English

27 C
Dhaka
বুধবার, নভেম্বর ৩০, ২০২২
- Advertisement -

তিন মোড়লের মোড়লগিড়ি থামানোর আহ্‌বান স্মিথের

- Advertisements -

কাগজে কলমে ক্রিকেট থেকে ‘তিন মোড়ল নীতি’ বাতিল হয়ে গেলেও বাস্তবে এটা এখনো বিদ্যমান। কথিত ‘তিন মোড়ল’ ভারত, অস্ট্রেলিয়া ও ইংল্যান্ড নিজেদের মাঝে একের পর এক সিরিজ খেলে যাচ্ছে। বিশেষ করে টেস্ট সিরিজ। কিন্তু অন্য দলগুলোর বিপক্ষে তারা খেলতে আগ্রহী নয়। এই জায়গায় এখানটায় আইসিসিকে শক্ত হওয়ার আহ্বান জানিয়েছেন সাবেক দক্ষিণ আফ্রিকা অধিনায়ক তথা বর্তমান বোর্ডের পরিচালক গ্রায়েম স্মিথ।

Advertisements

করোনার অজুহাত দেখিয়ে দক্ষিণ আফ্রিকাসহ বেশ  কিছু দেশের বিপক্ষে সিরিজ বাতিল করেছে অস্ট্রেলিয়া। কিন্তু ভারত-ইংল্যান্ডের বিপক্ষে যথারীতি তারা খেলেছে। অথচ, আগামী মার্চে অনুষ্ঠিতব্য সিরিজটির জন্য প্রয়োজনীয় সব ব্যবস্থা করে ফেলেছিল সিএসএ। এখন সিরিজটি না হওয়ায় তারা আর্থিকভাবে বড় ধরনের ক্ষতির সন্মুখীন। দুই দেশের সম্মতিতি সিরিজ পিছিয়েছে বলে অজি বোর্ড দাবি করলেও সিরিজটির জন্য আইসিসির কাছে এরই মধ্যে চিঠি পাঠিয়েছে ক্রিকেট দক্ষিণ আফ্রিকা।

Advertisements

প্রচণ্ড হতাশা ব্যক্ত করে গ্রায়েম স্মিথ বলেছেন, ‘এই মুহূর্তে এমন নেতৃত্বের প্রয়োজন যারা জটিলতা বোঝে। আগামী ১০ বছরে কেবল তিনটি দেশই একে অপরের বিপক্ষে খেলবে, আমার মনে হয় না বিশ্ব ক্রিকেট এমনটা চায়। এতে কীভাবে খেলাটির উন্নতি হবে? এমন হলে, টি-টোয়েন্টি লিগগুলোর প্রভাব বেড়ে যাবে, সেগুলো এতো বড় হয়ে যাবে যে হয়তো বাকি সদস্য দেশগুলো খুব কম কিংবা কোনো আন্তর্জাতিক ম্যাচই পাবে না। আইসিসির নেতৃত্বে যারা আছেন তাদের এখনই এই জায়গায়গুলোর নজর দেওয়া উচিত।’

বিশ্বের ক্রিকেটসূচিই এখন নির্ধারিত হয় তিন মোড়লের একে অন্যের বিপক্ষে সিরিজ আর তাদের ঘরোয়া লিগগুলোর ওপর নির্ভর করে। এতে অন্য দলগুলো সিরিজ খেলার সুযোগ পায় না। স্মিথ আরও বলেন, ‘৮ বছরে সম্ভাব্য ৮টি আইসিসি টুর্নামেন্ট, বর্ধিত আইপিএল এবং ভারত, ইংল্যান্ড ও অস্ট্রেলিয়ার আধিপত্যের কারণে এফটিপি বিশাল চ্যালেঞ্জের সম্মুখীন হবে। বাকি সদস্য দেশগুলোর জন্য যা চ্যালেঞ্জিং। অন্য সদস্য, যারা ভালো কিছু ম্যাচের আশায় থাকে, তাদের ওপরও চাপ বেড়ে যায়।’

সাবস্ক্রাইব
Notify of
guest
0 মন্তব্য
Inline Feedbacks
View all comments
Advertisements
সর্বশেষ

আল কোরআন ও আল হাদিস

- Advertisements -
এ বিভাগে আরো দেখুন