ব্রেকিং নিউজ

আপডেট ৩ মিনিট ১০ সেকেন্ড

ঢাকা বৃহস্পতিবার, ৬ মে, ২০২১, ২৩ বৈশাখ, ১৪২৮, গ্রীষ্মকাল, ২৩ রমজান, ১৪৪২

বিজ্ঞাপন

কাল থেকে চলবে পণ্যবাহী ৮টি বিশেষ ট্রেন: রেলপথ মন্ত্রী সুজন

নিজস্ব প্রতিবেদক

নিরাপদ নিউজ

করোনাকালীন সময়ে সব ধরনের পণ্যবাহী ট্রেন চলাচলের পাশাপাশি কৃষিজাত পণ্য ও পার্সেল মালামাল পরিবহনের সুবিধার্থে বাংলাদেশ রেলওয়ে বিভিন্ন রুটে ৮টি বিশেষ পার্সেল ট্রেন পরিচালনা করবে বলে জানিয়েছেন রেলপথ মন্ত্রী মো. নূরুল ইসলাম সুজন।

বিজ্ঞাপন

আজ মঙ্গলবার সকালের রেলভবনে এক ব্রিফিংয়ে তিনি এমন তথ্য জানান।

মন্ত্রী বলেন, করোনার মধ্যে জীবন এবং জীবিকা চালু রাখতে হবে। লকডাউনে কৃষক যাতে কৃষি পণ্য সহজে পরিবহন করতে পারে সে জন্য বাংলাদেশ রেলওয়ে বিশেষ পার্সেল ট্রেন চালানোর সিদ্ধান্ত নিয়েছে। রেলওয়ে অতীতে বিভিন্ন সময় ম্যাংগো স্পেশাল ট্রেন, ক্যাটল ট্রেনসহ পার্সেল ট্রেন পরিচালনা করেছে। রেলওয়ে বর্তমানে তেল, সারসহ অন্যান্য মালামাল পরিবহন করছে। কৃষিপণ্য পরিবহনের সুবিধার্থে আগামীকাল থেকেই ৮টি পার্সেল ট্রেন চলাচল করবে।

জানা যায়, (ঢাকা-সিলেট)-ঢাকা থেকে ছাড়বে বিকেল সাড়ে ৩টায় এবং সিলেট পৌঁছাবে রাত আড়াইটায়। (সিলেট-ঢাকা)- সিলেট থেকে ছাড়বে সকাল ৬টা ৪৫ মিনিটে এবং ঢাকা পৌঁছাবে সন্ধ্যা সাড়ে ৬টায়। (চট্টগ্রাম-সরিষাবাড়ী)- চট্টগ্রাম থেকে ছাড়বে বিকেল ৩টায় এবং সরিষাবাড়ী পৌঁছাবে ভোর সাড়ে ৪টায়। (সরিষাবাড়ী-চট্টগ্রাম)- সরিষাবাড়ী ছাড়বে ভোর সাড়ে ৫টায় এবং চট্টগ্রাম পৌঁছাবে সন্ধ্যা ৬টা ৪০ মিনিটে।

এ ছাড়া সপ্তাহে শনি, সোম, ও বুধবার (খুলনা-চিলাহাটি)- খুলনা ছাড়বে বিকেল সাড়ে ৩টায়, চিলাহাটি পৌঁছাবে রাত আড়াইটায়। সপ্তাহে রবি, মঙ্গল ও বৃহস্পতিবার ‘চিলাহাটি-খুলনা’ রুটে চিলাহাটি ছাড়বে বিকেল সাড়ে ৩টায়, খুলনা পৌছাবে রাত আড়াইটায়। সপ্তাহে শনিবার, সোমবার, বুধবার বীর মুক্তিযোদ্ধা সিরাজুল ইসলাম- ঢাকা রুটে একটি ট্রেন চলবে। বীর মুক্তিযোদ্ধা সিরাজুল ইসলাম স্টেশন ছাড়বে দুপুর একটায়, ঢাকা পৌঁছাবে ভোর ৩টায়। সপ্তাহে রবিবার, মঙ্গলবার, বৃহস্পতিবার ‘ঢাকা-বীর মুক্তিযোদ্ধা সিরাজুল ইসলাম’ রুটে একটি পার্সেল ট্রেন চলবে। ঢাকা ছাড়বে সকাল ৬টায়, বীর মুক্তিযোদ্ধা সিরাজুল ইসলাম স্টেশনে পৌঁছাবে রাত সাড়ে ৮টায়।

ঢাকা-চট্টগ্রাম, ঢাকা-সরিষাবাড়ী ও চট্টগ্রাম-সিলেটের মধ্যে পরিবাহিত পার্সেল মালামাল ভৈরববাজার ও আখাউড়া স্টেশনে ল্যাগেজ ভ্যান সংযোজন/বিয়োজনের মাধ্যমে গন্তব্যে প্রেরণ করা হবে। খুলনা-ঢাকা রুটের মালামাল পরিবাহিত লাগেজ ভ্যান ঈশ্বরদী স্টেশনে বিয়োজন করত বীর মুক্তিযোদ্ধা সিরাজুল ইসলাম-ঢাকা রুটে চলাচলকারী ট্রেনে সংযোজন/বিয়োজন করা হবে। বিশেষ পার্শ্বেল ট্রেনে কৃষিজাত পণ্য যেমন, শাক-সবজী, দেশীয় ফলমূলসহ অন্যান্য কৃষি পণ্য পরিবহনের ক্ষেত্রে মূল ভাড়ার উপর ২৫ শতাংশ রেয়তী ও অন্যান্য সকল প্রকার চার্জ রহিত থাকবে।

ব্রিফিংকালে রেলপথ মন্ত্রণালয়ের সচিব মো. সেলিম রেজা, বাংলাদেশ রেলওয়ের মহাপরিচালক ধীরেন্দ্রনাথ মজুমদার ও অতিরিক্ত মহাপরিচালক (পরিচালন) সরদার শাহাদত আলী উপস্থিত ছিলেন।

Subscribe
Notify of
guest
0 Comments
Inline Feedbacks
View all comments
0
Would love your thoughts, please comment.x
()
x