English

34 C
Dhaka
সোমবার, জুলাই ৪, ২০২২
- Advertisement -

সাকিবকে ক্ষমা চাইতে বললেন দক্ষিণ আফ্রিকার সাংবাদিক

- Advertisements -

দক্ষিণ আফ্রিকা ও বাংলাদেশের মধ্যকার প্রথম টেস্ট এখন আলোচনার কেন্দ্রবিন্দুতে আম্পায়ারদের বিতর্কিত সিদ্ধান্তের কারণে। রোববার চতুর্থ দিনে দক্ষিণ আফ্রিকার দুই আম্পায়ার মারাইস এরাসমাস ও আড্রিয়ান হোল্ডস্টক বিতর্কিত ও ভুল সিদ্ধান্ত দিয়েছেন ৭টি। চারদিনে দিয়েছেন ১১টি ভুল সিদ্ধান্ত। যার অধিকাংশ গেছে বাংলাদেশের বিপক্ষে।

ম্যাচ শেষে বিষয়টি নিয়ে কথা বলেছেন বাংলাদেশের টিম ডিরেক্টর খালেদ মাহমুদ সুজন। তিনি বলেছেন, ‘সত্যি কথা বলতে, এমন ইনকন্সিসটেন্স আম্পায়ারিং অনেক দিন পর দেখলাম।’ তিনি ম্যাচ পরিচালনার ক্ষেত্রে নিরপেক্ষ আম্পায়ারের বিষয়টিও উল্লেখ করেছেন।

Advertisements

চতুর্থ দিনের বিতর্কিত আম্পায়ারিং দেখে ক্ষোভ লুকাতে পারেননি বাংলাদেশের তারকা অলরাউন্ডার সাকিব আল হাসানও। তিনি সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম টুইটারে লিখেছিলেন, ‘আমি মনে করি আইসিসির জন্য আগের মতো নিরপেক্ষ আম্পায়ার ফেরানোর সময় এসেছে। কারণ, বেশিরভাগ ক্রিকেট খেলুড়ে দেশে কোভিড পরিস্থিতি এখন ঠিক হয়ে গেছে।’

বিষয়টিকে ভিন্নভাবে দেখেছেন দক্ষিণ আফ্রিকার সাংবাদিক টেলফোর্ড ভাইস। ক্রিকবাজে তিনি স্বদেশি দুই আম্পায়ারের রেকর্ডের ফর্দ তুলে ধরেন। বিশেষ করে মারাইস এরাসমাসের। তার ক্যারিয়ারে তিনি কতোগুলো পুরস্কার জিতেছেন, কতো শতাংশ সঠিক সিদ্ধান্ত দিয়েছেন, কতো শতাংশ ভুল সিদ্ধান্ত দিয়েছেন তার বিস্তারিত তুলে ধরেন। তারাও মানুষ এবং ভুল হতে পারে বলে উল্লেখ করেন।

এরপর তিনি লিখেন, ‘সাকিব আল হাসানের ভালো করে জানা উচিত: ম্যাচে ভুল সিদ্ধান্তের চারটি গেছে তাদের পক্ষে। আর চারটি গেছে বিপক্ষে। এক্ষেত্রে এরাসমাস ও হোল্ডস্টকের কাছে সাকিবের ক্ষমা চাওয়া উচিত।’ এরপর তিনি বাংলাদেশের আম্পায়ারিং ও আম্পায়ারদের সঙ্গে সাকিব আল হাসানের আচরণের বিষয়টি উল্লেখ করে খোঁচা দেন।

Advertisements

উল্লেখ্য, চতুর্থ দিনের শুরুতেই ৭ রানে জীবন পান দক্ষিণ আফ্রিকার অধিনায়ক ডিন এলগার। এ সময় বাংলাদেশের বোলার ও ফিল্ডারদের এলবিডব্লিউর জোরালো আবেদনে সাড়া দেননি এরাসমাস। রিভিউ নিলেও আম্পায়ার্স কলে বেঁচে যান এলগার।

দক্ষিণ আফ্রিকার উদ্বোধনী ব্যাটসম্যান সারেল আরউইয়ের বিরুদ্ধেও এলবিডব্লিউর আবেদন করে প্রত্যাখ্যাত হয় বাংলাদেশ। শেষ পর্যন্ত রিভিউ নিয়ে উইকেট পায়।

আরেকবার খালেদ আহমেদের বলে এলবিডব্লিউর আবেদন করে বাংলাদেশ। ব্যাটসম্যান ছিলেন কিগান পিটারসেন। কিন্তু আম্পায়ার নাকচ করে দেন। রিভিউ নেয়নি বাংলাদেশ। রিপ্লেতে দেখা যায় মিডল স্টাম্পে আঘাত হানতো বল। ১৪ রানে জীবন পান পিটারসেন।

মধ্যাহ্ন বিরতির পর তাসকিনের বলে এলবিডব্লিউ হন ডিন এলগার। কিন্তু তার আবেদনে সাড়া দেননি হোল্ডস্টক। রিভিউ নেন তাসকিন। ফল আসে তাসকিনের আবেদনের পক্ষে।

এরপর বাংলাদেশের ব্যাটিংয়ের সময় শান্তর ব্যাট ছুঁয়ে বল যায় উইকেটের পেছনে। প্রোটিয়াদের আবেদন ফিরিয়ে দেন এরাসমাস। সাহস করে তারা রিভিউ নেয়নি। কিন্তু টিভি রিপ্লেতে দেখা যায় শান্তর ব্যাটে আলতো চুমু খেয়েছিল বল।

সাবস্ক্রাইব
Notify of
guest
0 মন্তব্য
Inline Feedbacks
View all comments
Advertisements
সর্বশেষ
- Advertisements -
এ বিভাগে আরো দেখুন