English

31 C
Dhaka
সোমবার, আগস্ট ৮, ২০২২
- Advertisement -

হৃদরোগে আক্রান্ত হয়ে বাবার মৃত্যু, স্ট্যাটাস দিয়ে অনার্স পড়ুয়া ছেলের আত্মহত্যা

- Advertisements -
Advertisements
Advertisements

হৃদরোগে আক্রান্ত হয়ে বাবা হাফেজ মাওলানা আবদুল বারীর (৬০) মৃত্যুর পর শোকে কাতর হয়ে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে স্ট্যাটাস দিয়ে আত্মহত্যা করেছেন অনার্স পড়ুয়া ছেলে শেখ রাসেল (২২)।
বুধবার রাতে নেত্রকোনার পূর্বধলা উপজেলার বিশকাকুনি ইউনিয়নের ধোবারুহী গ্রামে এ ঘটনা ঘটেছে।
শেখ রাসেল ময়মনসিংহ আনন্দমোহন বিশ্ববিদ্যালয় কলেজের অর্থনীতি বিভাগের ছাত্র ছিলেন।
জানা গেছে, রাসেলের বাবা স্থানীয় একটি মাদ্রাসার শিক্ষকতা করতেন। বুধবার রাত ৮টার দিকে তিনি হৃদরোগে আক্রান্ত হয়ে মারা যান। পিতা মৃত্যুর শোক সহ্য করতে না পেরে ছেলে শেখ রাসেল মানসিকভাবে বিপর্যস্ত হয়ে পড়ে। এ ঘটনার পর শেখ রাসেলে ফেসবুকে স্ট্যাস্টাস দেন।
তিনি স্ট্যাটাসে লিখেন, আমার দুনিয়ায়, আমার আখেরাত আমার আব্বা! ডা. মাত্র আব্বারে মৃত ঘোষণা করলো! দোয়া চাই, অবশ্যই আব্বাকে একা ছাড়বো নাহ…আমিও সঙ্গী হবো, ইনশাআল্লাহ।
আরেকটি স্ট্যাটাসে তিনি লেখেন, ‘আমার অক্সিজেন ফুরিয়ে গেল, আমার দেহ থেকে কলিজা বিছিন্ন হলো! বাবা আমাদের জন্য আমৃত্যু সংগ্রাম করে গেলেন প্রতিদান দিলাম, দুশ্চিন্তা, ক্রোধ, আর নানা বাজে কাজ! আব্বা তুমি আমার সুপার হিরো! আমার বেঁচে থাকার সম্বল তুমি নাই আমি কি করে থাকবো বলো? ১০ টা বেজে গেল, কই তোমার ফোন তো আসলো নাহ! কই আমার খোঁজ তো কেউ নিলো নাহ’।
এর পর রাতেই বাড়ির পাশে তাদের ফিসারিজ ঘরের আড়ার সঙ্গে ঝুলন্ত অবস্থায় তার মরদেহ উদ্ধার করা হয়। এ ব্যাপারে পূর্বধলা থানার ওসি মোহাম্মদ তাওহীদুর রহমান ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করেন বলেন, এ ঘটনায় একটি অপমৃত্যু মামলা হয়েছে।

সাবস্ক্রাইব
Notify of
guest
0 মন্তব্য
Inline Feedbacks
View all comments
Advertisements
সর্বশেষ
- Advertisements -
এ বিভাগে আরো দেখুন