English

23 C
Dhaka
শনিবার, ডিসেম্বর ১০, ২০২২
- Advertisement -

কণ্ঠশিল্পী সামিনা চৌধুরীর জন্মদিন আজ

- Advertisements -

আজ জনপ্রিয় কণ্ঠশিল্পী সামিনা চৌধুরীর জন্মদিন। ২৮ আগস্ট দিনাজপুর নানাবাড়িতে তিনি জন্মগ্রহণ করেন। তার বাবা বিখ্যাত সংগীত ব্যক্তিত্ব প্রয়াত মাহমুদুন নবী। তার বোন ফাহমিদা নবী ও ভাই পঞ্চমও গানের সঙ্গে জড়িয়ে আছেন।

সাধারণত নিজের জন্মদিনে কোনো কাজই রাখেন না সামিনা চৌধুরী। কারণ এই দিনটি পরিবারের সঙ্গেই কাটাতে পছন্দ করেন তিনি।

Advertisements

এবারের জন্মদিন নিয়ে সামিনা চৌধুরী বলেন, ‘চারদিকে নানা রকম অস্থিরতা। এই সময়ে জন্মদিনের আয়োজন করতে না চাইলেও কিছু প্রিয় মানুষ বাসায় আসে। বাসায় রান্নাবান্না করি। নিজেই কেক বানাই। পরিবারের সবাইকে নিয়ে কেক কাটি- এইতো।’

প্রতি জন্মদিনে মায়ের হাতে একটা উপহার তুলে দেয়ার চেষ্টা করেন। ছেলের কাছ থেকে তিনি উপহার পান। এই বিষয়গুলো তাকে আনন্দ দেয়।

চলচ্চিত্র ও আধুনিক গানের পাশাপাশি রবীন্দ্রসংগীতেও সামিনা চৌধুরী মুগ্ধতা ছড়িয়েছেন শ্রোতাদের মধ্যে। তবে আনুষ্ঠানিকভাবে সংগীতশিল্পী হিসেবে সামিনার জন্ম হয়েছিল ‘জন্ম থেকে জ্বলছি মাগো’ চলচিত্রের গানের মাধ্যমে। এরপর সিনেমার গানে নিয়মিত থেকেছেন তিনি। চলচ্চিত্রে গাওয়ার সামিনার জনপ্রিয় গানের মধ্যে ‘আমার বুকের মধ্যেখানে’, ‘আমার গরুর গাড়িতে বউ সাজিয়ে’, ‘আমার মাঝে নেই এখন আমি’, ‘হও যদি ঐ নীল আকাশ’ ইত্যাদি উল্লেখযোগ্য।

১৯৮৬ সালে প্রকাশিত হয়েছিল ‘শৈশবের দিনগুলো’ শিরোনামে সামিনা চৌধুরীর প্রথম অডিও অ্যালবাম। গানের সুর ও সংগীত পরিচালনায় ছিলেন নকীব খান। আধুনিক গানের তালিকায় কাওসার আহমেদ চৌধুরীর রচনায় লাকী আখন্দের সুরে ‘কবিতা পড়ার প্রহর এসেছে রাতের নির্জনে’ সামিনা চৌধুরীকে কালজয়ী করেছে।

Advertisements

আরও অন্যান্য গানের মধ্যে আছে ‘ঐ ঝিনুক ফোঁটা সাগর বেলায়’, ‘এই যাদুটা সত্যি হয়ে যেতো’, ‘কোনো এক সুন্দরী রাতে’, ‘তুমি এলে পায়ে পায়ে ফুল ফোটে ফুল ঝরে’, ‘আমার দুই চোখে দুই নদী’ ও ‘সাত ভাই চম্পা’ ইত্যাদি।

বর্তমানে খুব একটা নিয়মিত নন গানে। সামিনা বলেন, ‘গত চারবছর ধরে আমার ইউটিউব চ্যানেল থেকে নতুন গান করে যাচ্ছি। দুই বছর ধরে ইউটিউব চ্যানেল নিয়ে বেশি সরব। গতকাল শুচিতা নাহিদ সালামের কথা ও সুরে ‘ছোঁয়া কী যায়’ শিরোনামে একটি গান করেছি। গানটির সংগীতায়োজন করেছেন সাজ্জাদ কবীর। এই গানটি প্রকাশ করবো।’

দীর্ঘ ক্যারিয়ারে অনেক পুরস্কার-সম্মান জয় করেছেন তিনি। তারমধ্যে ১৯৮১ সালে আলাউদ্দিন আলীর সুরে ‘জন্ম থেকে জ্বলছি’ এবং আহমেদ ইমতিয়াজ বুলবুলের সুরে ‘নয়নের আলো’ সিনেমায় গান গেয়ে অনেক পুরস্কার ও সম্মাননা পেয়েছেন। ‘রানি কুঠির বাকী ইতিহাস’ ছবির ‘আমার মাঝে নেই এখন আমি’ গানের জন্য শ্রেষ্ঠ গায়িকা হিসেবে জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার পান ২০০৬ সালে।

সাবস্ক্রাইব
Notify of
guest
0 মন্তব্য
Inline Feedbacks
View all comments
Advertisements
সর্বশেষ

আল কোরআন ও আল হাদিস

আজকের রাশিফল

- Advertisements -
এ বিভাগে আরো দেখুন