English

31 C
Dhaka
শনিবার, মে ২৮, ২০২২
- Advertisement -

রেস্তোরাঁর খাবারে ভ্যাট কমলো

- Advertisements -

আগামী পহেলা জুলাই থেকে কার্যকর হওয়া নতুন অর্থবছরে রেস্তোরাঁয় খাবারের ভ্যাটের (মূল্য সংযোজন কর) হার কমানো হয়েছে। বর্তমানে শীতাতপ নিয়ন্ত্রিত (এসি) ফাস্ট ফুডের দোকান, রেস্তোরাঁয় প্রতি ১০০ টাকার খাবারে ১৫ টাকা ভ্যাট কেটে রাখা হয়। নতুন অর্থবছর এ ধরনের ফাস্ট ফুডের দোকান ও রেস্তোরাঁয় ভ্যাট কাটা হবে ১০ টাকা। আর নন-এসি রেস্তোরাঁ বা ফাস্ট ফুডের দোকানে ভ্যাট দিতে হবে সাড়ে ৭ শতাংশের পরিবর্তে ৫ শতাংশ হারে।

Advertisements

মঙ্গলবার ( ২৯ জুন) জাতীয় সংসদে ২০২১ সালের অর্থবিল পাসের সময় এই সংশোধনী আনা হয়েছে। বিদ্যমান ভ্যাট আইনের আওতায় কোনো প্রতিষ্ঠানের ৫০ লাখ টাকা পর্যন্ত টার্নওভারের ওপর কোনো ভ্যাট নেই। তবে ৫০ লাখ টাকা টার্নওভারের বেশি রেস্তোরাঁ, ফাস্ট ফুডের দোকানগুলোকে ভ্যাট দিতে হয়।

Advertisements

ভ্যাট কর্মকর্তারা এ নিয়ে নিয়মিত তদারকিও করে থাকেন। হোটেল ব্যবসায়ীরা জানান, তারা সবাই ভ্যাট দিতে চান। তবে ভ্যাটের হার কমানোর দাবি দীর্ঘদিনের। মহামারি করোনা ভাইরাসের কবলে পড়ে অনেক দিন থেকেই বন্ধ রয়েছে হোটেল-রেস্তোরাঁ। এ খাতে আর্থিক ক্ষতির পরিমাণও অনেক। প্রাস্তাবিত বাজেটে ভ্যাটের হার কমানোর দাবী ছিল রেস্তোরা মালিকদের। ভ্যাটের হার কমে আসায় খাবারের দাম কমে আসবে, সেইসাথে রাজস্ব আদায়ও বাড়বে।

এ বিষয়ে রেস্তোরাঁ মালিক সমিতির ভারপ্রাপ্ত মহাসচিব মো. ফিরোজ আলম সুমন বলেন, মহামারি করোনা ভাইরাসের কবলে পড়ে অনেক দিন থেকেই বন্ধ রয়েছে হোটেল-রেস্তোরাঁ। এ খাতে আর্থিক ক্ষতির পরিমাণও বেশি হয়েছে। এসব বিষয় বিবেচনায় নিয়ে ভ্যাটহার কমানোতে সরকারকে ধন্যবাদ জানাচ্ছি। আমরা সবাই ভোগান্তি ছাড়া ভ্যাট দিতে চাই। ভ্যাট কমানোর ফলে খাবারের দাম কমে আসবে। একইসঙ্গে এ খাত থেকে রাজস্ব আদায়ও বাড়বে বলে আশাকরছি।

সাবস্ক্রাইব
Notify of
guest
0 মন্তব্য
Inline Feedbacks
View all comments
Advertisements
সর্বশেষ
- Advertisements -
এ বিভাগে আরো দেখুন