English

31 C
Dhaka
বুধবার, জুলাই ১৭, ২০২৪
- Advertisement -

ধর্ষককে বাবা ডেকেও রেহাই পাননি মাদ্রাসাছাত্রী

- Advertisements -

জয়পুরহাটে মহিলা মাদ্রাসার ছাত্রীকে ধর্ষণের দায়ে ওই মাদ্রাসার প্রতিষ্ঠাতাকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। রোববার রাতে শহরের মাছুয়া বাজার এলাকা থেকে আজিজুল হক ফেন্সি (৫৭)কে গ্রেপ্তার করা হয়। তিনি শহরের বিশ্বাসপাড়ার আবুল কাশেমের ছেলে ও হযরত ফাতেমা (র.) কওমি হাফেজিয়া মহিলা মাদ্রাসার প্রতিষ্ঠাতা বলে জানা গেছে। পুলিশ ও স্থানীয়রা জানান, শহরের কাশিয়াবাড়ি এলাকার হযরত ফাতেমা (র.) কওমি হাফেজিয়া মহিলা মাদ্রাসার চতুর্থ শ্রেণিতে পড়াশুনা করতো নওগাঁর এক শিশু শিক্ষার্থী।

Advertisements

ঈদের ছুটি হলেও মাদ্রাসাতে মাসিক বেতন বকেয়া থাকায় ওই শিক্ষার্থীকে ছুটি দেয়নি আজিজুল হক ফেন্সি। ঈদের ছুটির সময়ে ওই শিক্ষার্থীকে বাগানবাড়িতে নিয়ে ধর্ষণ করেন তিনি। এরপর তাকে মাদ্রাসায় আটকে রাখেন। রোববার মেয়েটি মাদ্রাসা থেকে পালিয়ে বান্ধবীর বাড়িতে আশ্রয় নেয়। এ সময় তার বান্ধবীর পরিবারের সদস্যদের নিকট ধর্ষণের বিষয় জানায়। পরে তারা তাৎক্ষণিক ওই ছাত্রীকে জয়পুরহাট থানায় নিয়ে যায় এবং মেয়ের বাবা মামলা দায়ের করেন।

Advertisements

এরপর রাতেই আজিজুলকে গ্রেপ্তার করে পুলিশ। ধর্ষণের শিকার ছাত্রী বলেন, মাদ্রাসার মাসিক বেতনের বকেয়া টাকা পরিশোধ করতে পারেনি পরিবার। এজন্য মাদ্রাসার প্রতিষ্ঠাতা আজিজুল হক ফেন্সি তাকে বাড়িতে যেতে দেয়নি। পরে তিনি তার বাড়িতে নিয়ে যায়। সেখানে নিয়ে ধর্ষণ করে।

তাকে বাবা ডেকেও রেহাই পায়নি বলে জানায় সে। এ ঘটনার সুষ্ঠু বিচার চায় ওই শিক্ষার্থী। গ্রেপ্তারের মুহূর্তে আজিজুল হক ফেন্সি বলেন, তার ভুল হয়েছে। আবার কখনো বলেন ষড়যন্ত্র করা হয়েছে তার বিরুদ্ধে। জয়পুরহাট থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) হুমায়ুন কবির বলেন, ছাত্রীকে ধর্ষণের দায়ে একটি মাদ্রাসার প্রতিষ্ঠাতা আজিজুল হক ফেন্সি নামে এক ব্যক্তিকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। তাকে আদালতের মাধ্যমে কারাগারে পাঠানো হবে।

সাবস্ক্রাইব
Notify of
guest
0 মন্তব্য
Inline Feedbacks
View all comments
Advertisements
সর্বশেষ
- Advertisements -
এ বিভাগে আরো দেখুন