English

28 C
Dhaka
সোমবার, নভেম্বর ২৮, ২০২২
- Advertisement -

অস্ট্রেলিয়ার পর ইংল্যান্ডেও বর্ণবাদী আচরণের শিকার ভারতীয়রা

- Advertisements -
Advertisements

এজবাস্টনে সিরিজের শেষ ম্যাচে মাঠে লড়ছে ভারত ও ইংল্যান্ডের টেস্ট দল। মাঠের বাইরেও যেনো সেই লড়াইয়ের অন্যরকম রূপ নিয়ে হাজির স্বাগতিক দেশের সমর্থকরা। তবে সেটি সুস্থ কোনো লড়াই নয়। বরং সফরকারী ভারতের সমর্থকদের ওপর বর্ণবাদী আচরণ করেছেন ইংলিশ সমর্থকরা।

Advertisements

এ অভিযোগ উঠেছে ম্যাচের চতুর্থ দিন। ভারতের দর্শকদের অনেকেই সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম টুইটারে ইংল্যান্ডের দর্শকদের বিপক্ষে বর্ণবাদী আচরণের অভিযোগ তুলেছেন। যেগুলো ওয়ারউইকশায়ার ও ইংল্যান্ড ক্রিকেট বোর্ডের নজরেও এসেছে।

অনিল সেহমি নামের এক সমর্থক বর্ণবাদী আচরণের অভিযোগ এনে টুইটারে জানিয়েছেন, এরিক হলিস ব্লকে ইংল্যান্ডের সমর্থকরা ইচ্ছাকৃতভাবে ভারতীয় সমর্থকদের গালিগালাজ করছেন। প্রতিকারের জন্য উপস্থিত নিরাপত্তাকর্মীদের কাছে অভিযোগ করেও কোনো ফল পাননি তিনি।

এই ঘটনায় ভারতীয় সমর্থকদের অভিযোগের পর ইয়র্কশায়ারের প্রাক্তন ক্রিকেটার আজিম রফিক, যিনি নিজেও দীর্ঘদিন ধরে বর্ণবাদের বিরুদ্ধে লড়ছেন, তিনি টুইটারে লেখেন, ‘এটা পড়ে অত্যন্ত হতাশ হয়েছি।’ একইসঙ্গে বেশ কয়েকটি টুইট-রিটুইট করেন তিনি।

আজিম রফিকের টুইটের প্রেক্ষিতে এজবাস্টনের অফিসিয়াল টুইটার হ্যান্ডলার থেকে ক্ষমাপ্রার্থনা করে বলা হয়, ‘এটি পড়ে আমরা অত্যন্ত দুঃখিত। কোনোভাবেই আমরা এরকম আচরণ সহ্য করি না। আমরা যত দ্রুত সম্ভব, এই ঘটনার তদন্ত করবো।’

তদন্তের আশ্বাস দিয়ে ইংল্যান্ড ক্রিকেট বোর্ড এক বিবৃতিতে জানিয়েছে, ‘নিরাপদ ও সুরক্ষিত পরিবেশ তৈরির জন্য কঠোর পরিশ্রম করে যাচ্ছে এজবাস্টন। আজ টেস্ট ম্যাচে বর্ণবিদ্বেষের অভিযোগ শুনে আমরা গভীরভাবে উদ্বিগ্ন। এটি তদন্ত করে দেখা হবে।’

উল্লেখ্য, এর আগে গতবছর অস্ট্রেলিয়া সফরের সিডনি টেস্টে সরাসরি ক্রিকেটারদেরই বর্ণবাদী আক্রমণ করে বসে স্বাগতিক দেশের সমর্থকরা। বিশেষ করে মোহাম্মদ সিরাজকে বানর বলে সম্বোধন ছাড়াও, পুরো দলের সঙ্গে বর্ণবাদী আচরণ করে তারা। এ ঘটনায় ক্ষমাপ্রার্থনা করেছিল ক্রিকেট অস্ট্রেলিয়া।

সাবস্ক্রাইব
Notify of
guest
0 মন্তব্য
Inline Feedbacks
View all comments
Advertisements
সর্বশেষ
- Advertisements -
এ বিভাগে আরো দেখুন