English

24 C
Dhaka
মঙ্গলবার, নভেম্বর ২৯, ২০২২
- Advertisement -

তীক্ষ্ণ দৃষ্টি রাখতে হবে: হাতিরঝিলে খুনখারাবি

- Advertisements -
Advertisements
Advertisements

এক শ্রেণির মানুষ পুলিশ প্রশাসন, বিচারব্যবস্থা, মানবিক মূল্যবোধ—কোনো কিছুরই তোয়াক্কা করছে না। সামান্য কারণেই যখন খুনের ঘটনা ঘটছে, তখন বলতে হবে মানুষের মধ্যে অস্থিরতা বেড়ে গেছে। সারা দেশেই অপ্রীতিকর ঘটনা বাড়ছে। সমাজের কিছু মানুষ যেন দিন দিন অপরাধপ্রবণ হয়ে উঠছে।

গুরুতর অপরাধের ঘটনা উদ্বেগজনক হারে বেড়েই চলেছে। খোদ রাজধানীর হাতিরঝিল এখন যেন অপরাধীদের সবচেয়ে পছন্দের জায়গা হয়ে গেছে। হাতিরঝিল থানায় লেকের অংশে অপরাধের ঘটনার আলাদা পরিসংখ্যান নেই। তবে পুলিশ, হাসপাতাল, গণমাধ্যম ও স্থানীয় সূত্রে প্রকাশিত খবরে বলা হয়েছে, ২০১৩ সালের ২ জানুয়ারি উদ্বোধনের পর হাতিরঝিলে সড়ক দুর্ঘটনায় শতাধিক ব্যক্তি নিহত হয়েছে। আহত হয়েছে কয়েক শ। আত্মহত্যার ঘটনা ঘটেছে অন্তত ২০টি। হত্যার ঘটনা ঘটেছে অন্তত ২০টি।
প্রকাশিত খবরে বলা হয়েছে, রাজধানীবাসীর পছন্দের বিনোদনকেন্দ্রটি রাতে সম্পূর্ণ অরক্ষিত হয়ে পড়ছে। কোনো ঘটনা ঘটলে পুলিশ কিছুদিন তৎপর থাকে। তবে রাতে নিরাপত্তা বলতে কিছুই থাকে না। এই সুযোগ নিচ্ছে অপরাধীরা। হাতিরঝিলে লাশ ফেলা হচ্ছে। সর্বশেষ একটি বেসরকারি টেলিভিশন চ্যানেলের প্রযোজকের মৃতদেহ উদ্ধার করা হয়েছে। প্রায়ই আত্মহত্যার ঘটনা ঘটে। বখাটেরা আড্ডা দিয়ে দর্শনার্থীদের উত্ত্যক্ত করে। ঝুঁকিপূর্ণ রাইড ড্রাইভিং করে কিছু তরুণ। প্রায়ই ঘটছে দুর্ঘটনা। অন্ধকার অংশে মাদকের আড্ডা ও অসামাজিক কর্মকাণ্ড চলে। রাত বাড়ার সঙ্গে সঙ্গে সুনসান হয়ে যায় হাতিরঝিল এলাকা। রাস্তায় পুলিশের টহলও থাকে না। মোটরসাইকেল নিয়ে বখাটে তরুণরা ঘুরে বেড়ায়। ছিনতাইয়ের ঘটনা ঘটে। লেকের পারের কিছুু এলাকায় বাতি জ্বলছে না। পুরো এলাকায় নেই সিসিটিভি ক্যামেরা।
এক রিটের চূড়ান্ত শুনানি শেষে হাইকোর্ট বেঞ্চের এক রায়ে উল্লেখ করা হয়েছিল, হাতিরঝিল পাবলিক ট্রাস্ট প্রপার্টি তথা জনগণের সম্পত্তি তথা জাতীয় সম্পত্তি। হাতিরঝিলের পানি এবং এর নান্দনিক সৌন্দর্য মহামূল্যবান জাতীয় সম্পত্তি উল্লেখ করে এর সংরক্ষণ ও উন্নয়নে কয়েক দফা নির্দেশনা এবং ৯ দফা পরামর্শও দিয়েছিলেন হাইকোর্ট। উচ্চতর আদালতের এই নির্দেশনা কি মেনে চলা হয়েছে? ফলে সৌন্দর্য হারিয়েছে হাতিরঝিল। নষ্ট হয়েছে পরিবেশ। আর রাজধানীবাসীর বিনোদনের অন্যতম প্রাণকেন্দ্রটির এই অবস্থা দেশের সচেতন মানুষকে দুশ্চিন্তাগ্রস্ত করবে—এটাই স্বাভাবিক।

সৌন্দর্যমণ্ডিত হাতিরঝিলে কেন অপরাধমূলক ঘটনা ঘটছে? আসলে এটা তো মানতে হবে যে সমাজের কিছু মানুষ যেন দিন দিন অপরাধপ্রবণ হয়ে উঠছে। মানবিক মূল্যবোধের অবক্ষয়ও চরমে পৌঁছেছে। কিছু মানুষের মধ্যে নৈতিকতা বলতে কিছু নেই। সামাজিক অসহিষ্ণুতাও অপরাধপ্রবণতার জন্য দায়ী। এ অবস্থা থেকে বেরিয়ে আসার সহজ কোনো পথ খোলা আছে বলে মনে হয় না। যখনই কোনো অপরাধের ঘটনা ঘটে, তখন প্রচলিত আইনের সহযোগিতা নেওয়া হয়। অপরাধ যেই করুক তার কঠোর শাস্তিই কাম্য।

সাবস্ক্রাইব
Notify of
guest
0 মন্তব্য
Inline Feedbacks
View all comments
Advertisements
সর্বশেষ

আল কোরআন ও আল হাদিস

- Advertisements -
এ বিভাগে আরো দেখুন