English

32 C
Dhaka
বুধবার, এপ্রিল ১৭, ২০২৪
- Advertisement -

কী এই ‘কেটামিন’? যা কেড়ে নিল ম্যাথিউ পেরির প্রাণ

- Advertisements -
চলতি বছরের অক্টোবরে না ফেরার দেশে পাড়ি জমিয়েছেন ‘ফ্রেন্ডস’ খ্যাত অভিনেতা ম্যাথিউ পেরি। জনপ্রিয় এই অভিনেতার আকস্মিক মৃত্যুতে শোকস্তব্ধ হয়ে গিয়েছিলেন বিনোদন অঙ্গনের সবাই। এমন মৃত্য মেনে নিতে পারেননি অনুরাগীরাও। বাড়ির সুইমিংপুলে অচেতন অবস্থায় উদ্ধার হয়েছিল অভিনেতার দেহ।
অভিনেতার মৃত্যুর কারণ নিয়েও আলোচনা ছিল তুঙ্গে। ধারণা করা হচ্ছিল, মদ্যপানের কারণে বাথটাবের পানিতে ডুবে মৃত্যু হয়েছে তাঁর। এছাড়াও গত ১ বছর ধরে তিনি নানারকম শারীরিক সমস্যায় ভুগছিলেন।
অবশেষে মৃত্যুর সঠিক কারণ জানা গেল ম্যাথিউ পেরির।
তাঁর মৃত্যুর দুই মাসের মাথায় প্রকাশ হলো ময়নাতদন্তের রিপোর্ট। বিবিসির প্রতিবেদন অনুসারে, অভিনেতার মেডিকেল রিপোর্টে বলা হয়েছে যে দীর্ঘদিন ধরেই নিষিদ্ধ মাদক কেটামিন সেবন করতেন তিনি। মৃত্যুর দিনও তিনি কেটামিন নিয়েছিলেন। সেটার ওভারডোজের কারণেই মারা গেছেন তিনি।
কি এই কেটামিন? যা প্রাণ কেড়ে নিল পেরির?
চলুন জেনে নেওয়া যাক কেটামিন সম্পর্কে।
কেটামিন মুলত ‘কেটালার’ নামেও পরিচিত। এটি একটি ওষুধ যা ডাক্তাররা অস্ত্রোপচারের সময় ব্যথা অনুভব না করার জন্য ব্যবহার করে। মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রে, কেটামিন কেবল ডাক্তারের প্রেসক্রিপশনেই উল্লেখ করা হয়। তবে, লোকেরা এটি অবৈধভাবেও ব্যবহার করে।
তারা এটি শুঁকে, ইনজেক্ট করে, পানীয়তে মিশ্রিত করে বা অন্যান্য পদার্থের সাথে মিশিয়ে এটি ধূমপান হিসেবেও ব্যবহার করতে পারে।
প্যাসিফিক নিউরোসায়েন্স ইনস্টিটিউট অনুসারে, ‘হতাশা, উদ্বেগ, পিটিএসডি, জীবনের শেষ দুর্দশা, দীর্ঘস্থায়ী ব্যথা, ড্রাগ/অ্যালকোহল সমস্যা এবং আরও অনেক কিছুর চিকিৎসার জন্য ব্যবহৃত হয় কেটামিন।’
এবিসির প্রতিবেদন অনুসারে, ন্যাশনাল লাইব্রেরি অফ মেডিসিনের একটি অনলাইন সংস্থা স্ট্যাটপার্লসের তথ্য অনুযায়ী, সাম্প্রতিক অতীতে যারা প্রচলিত থেরাপিতে ভালোভাবে সাড়া দিতে ব্যর্থ হয়েছেন, তাদের বিষন্নতার চিকিৎসা হিসাবেও অতীতে এই ওষুধটি ব্যবহার করা হয়েছে। যদিও কেটামিন বহু বছর ধরে ওষুধ এবং অ্যানেস্থেশিয়াতে ব্যবহৃত হয়ে আসছে, তবে এর চেতনানাশকের ক্ষমতা অপব্যবহার করা হচ্ছে। প্রায়শই অন্যান্য ওষুধের সাথে এটি মেশানো হয়, বিশেষ করে পার্টি বা রেভসে কেটামিন প্রায়ই অবৈধভাবে অপব্যবহার করা হয়। শরীরে ইনজেকশনের মাধ্যমে নেওয়া হলে এটি কয়েক সেকেন্ড বা মিনিটের মধ্যে ঢুকে যায়।
কেটামিনের অতিরিক্ত ব্যবহার খুব নেতিবাচক প্রভাব ফেলতে পারে। উচ্চ মাত্রায় শ্বাস প্রশ্বাসের গতি কমিয়ে মারাত্মকভাবে শ্বাসকষ্টের কারণ হতে পারে। কেটামিন অপব্যবহারের আরও সাধারণ পার্শ্বপ্রতিক্রিয়াগুলির মধ্যে রয়েছে পেশীর দুর্বলতা এবং খিঁচুনি।

অ্যাসোসিয়েটেড প্রেস ডক্টর অ্যান্ড্রু স্টলবাচ ম্যাথিউ পেরির মৃত্যু উল্লেখ করে বলেছেন, ‘পুল বা গরম টবে সেডেটিভ ড্রাগ ব্যবহার করা, বিশেষ করে যখন আপনি একা থাকেন, সেটি অত্যন্ত ঝুঁকিপূর্ণ। দুঃখজনকভাবে, পেরির ক্ষেত্রে সেটিই ঘটেছে।’

বিশেষজ্ঞদের মতে, যারা এই ড্রাগ নেয় তাদের হেলুসিনেশনের মত হয়। যেমন, সাধারন মানুষ যেটি বলে যে আমরা গান শুনছি, কেটামিন গ্রহণকারীরা বলবে ‘আমি গান দেখছি।’ এর কারণে ঘুমও হয় বেশি। প্যাথেডিন, মরফিন এসব ড্রাগের ব্যবহারের কথা শোনা গেলেও কেটামিনের ব্যবহারের কথা খুব কম প্রকাশ্যে আসে। তবে ইউরোপ আমেরিকায় এর ব্যবহার বেড়েই চলেছে।

এর আগে অভিনেতা পেরি তার স্মৃতিচারণে লিখেছিলেন, কীভাবে তিনি এই আসক্তির সঙ্গে লড়াইয়ের সময় প্রতিদিন কেটামিন ব্যবহারের উপর নির্ভরশীল ছিলেন। তবে কে জানতো, এই ড্রাগস তাঁর জীবনটাই নিয়ে নেবে। পৃথিবীজুড়ে কোটি ভক্তকে কাঁদিয়ে ২৮ অক্টোবর না ফেরার দেশে পাড়ি জমান এই অভিনেতা।

সাবস্ক্রাইব
Notify of
guest
0 মন্তব্য
Inline Feedbacks
View all comments
Advertisements
সর্বশেষ
- Advertisements -
এ বিভাগে আরো দেখুন