English

24 C
Dhaka
বুধবার, ফেব্রুয়ারি ১, ২০২৩
- Advertisement -

দক্ষতা বাড়ানোর বিকল্প নেই: বিদেশে অদক্ষ জনশক্তি

- Advertisements -
বাংলাদেশের বৈদেশিক মুদ্রা আয়ের অন্যতম উৎস জনশক্তি রপ্তানি। জনশক্তি রপ্তানিতে আমাদের পিছিয়ে পড়ার একটি বড় কারণ হচ্ছে দক্ষ জনশক্তির অভাব। বাংলাদেশের শ্রমিকরা তুলনামূলক অদক্ষ। অনেক পেশায় আমাদের কর্মীরা কাঙ্ক্ষিত মাত্রায় দক্ষতা অর্জন করতে পারেনি। তাই ভালো ও বেশি আয়ের পেশায় বাংলাদেশিদের নিয়োগ কম। আন্তর্জাতিক বাজারে জনশক্তি রপ্তানির আগে গবেষণা করে চাহিদা অনুযায়ী জনশক্তি গড়ে তোলার প্রাথমিক কাজটিও বাংলাদেশে উপেক্ষিত।দেশের বাইরে বাংলাদেশের জনশক্তির সুনাম রয়েছে। কিন্তু বিদেশে দক্ষ জনশক্তি রপ্তানির বিষয়টি নিয়ে সেভাবে চিন্তা-ভাবনা করা হয়নি। উচ্চশিক্ষিত স্নাতক-স্নাতকোত্তরদের বিদেশে কর্মসংস্থানের কী সুযোগ সৃষ্টি করা যেতে পারে, তা নিয়ে কোনো জরিপ বা গবেষণা আছে বলে মনে হয় না।

প্রকাশিত এক খবরে বলা হয়েছে, বাংলাদেশ থেকে বিদেশে যাওয়া শ্রমিকদের বেশির ভাগের কোনো ধরনের কাজের দক্ষতা নেই। ফলে একটা বড় অংশকে তাদের কম মজুরি ও নিচু পদে কাজ করতে হয়। আবার কখনো চাকরিচ্যুতিসহ নানা ধরনের বিড়ম্বনায় পড়তে হয়।

দক্ষতা বাড়াতে ২০১১ সালে জাতীয় দক্ষতা উন্নয়ন নীতিমালা করা হলেও পরিস্থিতির তেমন কোনো পরিবর্তন ঘটেনি বলে বিশেষজ্ঞদের ধারণা। তাঁরা বলছেন, প্রশিক্ষণে আধুনিকতার ছোঁয়া না লাগায় বাংলাদেশে দক্ষ শ্রমিক তৈরি হচ্ছে না।

শুধু বিদেশেই নয়, দেশের ভেতরেও বেশ কিছু পেশায় প্রচুর বিদেশি নিয়োজিত। পর্যাপ্ত দক্ষতা নিশ্চিত করতে পারলে এসব পেশায় স্বদেশিদের নিয়োগ করা সম্ভব হতো। আবার দেশে প্রতিবছর কতজন তরুণের কোন কোন খাতে কর্মসংস্থানের সুযোগ তৈরি করা যেতে পারে, তা নিয়েও কোনো জরিপ নেই।

ফলে কলেজ, বিশ্ববিদ্যালয়ে প্রতিবছর নতুন নতুন বিভাগ খোলা হচ্ছে। শিক্ষার্থীদের ভর্তি করা হচ্ছে। উজ্জ্বল মুখ নিয়ে ভর্তি হওয়া তরুণদের মুখেই পাঁচ বছর পর হতাশার ছায়া। আগে থেকে সঠিক পরিকল্পনা থাকলে এই অবস্থা তৈরি হতো না। এর সঙ্গে যুক্ত হয়েছে কূটনৈতিক নিষ্ক্রিয়তা।

আন্তর্জাতিক শ্রমবাজারের বাস্তবতায় বাংলাদেশের শ্রমিকরা তুলনামূলকভাবে অদক্ষ। তাই ভালো ও বেশি আয়ের পেশায় বাংলাদেশিদের নিয়োগ কম।

এ অবস্থা থেকে বেরিয়ে আসতে হলে আমাদের নতুন শ্রমবাজার খুঁজে বের করতে হবে। দক্ষ শ্রমশক্তি রপ্তানিতে মনোযোগ দিতে হবে। এ ক্ষেত্রে সঠিক প্রশিক্ষণের কোনো বিকল্প নেই।

বর্তমান বিশ্ববাস্তবতায় শিক্ষিত ও দক্ষতাসম্পন্নদের কদর বাড়ছে। সব কর্মক্ষেত্র সবার জন্য উন্মুক্ত না হলেও দক্ষ জনশক্তি নিজ নিজ ক্ষেত্রে কর্মসংস্থানের সুযোগ তৈরি করে নিতে পারে।বিকাশমান বিশ্বের সঙ্গে তাল মিলিয়ে তাই জনশক্তি গড়ে তুলতে হবে। জনশক্তি রপ্তানির জন্য নতুন নতুন শ্রমবাজারের সন্ধানও করতে হবে।

শ্রমবাজারের চাহিদার পরিবর্তন ও দক্ষতার দিকেও দৃষ্টি রাখতে হবে। এর পাশাপাশি জনশক্তি রপ্তানির জন্য নতুন নতুন বাজারও খুঁজে বের করতে হবে।

সাবস্ক্রাইব
Notify of
guest
0 মন্তব্য
Inline Feedbacks
View all comments
Advertisements
সর্বশেষ
- Advertisements -
এ বিভাগে আরো দেখুন