English

28 C
Dhaka
মঙ্গলবার, মে ২৪, ২০২২
- Advertisement -

খ্যাতিমান চলচ্চিত্র পরিচালক-প্রযোজক কাজী জহির-এর ২৯তম মৃত্যুবার্ষিকী আজ

- Advertisements -

খ্যাতিমান চলচ্চিত্র পরিচালক, প্রযোজক, পরিবেশক ও প্রদর্শক কাজী জহির-এর ২৯তম মৃত্যুবার্ষিকী আজ । তিনি ১৯৯২ সালের ২০ অক্টোবর, ঢাকায় মৃত্যুবরণ করেন। মৃত্যুকালে তাঁর বয়স হয়েছিল ৬৫ বছর। প্রয়াত চলচ্চিত্রকার কাজী জহির-এর প্রতি জানাই বিন্ম্র শ্রদ্ধা। তাঁর বিদেহী আত্মার মাগফেরাত কামনা করি।

কাজী জহির ১৯২৭ সালের ১০ অক্টোবর, ঢাকায় জন্মগ্রহন করেন। তিনি ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় থেকে অর্থনীতি এবং ইংরেজিতে ডাবল এম এ পাস করেছেন।
লেখাপড়া শেষ করে তিনি, নটর ডেম কলেজে ইংরেজি বিষয়ে অধ্যাপনা শুরু করেন।

Advertisements

ছোটবেলা থেকেই চলচ্চিত্রের প্রতি বিশেষ দুর্বলতা ছিল তাঁর । তাই একসময় কলেজের শিক্ষকতা পেশা ছেড়ে দিয়ে, চলচ্চিত্রের সাথে জড়িত হয়ে যান কাজী জহির ।
১৯৬৫ সালে ‘বন্ধন’ (উর্দু) ছবিটি নির্মানের মাধ্যমে, চলচ্চিত্র পরিচালক হিসেবে আত্মপ্রকাশ করেন তিনি। তাঁর পরিচালিত অন্যান্য ছবিসমূহ- ভাইয়া, নয়ন তারা, ময়নামতি, মধু মিলন, অবুঝ মন, বধু বিদায়, ফুলের মালা প্রভৃতি।

কাজী জহির প্রযোজনা ও পরিবেশনা করেছেন যেসব ছবি তাঁর মধ্যে আছে- দস্যুরাণী, চাষীর মেয়ে, কথা দিলাম, আশার আলো, আকাশ পরী, নতুন বউ, স্বামীর ঘর, দ্বীপ কন্যা, রাজ কপাল, রানী চৌধুরানী, ঘরের সুখ ইত্যাদি। উল্লেখ্য যে, কাজী জহির পরিচালিত ছবিগুলোও তাঁর নিজস্ব প্রযোজনা সংস্থা থেকে নির্মিত হয়েছে। তাঁর প্রযোজনা সংস্থার নাম- চিত্রা ফিল্মস লিঃ।

প্রযোজনা, পরিচালনা, পরিবেশনার পাশাপাশি তিনি একজন প্রদর্শকও ছিলেন। পুরান ঢাকায় ‘চিত্রামহল’ নামে তাঁর একটি সিনেমা হল আছে। ঢাকার পুরনো সিনেমা হলগুলোর মধ্যে, চিত্রা মহল অন্যতম। কাজী জহির একসময় প্রযোজক ও পরিবেশক সমিতির সভাপতি ছিলেন ।

Advertisements

ব্যক্তিজীবনে কাজী জহির ৬০-এর দশকের শেষের দিকে, নায়িকা চিত্রা সিনহার সাথে বিবাহবন্ধনে আবদ্ধ হন। বিয়ের পরে ‘চিত্রা সিনহা’ হন, চিত্রা জহির। তাদের দুই মেয়ে এক ছেলে- সাগর, ঝিনুক ও শাপলা। ছেলে সাগর জহির, চলচ্চিত্র ব্যবসার সাথে যুক্ত আছেন।

পরিচ্ছন্ন সামাজিক গল্প প্রধান ছবির সফল পরিচালক হিসেবে কাজী জহির-এর খ্যাতি অপরিসীম। সুস্থ-বিনোদনের, নিটোল প্রেমের- রোমান্টিক মুভি নির্মানেরও তিনি অগ্রপথিক। ত্রিভুজ প্রেমের গল্পের মাধ্যমে সিনেমাদর্শকদের, আনন্দ-বেদনার কাব্যে বিমোহিত করার আশ্চার্য্যরকমের প্রতিভা ছিল তাঁর। তারকাবহুল চলচ্চিত্র নির্মাতা কাজী জহির-এর নামে একসময়ে প্রতিটি সিনেমা হলে দর্শকদের ঢল নামত ।

বাংলা চলচ্চিত্রের সোনালি যুগের অনেক কালজয়ী ছবি নির্মাণের নিপুণ কারিগর । দর্শকনন্দিত বহু বাণিজ্যসফল চলচ্চিত্রের মেধাবী পরিচালক । জননন্দিত একজন কৃতিমান চলচ্চিত্রকার তিনি। বাংলা চলচ্চিত্রের মহিরূহব্যক্তিত্ব কাজী জহির, বাংলাদেশের চলচ্চিত্রের ইতিহাসে অবিস্মরণীয় হয়ে থাকবেন অনন্তকাল।

সাবস্ক্রাইব
Notify of
guest
0 মন্তব্য
Inline Feedbacks
View all comments
Advertisements
সর্বশেষ
- Advertisements -
এ বিভাগে আরো দেখুন