English

32 C
Dhaka
বুধবার, জুলাই ১৭, ২০২৪
- Advertisement -

আগ বাড়িয়ে কথা বলার কোনো কারণ ছিল বলে মনে করি না: পরীমণি

- Advertisements -

গত শুক্রবার ঢাকাই নায়িকাদের নিয়ে একটি ফ্যাশন শো মাতান দেশীয় চলচ্চিত্রের শীর্ষ নায়ক শাকিব খান। জমকালো এ আয়োজনে তার সঙ্গে র‌্যাম্পে হাঁটতে দেখা যায় পরীমণি, বিদ্যা সিনহা মিম, পূজা চেরী, তানজিন তিশা ও সাবিলা নূরকে। ফ্যাশন শো-টি নিয়ে যখন সোশ্যাল মিডিয়ায় ব্যাপক চর্চা, তখনই ভিন্ন আলোচনায় পরী, মিম ও তানজিন তিশারা।

অনুষ্ঠানে উপস্থিত কয়েকজনের বরাতে গণমাধ্যমে বলা হয়, সেদিন নাকি পরীমণি ও তানজিন তিশাকে একসঙ্গে কথা বলতে দেখা গেছে। যদিও তাদের দু’জনের ব্যক্তিগত সম্পর্ক নিয়ে নানা রকম কথা চাউর রয়েছে। ধারণা করা হয়, শরিফুল রাজের ফেসবুক থেকে তানজিন তিশার একটি আপত্তিকর ভিডিও প্রকাশের ঘটনায় পরীমণির সঙ্গে সম্পর্কের অবনতি ঘটে। সেই তিশার সঙ্গেই নাকি সেদিন ফ্যাশন শো-তে কথা বলতে চেয়েছিলেন পরী। তিশার ঘনিষ্ঠজনদের দাবি, পরীমণি নাকি কাছে এসে তিশার হাত ধরে কথা বলার চেষ্টা করেন।

Advertisements

এ নিয়ে সরাসরি না বললেও তিশার ভাষ্যও যেন অনেকটা একই রকম। তবে পরীমণি বললেন ভিন্ন কথা। বাংলাদেশ প্রতিদিনকে পরী বলেন, ‘সেদিন মঞ্চে উঠার সময় খেয়াল করলাম সিড়ি দিয়ে নামতে গিয়ে একেবারে পড়ে যায় যায় অবস্থা তিশার। তখন আমি এগিয়ে গিয়ে তার পড়ে যাওয়া ঠেকাই। একটা মানুষ এমন করে পড়ে যাচ্ছে দেখে যে কেউই এগিয়ে যাবে- তো আমিও সেটা করেছি। এর চয়ে বেশি কিছু নয়।’

পরী বলেন, ‘আমি যখন তিশার হাত ধরে তার পড়ে যাওয়া ঠেকাই, তখন সে আমাকে দেখে অনেকটা ভড়কে যায়। তখন সৌজন্যতা দেখিয়ে তিশাকে বলি- তুমি ঠিক আছো তো? জাস্ট এটুকুই, তাৎক্ষণিক তাকে সামলেই আমি মঞ্চে উঠে যাই। এখন এ ঘটনার চারদিন পরে এসে শুনছি- আমি নাকি তিশার হাত ধরে কথা বলার চেষ্টা করেছি। আজব!’

Advertisements

পরীমণির প্রশ্ন, ‘ঘটনার চারদিন পর এসে অনেকেই কেন ঘটনাটিকে ভিন্ন খাতে নেওয়ার চেষ্টা করছেন বুঝছি না। তাদের নিশ্চয়ই অন্য কোনো উদ্দেশ্য রয়েছে। সে বিষয়ে নাই বলি। শুধু এটুকু বলবো, তিশার সঙ্গে আগ বাড়িয়ে কথা বলার কোনো কারণ ছিল বলে মনে করি না। সেদিনের ওই ফ্যাশন শো-কে কেন্দ্র করে দু’একজনের এসব ভিন্ন ভিন্ন দাবি আমার কাছে হাস্যকর লাগে। ভবিষ্যতে তাদের বিষয়ে আরও বেশি সতর্ক থাকবো।

এদিকে, গত শুক্রবারের এ ঘটনা নিয়ে গত সোমবার গণমাধ্যমকে তানজিন তিশা বলেন, ‘আমার তো তার (পরীমণি) সঙ্গে কথা বলার দরকার নাই। সে বিগত দিনে সামাজিকভাবে আমাদের কয়েকজনকে যেভাবে অপদস্থ করেছে, তা ভোলার নয়। সুতরাং তার সঙ্গে কথা বলা বা মেলামেশার কোনো দরকার নাই। তবে ওই মঞ্চের পেছনে সে এসে আমার হাত ধরেছিল। তখন হাই-হ্যালো না বলার কিছু নাই।’

উল্লেখ্য, পরীমণি ও রাজের দাম্পত্য কলহের মধ্যে ফেসবুকে (রাজের ফেসবুক আইডি) অভিনেত্রী তানজিন তিশা ও সুনেরাহ বিনতে কামালের আপত্তিকর ভিডিও প্রকাশিত হয়। সেই ঘটনা হইচই ফেলে দেয়। ভুক্তভোগীসহ মিডিয়াপাড়ার অনেকেই ভিডিও ফাঁসের ঘটনায় পরীমণিকে ইঙ্গিত করেন। যা নিয়ে তিশার সঙ্গে পরীর সম্পর্কের অবনতি ঘটে। এরপর থেকেই তাদের কথা বলা বন্ধ।

সাবস্ক্রাইব
Notify of
guest
0 মন্তব্য
Inline Feedbacks
View all comments
Advertisements
সর্বশেষ
- Advertisements -
এ বিভাগে আরো দেখুন