English

29 C
Dhaka
মঙ্গলবার, সেপ্টেম্বর ২৭, ২০২২
- Advertisement -

শিশুসন্তানকে হত্যার অভিযোগ, বাবা পলাতক

- Advertisements -
Advertisements

কুমিল্লার দাউদকান্দিতে বাবার আঘাতে পাঁচ মাসের শিশুর মৃত্যুর অভিযোগ পাওয়া গেছে। শনিবার (৬ আগস্ট) দিবাগত রাতে ঢাকায় চিকিৎসাধীন অবস্থায় ওই শিশু মারা যায়। আজ রবিবার (৬ আগস্ট) সকালে মডেল থানার পুলিশ নিহত শিশুর মরদেহ ময়নাতদন্তের জন্য কুমিল্লা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে পাঠিয়েছে।

Advertisements

নিহত পাঁচ মাস বয়সী শিশু আরফাত হোসেন দাউদকান্দি উপজেলার চেংগাতলী গেলাপেরচর গ্রামের বিল্লাল হোসেন সরকারের পুত্র।

শিশু আরফাতের মৃত্যুর খবর শুনে বাবা এলাকা ছেড়ে পালিয়েছেন।
পুলিশ ও শিশুর পরিবার সূত্রে জানা যায়, গত ২৯ জুলাই রাত ১১টার সময় মাদকাসক্ত বিল্লাল হোসেন রাতে দেরি করে বাসায় আসায় স্ত্রী আসমা আক্তারের সঙ্গে কথা-কাটাকাটি হয়। বিল্লাল হোসেন এক পর্যায়ে স্ত্রী আসমা আক্তারের কোলে থাকা শিশু আরফাতকে ওপর তুলে ফেলে দেন।
এ সময় শিশুর মা চিৎকার করলে তার মুখ চেপে ধরে তাকেও মেরে ফেলার হুমকি দেন। রাতেই শিশুকে প্রাথমিক চিকিৎসা দিয়ে পরদিন ঢাকার একটি হাসপাতালে নিয়ে যায় তার শ্বশুরবাড়ির লোকজন। এরপর চিকিৎসার খরচ মেটাতে শিশুর বাবা আসবেন বললেও আর আসেননি। গতকাল শনিবার দিবাগত রাতে চিকিৎসাধীন অবস্থায় শিশু আরফাতের মৃত্যুর খবরে তার বাবা এলাকা ছেড়ে পালিয়ে যান।
এ ব্যাপারে সন্তানকে হারিয়ে মুহ্যমান মা আসমা বেগম জানান, দুই বছর আগে বিল্লাল হোসেনের সঙ্গে তার বিয়ে হয়েছে। প্রায়ই তার স্বামী গভীর রাতে বাসায় ফিরতেন। ঘটনার দিন রাত সাড়ে ১১টায় তিনি বাসায় আসেন। রাতে দেরি করে বাসায় আসার কথা জিজ্ঞেস করলে কোলে থাকা শিশু আরফাতকে ওপরে তুলে সজোরে খাটে ফেলে দেন। এতে শিশুর জ্ঞান হারায়। এরপর ছয়-সাত দিন চিকিৎসার পরও তাকে বাঁচানো যায়নি।

দাউদকান্দি মডেল থানার ওসি মো. আলমগীর হোসেন ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, ‘আমরা আভিযোগ পেয়েছি। ময়নাতদন্তের পর আইন অনুযায়ী ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে। ’

সাবস্ক্রাইব
Notify of
guest
0 মন্তব্য
Inline Feedbacks
View all comments
Advertisements
সর্বশেষ
- Advertisements -
এ বিভাগে আরো দেখুন