English

33 C
Dhaka
শুক্রবার, মে ২৭, ২০২২
- Advertisement -

চট্টগ্রামের বাঁশখালীতে ৩৪ জলদস্যুর আত্মসমর্পণ

- Advertisements -
Advertisements
Advertisements

চট্টগ্রামের বাঁশখালী উপজেলায় অস্ত্র জমা দিয়ে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খাঁন কামালের কাছে আত্মসমর্পণ করেছে ৩৪ জলদস্যু। ৯০টি আগ্নেয়াস্ত্র ও ২ হাজার ৫৬টি গুলি জমা দেন জলদস্যুরা।

১২ নভেম্বর ২০২০ বৃহস্পতিবার দুপুরে বাঁশখালী উচ্চ বিদ্যালয় মাঠে তারা আত্মসমর্পণ করে।
র‌্যাব-৭ এর তত্ত্বাবধানে এ অনুষ্ঠানে জলদস্যুরা অতীত কর্মকাণ্ডের জন্য ক্ষমা চেয়ে স্বাভাবিক জীবনে ফিরে আসার প্রত্যয় ব্যক্ত করেন।
এসময় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান কামাল কঠোর হুঁশিয়ারি উচ্চারণ করে বলেন, দেশের উপকূলীয় এলাকায় কোনো জলদস্যু বা বনদস্যুকে আস্তানা গড়তে দেওয়া হবে না। দস্যুরা কোথাও পালিয়ে থাকতে পারবে না।

মন্ত্রী বলেন, যারা আত্মসমর্পণ করেননি তারা ভাববেন না, আপনাদের কিছু হবে না। আপনারা যা যা করছেন, সবই আমরা দেখছি, কোথাও পালিয়ে থাকতে পারবেন না। আমাদের আইন-শৃঙ্খলা বাহিনী এখন আগের চেয়ে অনেক দক্ষতা ও সক্ষমতায় পরিপূর্ণ।
তিনি বলেন, একসময় উপকূলের লোকজন এসব জলদস্যুদের কাছে জিম্মি ছিলো। ধার করে হলেও দস্যুদের দাবিকৃত টাকা পরিশোধ করতে হতো। জেলেদের নিয়ে আটকে রেখে মুক্তিপণ আদায় করা হতো। ২০১৬ সালের ৩১ মে সুন্দরবনের কুখ্যাত মাস্টার বাহিনী আত্মসমর্পণের মাধ্যমে দস্যুদের আত্মসমর্পণ প্রক্রিয়া শুরু হয়। এখন পর্যন্ত বিভিন্ন উপকূলের ৩২৮ জন জলদস্যু আত্মসমর্পণ করেছে। এখন আমাদের উপকূলকে দস্যুমুক্ত বলছি না, তবে সংখ্যা অনেক কমে এসেছে।

পুলিশ মহাপরিদর্শক (আইজিপি) ড. বেনজীর আহমেদ বলেন, শেখ হাসিনার বাংলদেশে, অর্থনৈতিক উন্নয়নের দেশে কোন চোর ডাকাত থাকতে পারে না। যারা আত্মসমর্পণ করেছে, তারা যেন সমাজের মূলধারায় ফিরে আসতে পারে সেজন্য সবাইকে সহযোগিতা করতে হবে।
র‌্যাব-৭ এর অধিনায়ক লেফটেন্যান্ট কর্নেল মশিউর রহমান বলেন, ২০১৮ সালের ২০ অক্টোবর ৪৩ জন জলদস্যু আত্মসমর্পণ করেছে। জলদস্যুদের অস্ত্র সমর্পণের মাধ্যমে স্বাভাবিক জীবনে ফিরিয়ে আনতে দীর্ঘদিন ধরেই কাজ করছে র‌্যাব। এর মধ্যে সুন্দরবন এলাকায় সক্রিয় জলদস্যুদের বড় একটি অংশকে ইতিমধ্যে অস্ত্র সমর্পণ করানো সম্ভব হয়েছে বলেও জানান তিনি।

অনুষ্ঠানে সংসদ সদস্য মোস্তাফিজুর রহমান চৌধুরী, মো. মোসলেম উদ্দিন, আশেক উল্লাহ রফিক ও মোহাম্মদ জাফর আলমসহ পুলিশ প্রধান বেনজির আহমেদ ও র‌্যাব কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।

সাবস্ক্রাইব
Notify of
guest
0 মন্তব্য
Inline Feedbacks
View all comments
Advertisements
সর্বশেষ
- Advertisements -
এ বিভাগে আরো দেখুন