English

29 C
Dhaka
শনিবার, জুন ১৫, ২০২৪
- Advertisement -

২ সংসার চালাতে হিমশিম, দ্বিতীয় স্ত্রীকে পুড়িয়ে হত্যা

- Advertisements -

দুই বছর আগে গোপনে বিয়ে করে ট্যাক্সিক্যাব চালক মিজানুর রহমান সুমন ও বিলকিস আক্তার। কয়েক মাস ভালোই চলে সংসার। ততদিনও বিলকিস জানতেন না, সুমনের স্ত্রী-সন্তান রয়েছে। এদিকে রাইড শেয়ারে টেক্সিক্যাব চালিয়ে দুই সংসার চালাতে হিমশিম খাচ্ছিল সুমন।

Advertisements

এর মধ্যে তার কাছে কিছু টাকা চাইতে থাকেন বিলকিস। এ নিয়ে দু’জনের মধ্যে মনোমালিন্য শুরু হয়। এক পর্যায়ে বিলকিসকে হত্যার পরিকল্পনা করে সুমন।

Advertisements

পরিকল্পনা অনুযায়ী রাজধানীর পূর্বাচলে বেড়াতে নিয়ে গিয়ে তাঁর গায়ে পেট্রোল ঢেলে আগুন দেয়। পরদিন হাসপাতালে মৃত্যু হয় দগ্ধ বিলকিসের। এ ঘটনায় মামলার পর গত মঙ্গলবার গাজীপুরের বাসন এলাকা থেকে সুমনকে গ্রেপ্তার করে র‍্যাব।

গতকাল বুধবার সংবাদ সম্মেলনে এসব তথ্য জানান র‍্যাব-১-এর অধিনায়ক লেফটেন্যান্ট কর্নেল মোস্তাক আহমেদ। সুমনের বাড়ি কুমিল্লার মুরাদনগর উপজেলায়। বিলকিসের বাড়ি ফরিদপুরের চরভদ্রাসনে।

র‍্যাব-১ অধিনায়ক জানান, কয়েক বছর ধরে প্রথম স্ত্রী, দেড় বছরের মেয়ে ও মাকে নিয়ে তুরাগ থানার রানাভোলায় ভাড়া বাসায় বসবাস করত সুমন। ওই এলাকায় পোশাক কারখানায় চাকরি করতেন বিলকিস। একই এলাকার হওয়ায় দু’জনের মধ্যে পরিচয় হয়। এক পর্যায়ে দুই বছর আগে গোপনে বিলকিসকে বিয়ে করে সুমন।
এর পর থেকে তাঁকে রানাভোলার প্রায় দুই কিলোমিটার দূরে নয়াপাড়া নামক স্থানে অন্য একটি ভাড়া বাসায় রাখে। সুমনকে স্বল্প আয়ে দুটি সংসার চালাতে হতো। তিন-চার মাস ধরে তার কাছে একটু বেশি টাকা দাবি করেন বিলকিস। এ নিয়ে তাদের মধ্যে তিক্ততা শুরু হয়।
এক পর্যায়ে বিলকিসকে হত্যার পরিকল্পনা করে সুমন। পরিকল্পনার অংশ হিসেবে সে মাঝেমধ্যে তাঁকে নিয়ে পূর্বাচল এলাকায় ঘুরতে যেত এবং সুযোগ খুঁজত।
মোস্তাক আহমেদ জানান, গত ১৯ মে বিকেলে বিলকিসকে পূর্বাচলের ২৪ নম্বর সেক্টরের একটি জঙ্গলে নিয়ে যায় সুমন। জায়গাটা নিরিবিলি দেখে সেখানে গাড়ি থামায়। বিলকিস গাড়িতে বসে থাকেন এবং সুমন পাইপ দিয়ে পেট্রোল বের করে একটি বোতলে ঢোকায়। কিছুক্ষণ পর বিলকিস গাড়ি থেকে বের হন। তখন সুমন তাঁর গায়ে পেট্রোল ছিটিয়ে দিয়াশলাই জ্বালিয়ে আগুন দিয়ে গাড়িতে উঠে পালিয়ে যায়।
এ সময় বিলকিস চিৎকার করতে করতে পাশের ড্রেনে লাফ দেন। আশপাশের কয়েকজন ছুটে এসে তাঁকে উদ্ধার করে কুর্মিটোলা জেনারেল হাসপাতালে নিয়ে যান। অবস্থার অবনতি হলে বিলকিসকে শেখ হাসিনা জাতীয় বার্ন ও প্লাস্টিক সার্জারি ইনস্টিটিউটে স্থানান্তর করা হয়। সেখানে চিকিৎসাধীন অবস্থায় পরদিন সোমবার সকালে তিনি মারা যান।
গাজীপুরের কালীগঞ্জ থানার ওসি মাহতাব উদ্দিন জানান, সোমবার রাতে বিলকিসের বোনজামাই ফজলে রাব্বী কালীগঞ্জ থানায় হত্যা মামলা করেন। পরদিন সন্ধ্যায় সুমনকে গ্রেপ্তার করে থানায় হস্তান্তর করেছে র‍্যাব। আজ বৃহস্পতিবার তাকে আদালতে তোলা হবে।
সাবস্ক্রাইব
Notify of
guest
0 মন্তব্য
Inline Feedbacks
View all comments
Advertisements
সর্বশেষ
- Advertisements -
এ বিভাগে আরো দেখুন