English

28 C
Dhaka
বুধবার, নভেম্বর ৩০, ২০২২
- Advertisement -

বগুড়ায় শ্বশুরকে অপহরণ করে মুক্তিপণ চাইলো জামাই!

- Advertisements -
Advertisements
Advertisements

বগুড়ায় শ্বশুরকে অপহরণ করে মুক্তিপণ হিসেবে জামাই চাইলো ৫ লাখ টাকা। খবর পেয়ে বগুড়া সদর থানা পুলিশ অভিযান চালিয়ে জামাইসহ ৩ জনকে গ্রেফতার করে বুধবার আদালতে প্রেরণ করেছে।
গ্রেফতারকৃতরা হলো বগুড়ার কাহালু উপজেলার দেওগ্রাম দীঘিরপাড়া এলাকার মৃত রইচ উদ্দিনের পুত্র আবু সাঈদ (৩০), একই উপজেলার চকজগৎপুর এলাকার মৃত কমের উদ্দিনের পুত্র জিয়াউর রহমান (৩৮) ও জাঙ্গালপাড়া এলাকার আব্দুর রশিদের পুত্র মো. হৃদয় প্রাং (২২)।
বগুড়া সদর থানা সুত্রে জানা যায়, পারিবারিক বিরোধের জেরে সোমবার  রাতে বগুড়া সদরের ২য় বাইপাস এলাকায় বায়তুল রহিম মসজিদের মুয়াজ্জিন মো. গোফফার শাহকে তার মেয়ের জামাই গ্রেফতারকৃত আসামি আবু সাঈদ ও সঙ্গীয়রা অপহরণ করে। অপহরণ করে গোফফার শাহকে শিবগঞ্জ উপজেলার চন্ডিহারা এলাকার নির্জন স্থানে একটি ভাঙা ঘরের মধ্যে বেঁধে রাখে। এবং তার পরিবারের লোকজনকে আসামী জিয়াউর রহমান ফোন করে ৫ লাখ টাকা মুক্তিপণ দাবি করে না হলে মেরে ফেলার হুমকি দেয়।
বগুড়া সদর থানার এসআই মনোয়ারুল ইসলাম জানান, মঙ্গলবার সন্ধ্যায় অভিযোগ পাওয়ার পর থেকে আব্দুল গোফফারকে উদ্ধারে অভিযান পরিচালনা করা হয়। অভিযানে মোবাইলের সূত্র ধরে জিয়াউর রহমানকে গ্রেফতার করা হয় এবং তার দেয়া তথ্যমতে মঙ্গলবার মধ্যরাতে আব্দুল গোফফার শাহকে শিবগঞ্জ উপজেলার চন্ডিহারা এলাকা থেকে উদ্ধার করা হয়। এ সসময় অপহৃতের জামাই আবু সাঈদ ও হৃদয়কে গ্রেফতার করা হয়।
বগুড়া সদর থানার ইন্সপেক্টর (তদন্ত) রেজাউল করিম জানান, বগুড়ার সদর থানার পুলিশ সদস্যরা অপহৃত মসজিদের মোয়াজ্জেম আব্দুল গোফফারকে উদ্ধার করেছে। এ ঘটনায় অপহৃতের মেয়ে জামাইসহ ৩ জনকে গ্রেফতার করেছে। গ্রেফতারকৃতদের আদালতে প্রেরণ করা হয়েছে। এ ঘটনার সাথে জড়িতদের গ্রেফতারে অভিযান অব্যাহত রয়েছে বলেও জানান তিনি।

সাবস্ক্রাইব
Notify of
guest
0 মন্তব্য
Inline Feedbacks
View all comments
Advertisements
সর্বশেষ
- Advertisements -
এ বিভাগে আরো দেখুন