English

33 C
Dhaka
শনিবার, জুলাই ২০, ২০২৪
- Advertisement -

কুমিরের পর চিতাবাঘের আক্রমণ থেকে বাঁচলেন সাবেক ক্রিকেটার

- Advertisements -

জিম্বাবুয়ের সাবেক ক্রিকেটার গাই হুইটাল আরও একবার সাক্ষাৎ মৃত্যুর কাছ থেকে ফিরলেন। এবার তাকে চিতাবাঘ আক্রমণ করেছিল। তবে নিজের পোষা কুকুরের সাহায্যে কোনো মতে বেঁচে ফিরলেন তিনি। যদিও মারাত্মক ভাবে আহত হয়েছেন হুইটাল। সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে এই খবর প্রকাশ্যে এনেছেন হুইটালের স্ত্রী হানা। তিনি রক্তাক্ত হুইটালের একটি ছবিও পোস্ট করেছেন।

ব্রিটিশ সংবাদমাধ্যম ডেইলি মেইলের বরাতে জানা যায়, জিম্বাবুয়েতে সাফারির ব্যবসা রয়েছে হুইটালের। তুরগে এবং সেভ নদীর মাঝে একটি জায়গায় ব্যবসা চালান। সেই কাজেই বেরিয়েছিলেন। তবে সেখানে আচমকা তাকে আক্রমণ করে একটি চিতাবাঘ। চেষ্টা করলেও সহজে তার হাত থেকে ছাড়া পাননি হুইটাল। পোষ্য কুকুর চিকারা তাকে বাঁচাতে যায়। চিতাবাঘের কামড় খায় সেও। কিন্তু দু’জনেই বেঁচে গেছে।

পরবর্বিতে হুইটালকে প্রথমে বাফেলো রেঞ্জে ফিরিয়ে আনা হয়। তারপর এয়ারলিফ্‌ট করে হারারের মিল্টন হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়। সেখানেই মাথায় ব্যান্ডেজ বাঁধা অবস্থায় হুইটালের ছবি প্রকাশ্যে এসেছে।

এ নিয়ে হুইটালের স্ত্রী হানা বলেছেন, ‘খুব ভাগ্যবান মানুষ ও। প্রথমে কুমির, আর এখন চিতা। ও ভাগ্যবান যে চিকারা ওর সঙ্গে ছিল। হুইটালকে সাহায্য করার আপ্রাণ চেষ্টা করেছে। না হলে কী হত আমরা কেউ জানি না। পুরস্কার হিসাবে চিকারাকে অতিরিক্ত মাংস খেতে দেওয়া হবে। আপাতত ওর গায়ে কেটে-ছড়ে যাওয়ার অনেক চিহ্ন রয়েছে। তবে সেগুলো ঠিক হয়ে যাবে। আপাতত গাই হাসপাতালে শুয়ে সবাইকে শোনাচ্ছে কী ভাবে চিতাবাঘের মুখোমুখি হয়েছিল ও।’

এর আগে ২০১৩ সালে আরও একটি ভয়ংকর ঘটনার মুখোমুখি হয়েছিলেন হুইটাল। তার বিছানার নীচে সারা রাত শুয়েছিল একটি কুমির। সকালে উঠে সেই কুমিরের উপস্থিতি টের পান হুইটাল। সেই ছবি প্রকাশ্যে আসার পর হইচই পড়ে যায়।

হুইটাল জিম্বাবুয়ের হয়ে প্রায় দশ বছর খেলেছেন। ৪৬টি টেস্ট এবং ১৪৭টি এক দিনের ম্যাচ খেলেছেন। টেস্টে ৪টি সেঞ্চুরি ও ১০টি ফিফটিতে ২ হাজারের বেশি রান করেছেন। ওয়ানডেতে ১১টি হাফসেঞ্চুরিতে ২৭’শর বেশি রাক করেছেন।

সাবস্ক্রাইব
Notify of
guest
0 মন্তব্য
Inline Feedbacks
View all comments
Advertisements
সর্বশেষ
- Advertisements -
এ বিভাগে আরো দেখুন