English

21 C
Dhaka
মঙ্গলবার, নভেম্বর ৩০, ২০২১

মিস্টার বিনের মৃত্যুর খবর, নেট দুনিয়াজুড়ে চাঞ্চল্য

- Advertisement -spot_img

বিখ্যাত মানুষের জীবন বড় বিচিত্র। তাদের প্রতিদিনের বেঁচে থাকা মাপা হয় নিক্তিতে। মৃত্যুও যেন ভক্তদের জন্য উৎসর্গীকৃত। সোশ্যাল মিডিয়ার বাড়বাড়ন্তের সময় সেই মৃত্যুকে গৌরবোজ্জ্বল করে দেখাতে তাই বারবার মরতে হয় নানা কারণে। কোনও না কোনও পেজের ফলোয়ার বাড়াতে, টিআরপি বাড়াতে। আবারো সেরকমই একটি ঘটনা ঘটলো। সারা বিশ্বের কাছে তিনি পরিচিত মিস্টার বিন হিসেবেই। ১৯৯০-১৯৯৫ সাল পর্যন্ত বৃটেনের অন্যতম মজার টেলিভিশন শো ছিল মিস্টার বিন।

যদিও দু’দশক পেরিয়েছে, তবু জনপ্রিয়তা আজও কমেনি তার। মিস্টার বিন-এর আসল নাম রোয়ান অ্যাটকিনসন। সম্প্রতি সোশ্যাল মিডিয়ায় ভাইরাল হয়ে যায় বিখ্যাত ৬৬ বছর বয়সী এই অভিনেতার মৃত্যুর খবর। গতকাল থেকেই সোশ্যাল হ্যান্ডেলে ঘুরে বেড়াচ্ছে ‘মিস্টার বিন’ খ্যাত অভিনেতা রোয়ান অ্যাটকিনসনের মৃত্যুর দুঃসংবাদ। ‘মিস্টার বিন’ যিনি কোটি কোটি মানুষের মুখে হাসি ফুটিয়েছেন তার মৃত্যুর খবরে চাঞ্চল্য ছড়িয়ে পড়ে নেট পাড়ায়। রোয়ান অ্যাটকিনসন একাধারে বৃটিশ অভিনেতা, কমেডিয়ান এবং লেখক । ‘স্পটবয়’-এর প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, রোয়ান অ্যাটকিনসনের মৃত্যুর এই গুজবটি একটি টুইটার হ্যান্ডেলের মাধ্যমে ছড়ানো হয়েছে, যেটি আমেরিকান নিউজ চ্যানেল ফক্স নিউজ-এর বলে দাবি করছে। পূর্বাপর বিবেচনা না করে মানুষ খবরটি শেয়ার করতে থাকেন বার বার। যদিও এবার খুব সহজেই ধরা পড়েছে ভুয়া খবরের সত্যতা। কারণ, ২০১৭ সালেই এই খবর চাউর হয়েছিল।
গাড়ি দুর্ঘটনায় মৃত্যু হয়েছে বলে একটি ভুয়া খবরের পেজ তা ছড়িয়ে দিয়ছিল। ওই পেজের দাবি ছিল, মজা করাই তাদের উদ্দেশ্য, কিন্তু তারা একটি প্রতিষ্ঠিত সংবাদমাধ্যমের লোগো প্রায় নকল করে এসব খবর ছড়ায়। ফলে মানুষের মধ্যে বিভ্রান্তি বাড়ে। এদিন অবশ্য মিস্টার বিনের ভক্তরা বেশ কড়া হাতেই দমন করেছেন ছড়িয়ে পড়া ভুয়া খবরকে। অনেকেই মন্তব্য করেছেন, আর কতবার মরতে হবে অ্যাটকিনসনকে? ২০১৭ সালে একবার ট্যুইট করে গাড়ি দুর্ঘটনায় মিস্টার বিনের মৃত্যুর খবর ছড়িয়ে দেয়া হয়েছিল। তারও আগে ২০১৬ সালে একবার শোনা গিয়েছিল নিজের বাড়িতে অচৈতন্য অবস্থায় রোয়ান অ্যাটকিনসনকে পাওয়া গেছে। তা নিয়েও শোরগোল পড়ে গিয়েছিল তার ভক্ত মহলে। RIP ROWAN ATKINSON নামে একটি ফেসবুক পেজ থেকে ভুয়া খবর ছড়ানো হয়েছিল। মিঃ বিন প্রথম সম্প্রচার করা হয়, ১লা জানুয়ারি ১৯৯০ সালের আইটিভি-তে এবং এর শেষ পর্ব সম্প্রচার করা হয়, ১৫ই নভেম্বর ১৯৯৫ সালে যার শিরোনাম ছিল “হেয়ার বাই মিস্টার বিন অফ লন্ডন“। প্রচুর আন্তর্জাতিক পুরস্কারও পায় শো-টি । বিশ্বের ২০০টি দেশে এই অনুষ্ঠান বিক্রি করা হয়েছে।
সাবস্ক্রাইব
Notify of
guest
0 মন্তব্য
Inline Feedbacks
View all comments
সর্বশেষ
- Advertisement -spot_img
এ বিভাগে আরো দেখুন