ব্রেকিং নিউজ

আপডেট অক্টোবর ৯, ২০২১

ঢাকা মঙ্গলবার, ১৯ অক্টোবর, ২০২১, ৩ কার্তিক, ১৪২৮, হেমন্তকাল, ১২ রবিউল আউয়াল, ১৪৪৩

বিজ্ঞাপন

ব্যালন ডি’ অরের সংক্ষিপ্ত তালিকা প্রকাশ

অনলাইন ডেস্ক

নিরাপদ নিউজ

ফ্রান্স ফুটবল ম্যাগাজিন ফুটবলবিশ্বের সবচেয়ে মর্যাদাপূর্ণ পুরস্কার ব্যালন ডি’ অরের সংক্ষিপ্ত তালিকা প্রকাশ করেছে। গতকাল শুক্রবার (৮ অক্টোবর) বাংলাদেশ সময় রাত সোয়া ১০টায় শুরু হয় তালিকা ঘোষণা। ফ্রান্সের এই সাময়িকী ৩০ জনের সংক্ষিপ্ত তালিকা প্রকাশ করেছে। আগামী ২৯ নভেম্বর প্যারিসে বিজয়ীর হাতে তুলে দেওয়া হবে এবারের ব্যালন ডি’অর পুরস্কার।

বিজ্ঞাপন

সেই তালিকায় স্বাভাবিকভাবেই চ্যাম্পিয়নস লিগ জয়ী চেলসি ও ইউরো জয়ী ইতালি দলের খেলোয়াড়দের আধিক্য লক্ষ্য করা গেছে। সংক্ষিপ্ত এই তালিকায় জায়গা পেয়েছেন লিওনেল মেসি ও এই সময়ের অন্যতম সেরা আরেক ফুটবলার ক্রিশ্চিয়ানো রোনালদো। এই দুই তারকা ফুটবলারের পাশাপাশি নেইমারের নামও অন্তর্ভুক্ত করা হয়েছে। তাদের সঙ্গে আছেন ক্লাব ও জাতীয় দলের দুর্দান্ত মৌসুম কাটানো জর্জিনিয়ো এবং গোলমেশিন রবের্ত লেভানদোভস্কি।

২০২১ ব্যালন ডি’অরের ৩০ জনের সংক্ষিপ্ত তালিকা-

রিয়াদ মাহরেজ (ম্যানচেস্টার সিটি/আলজেরিয়া), এনগোলো কঁতে (চেলসি/ফ্রান্স), ম্যাসন মাউন্ট (চেলসি/ইংল্যান্ড), লিওনার্দো বোনুচ্চি (ইউভেন্তুস/ইতালি), আর্লিং হলান্ড (বরুশিয়া ডর্টমুন্ড/নরওয়ে), করিম বেনজেমা (রিয়াল মাদ্রিদ/ফ্রান্স), জানলুইজি দোন্নারুম্মা (পিএসজি/ইতালি), নিকোলো বারেল্লা (ইন্টার মিলান/ইতালি), রাহিম স্টার্লিং (ম্যানচেস্টার সিটি/ইংল্যান্ড), হ্যারি কেইন (টটেনহ্যাম হটস্পার/ইংল্যান্ড), লিওনেল মেসি (পিএসজি/আর্জেন্টিনা), জর্জো কিয়েল্লিনি (ইউভেন্তুস/ইতালি), লুকা মদ্রিচ (রিয়াল মাদ্রিদ/ক্রোয়েশিয়া), ব্রুনো ফের্নান্দেস (ম্যানচেস্টার ইউনাইটেড/পর্তুগাল), পেদ্রি(বার্সেলোনা/স্পেন), নেইমার (পিএসজি/ব্রাজিল), কেভিন ডে ব্রুইনে (ম্যানচেস্টার সিটি/বেলজিয়াম), রুবেন দিয়াস (ম্যানচেস্টার সিটি/পর্তুগাল), লাউতারো মার্তিনেস (ইন্টার মিলান/আর্জেন্টিনা), সিমোন কেয়া (এসি মিলান/ডেনমার্ক), রবের্ত লেভানদোভস্কি (বায়ার্ন মিউনখ/পোল্যান্ড), জর্জিনিয়ো (চেলসি/ইতালি), সেসার আসপিলিকুয়েতা (চেলসি/স্পেন), মোহামেদ সালাহ (লিভারপুল/মিশর), রোমেলু লুকাকু (চেলসি/বেলজিয়াম), ক্রিস্তিয়ানো রোনালদো (ম্যানচেস্টার ইউনাইটেড/পর্তুগাল), জেরার্দ মোরেনো (ভিয়ারিয়াল/স্পেন), ফিল ফোডেন (ম্যানচেস্টার সিটি/ইংল্যান্ড), কিলিয়ান এমবাপে (পিএসজি/ফ্রান্স), লুইস সুয়ারেস (আতলেতিকো মাদ্রিদ/উরুগুয়ে)।

উল্লেখ্য, ১৯৫৬ সাল থেকে ইউরোপের সেরা খেলোয়াড়কে ব্যালন ডি’ অর পুরস্কার দেওয়া চালু হয়। ১৯৯৪ সাল পর্যন্ত পুরস্কারটি শুধু ইউরোপের খেলোয়াড়দেরই দেওয়া হতো। এর পর থেকে ইউরোপে খেলা বিশ্বের যে কোনো খেলোয়াড়ের জন্য পুরস্কারটি উন্মুক্ত করে দেওয়া হয়। আর ২০০৭ সাল থেকে ইউরোপের সেরা নয়, পুরস্কারটি দেয়া হতে থাকে বিশ্বের সেরা ফুটবলারকে। ফিফার বর্ষসেরা পুরস্কার আর ফ্রান্স ফুটবলের ব্যালন ডি’ অর একীভূত হয়েছিল ২০১০ সালে। ফিফার সঙ্গে চুক্তি শেষ হয়ে যাওয়ায় ২০১৬ সাল থেকে আবার একাই ব্যালন ডি’ অর দেওয়া শুরু করে ফ্রান্স ফুটবল। ব্যালন ডি’ অর জয়ী নির্ধারণ করা হয় সাংবাদিকদের ভোটে।

Subscribe
Notify of
guest
0 Comments
Inline Feedbacks
View all comments
0
Would love your thoughts, please comment.x
()
x