English

27 C
Dhaka
মঙ্গলবার, নভেম্বর ৩০, ২০২১

ফুটবল জাদুকর ম্যারাডোনা চলে যাওয়ার এক বছর আজ

- Advertisement -spot_img

বড্ড অসময়েই চলে গেলেন ফুটবল জাদুকর দিয়েগো আরমান্দো ম্যারাডোনা। ঠিক এক বছর আগে, আজকের এই দিনে। ২০২০ সালের ২৫ নভেম্বর নিজের বাসায় হৃদরোগে আক্রান্ত হয়ে মৃত্যুবরণ করেন ফুটবল দুনিয়ায় অবিসংবাদিত এই সম্রাট।

মৃত্যুকালে তার বয়স হয়েছিল ৬০ বছর। মৃত্যুর মাসখানেক আগেই মার মস্তিষ্কে অস্ত্রোপচার করা হয়েছিল। অপসারণ করা হয়েছিল জমে থাকা রক্ত। ডাক্তাররা বলেছিলেন, শঙ্কামুক্ত।

হাসপাতাল থেকে রিলিজ নিয়ে বুয়েন্স আয়ার্সে নিজের বাড়িতেও ফিরে এসেছিলেন তিনি। কিন্তু বাড়িতেই কেউ না থাকা অবস্থায় হৃদরোগে আক্রান্ত হয়ে মৃত্যুবরণ করে বিছানার ওপর পড়েছিলেন তিনি। দীর্ঘক্ষণ পর তার কেয়ারটেকার এসে দেখলেন মৃত ম্যারাডোনাকে।

ম্যারাডোনার মৃত্যু নিয়ে যদিও এখনও অনেক রহস্য রয়েছে। ঠিক কি কারণে, কিভাবে মারা গেলেন সেটাও অনেকটাই অস্পষ্ট। যে কারণে অনেককেই পুলিশ জিজ্ঞাসাবাদ করেছে। এখনও তদন্ত চলমান তার মৃত্যু নিয়ে। আবার মৃত্যুর এক বছর পরও তার নারী কেলেঙ্কারির নানা দিক উঠে আসছে।

ম্যারাডোনার বিদায়ের এই এক ব্ছরে ফুটবল বিশ্বে অনেক কিছুই ঘটে গেছে। সবচেয়ে বড় যেটা, সেটা হচ্ছে আর্জেন্টিনা কোপা আমেরিকার শিরোপা জিতেছে। জীবদ্ধশায় এই একটি শিরোপার জন্য গ্যালারিতে কত যে গলা ফাটিয়েছেন ম্যারাডোনা! ১৯৮৬ সালে তার হাত ধরে বিশ্বকাপ, ১৯৯৩ সালে যে সর্বশেষ কোপা জিতেছিল আর্জেন্টাইনরা, এরপর তো শুধু খালি হাতেই ফিরতে হয়েছিল লা আলবিসেলেস্তেদের।

শেষ পর্যন্ত ২৮ বছর পর শিরোপা মেসিদের হাতে উঠলেও ম্যারাডোনা দেখে যেতে পারেননি। বেঁচে থাকলে হয়তো গ্যালারিতে শিশুর মত লাফাতেন।

এই সময়ের মধ্যে তার প্রিয় শিষ্য লিওনেল মেসি বার্সেলোনা ছেড়ে দিয়েছেন। যোগ দিয়েছেন প্যারিস সেন্ট জার্মেইয়ে। ক্রিশ্চিয়ানো রোনালদোও জুভেন্টাস থেকে ফিরেছেন ম্যানচেস্টার ইউনাইডেটে। বেঁচে থাকলে নিশ্চিত মেসি এবং রোনালদোদের নিয়ে মন্তব্য করতে খানিক চিন্তাও করতেন না।

ম্যারাডোনা নেই। তবে, ফুটবল বিশ্বে ছড়িয়ে ছিটিয়ে থাকা তার ভক্তরা তাকে স্মরণে রেখেছেন নানা আয়োজন-অনুষ্ঠানে। ম্যারাডোনা যতটা না আর্জেন্টাইন, তার চেয়েও বেশি যেন নাপোলির।

ইতালিয়ান ক্লাবটি তাদের সর্বশেষ ম্যাচেও মাঠে নেমেছে ম্যারাডোনার ছবি আঁকা জার্সি পরে। আজ নাপোলি স্টেডিয়ামের সামনে বসবে তার পূর্ণ আকৃতির ব্রোঞ্জমূর্তি।

নাপোলি তাদের স্টেডিয়ামেরও নাম বদলে দিয়েছে। সেটি এখন দিয়েগো আরমান্দো ম্যারাডোনা স্টেডিয়াম। সেই স্টেডিয়ামের সামনে তো ম্যারাডোনার আবক্ষ মূর্তিই শোভা পায়। আর্জেন্টাইন কিংবদন্তির প্রথম মৃত্যুবার্ষিকীতে ইউরোপের অনেক দেশ থেকেই ভক্তরা নেপলসে এসেছে।

নাপোলিটানদের মতো ম্যারাডোনার প্রতি ভালোবাসা দেখাতে পেরেছে আর কারা! সেখানে তার নিত্যনতুন ম্যুরাল হয়। মৃত্যুবার্ষিকীতে আবেগটা এখন আরো বেশিই সেখানে।

গতকালই ‘হ্যান্ড অব গড’ নামে নতুন সিনেমা মুক্তি পেয়েছে তাকে নিয়ে। ইতালিয়ান পরিচালক পাওলো সোরেন্তিনো যেখানে তুলে এনেছেন সেই আশির দশকের নেপলসকে। যেখানে সব রূপকথা লেখা শুরু করেছিলেন ম্যারাডোনা।

নানা বিতর্কিত ঘটনা সামনে আসার পরও ‘ফুটবল রাজপূত্র’কে নিয়ে আবেগে ভাসছে মানুষ। ম্যারাডোনার এই মৃত্যুবার্ষিকী উপলক্ষেই আর্জেন্টিনা প্রিমিয়ার লিগে নতুন থিম সং করা হয়েছে তার খেলার সব ভিডিও ক্লিপস দিয়ে। ম্যাচ ডে-তে যেটি দেখানো হবে প্রতিটি মাঠেই। মঙ্গলবার লিগ ম্যাচ শুরুর আগে প্রতিটি দলের খেলোয়াড়রা সম্মান জানিয়েছেন তাকে।

সাবস্ক্রাইব
Notify of
guest
0 মন্তব্য
Inline Feedbacks
View all comments
সর্বশেষ
- Advertisement -spot_img
এ বিভাগে আরো দেখুন