বগির অভাবে রেলের যাত্রী ও পণ্য পরিবহন সর্বনিম্ন পর্যায়ে নেমে গিয়েছিল।

বিজ্ঞাপন

রেলে শিডিউল বিপর্যয় চরমে উঠেছিল। বহু রেলস্টেশন বন্ধ করে দেওয়া হয়েছিল। ব্যাপক হারে ছাঁটাই করে রেলওয়ের লোকবল প্রায় অর্ধেকে নামিয়ে আনা হয়েছিল। আওয়ামী লীগের নেতৃত্বাধীন সরকার ক্ষমতায় আসার পর সেই রেল খাতকে পুনর্জীবন দেওয়ার কাজ শুরু হয়। বন্ধ রেলপথগুলো চালু করার পাশাপাশি নতুন নতুন রেলপথ তৈরি করা হচ্ছে।

তারই ধারাবাহিকতায় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা গত রবিবার যমুনা নদীর ওপর ‘বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব রেলওয়ে সেতু’ নামে দেশের বৃহত্তম রেল সেতুর ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপন করেছেন। এ উপলক্ষে আয়োজিত অনুষ্ঠানে প্রধানমন্ত্রী বলেন, ‘সারা বাংলাদেশে আমরা রেলের নেটওয়ার্ক তৈরি করতে চাচ্ছি। একেবারে ঢাকা থেকে বরিশাল, পটুয়াখালী হয়ে পায়রা বন্দর পর্যন্ত রেললাইন নিয়ে যাব। তার সমীক্ষা শুরুর ব্যাপারে আমরা উদ্যোগ নিয়েছি। ঢাকা থেকে চট্টগ্রাম, সেখান থেকে কক্সবাজার ও টেকনাফ পর্যন্ত যাবে রেললাইন।’

সাশ্রয়ী ও পরিবেশবান্ধব গণপরিবহন হিসেবে রেলপথ সারা দুনিয়ায় সবচেয়ে জনপ্রিয়। অথচ আমরা দীর্ঘদিন ধরে চলেছিলাম উল্টোপথে। পরিকল্পিতভাবে রেলওয়েকে ধ্বংস করা হচ্ছিল। সেই সব দুঃখজনক স্মৃতি তুলে ধরে প্রধানমন্ত্রী বলেন, ‘রেলকে প্রায় গলা টিপে হত্যা করতে গিয়েছিল বিএনপি সরকার। আমরা ক্ষমতায় এসে তাকে জীবিত করেছি।

এখন রেলই মানুষের সব থেকে বড় ভরসা।’ উন্নত দেশগুলোর মতোই বাংলাদেশেও রেল খাতকে এগিয়ে নিতে হবে। এ জন্য সমন্বিত পরিকল্পনা নিয়ে এগোতে হবে। ট্রান্স এশিয়ান রেলওয়ের সঙ্গে যুক্ত হলে বাংলাদেশের অর্থনৈতিক উন্নয়ন অনেক দ্রুত হবে। আর সে ক্ষেত্রে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব রেলওয়ে সেতুটি গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখবে। নেপাল, ভুটান ও উত্তর-পূর্ব ভারতের পণ্য পরিবহন করে বাংলাদেশ অনেক লাভবান হবে। বর্তমান সরকার রেলওয়ে নেটওয়ার্ক সম্প্রসারণের যে উদ্যোগ নিয়েছে, আমরা মনে করি, জাতির পিতার স্বপ্নের বাংলাদেশ বিনির্মাণে এটি হবে একটি প্রধান পদক্ষেপ।

Subscribe
Notify of
guest
0 Comments
Inline Feedbacks
View all comments
0
Would love your thoughts, please comment.x
()
x