English

32 C
Dhaka
বুধবার, আগস্ট ১৭, ২০২২
- Advertisement -

চিত্রপরিচালক আহমেদ সাত্তারের ৩০তম মৃত্যুবার্ষিকী আজ

- Advertisements -

চিত্রপরিচালক আহমেদ সাত্তারের ৩০তম মৃত্যুবার্ষিকী আজ। তিনি ১৯৯১ সালের ১ জুন, এফডিসিতে ডাবিং থিয়েটারে কাজ করার সময় ব্রেইন স্ট্রোকে, মৃত্যুবরণ করেন। মৃত্যুকালে তাঁর বয়স হয়েছিল মাত্র ৩৪ বছর। তরুণ এই চিত্রপরিচালকের প্রতি বিন্ম্র শ্রদ্ধা জানাই। তাঁর বিদেহী আত্মার মাগফেরাত কামনা করি।

Advertisements

আহমেদ সাত্তার ১৯৫৭ সালের ১ জানুয়ারি, ফেনী জেলার আলোকদিয়া গ্রামে, জন্মগ্রহণ করেন। ১৯৭৩ সালে ‘ফেনী সেন্ট্রাল হাইস্কুল’ থেকে মেট্রিক পাস করে, ‘ফেনী সরকারী কলেজে’ ভর্তি হন। কলেজে পড়াকালীন সময়ে আহমেদ সাত্তারকে, তাঁর ফুপাত ভাই প্রখ্যাত চিত্রগ্রাহক আবুল খায়ের তাঁকে ঢাকা নিয়ে আসেন।
আবুল খায়ের-এর মাধ্যমে পরিচালক ফখরুল হাসান বৈরাগী’র সাথে সহকারী পরিচালক হিসাবে কর্ম জীবন শুরু করেন। ১৯৮৮ সালে “গায়ে হলুদ” ছবির মাধ্যমে পরিচালক হিসাবে আত্মপ্রকাশ করেন আহমেদ সাত্তার, যদিও ছবিটি মুক্তি পায়নি।

আহমেদ সাত্তার পরিচালিত অন্যান্য ছবিসমূহ- বীর বিক্রম ( ১৯৮৯), বজ্রপাত (১৯৮৯), বীর যোদ্ধা (১৯৯০), দেশ দুশমন (১৯৯০), রুবেল আমার নাম (১৯৯১), গোলামীর জিঞ্জির (১৯৯১)।

Advertisements

ব্যাক্তিজীবনে আহমেদ সাত্তার ১৯৮৭ সালে, ফাতেমা আক্তারের সাথে বিবাহ বন্ধনে আবদ্ধ হন। আহমেদ অপু ভুইঁয়া ও আহমেদ তপু ভুইঁয়া নামে, তাদের দুই পুত্র সন্তান রয়েছে। যারা বর্তমানে ফেনী জেলায় বসবাস করছেন।

একজন প্রতিভাবান তরুণ্যদীপ্ত চলচ্চিত্র পরিচালক ছিলেন আহমেদ সাত্তার। বড়ো অকালে-অসময়ে তিনি চলে গেছেন পৃথিবী থেকে। এই চিত্র নির্মাতাকে আজ আর কেউ হয়তো, স্মরণই করেন না। অথচ তিনি প্রচন্ড দাপটের সাথেই তাঁর চলচ্চিত্র যাত্রা শুরু করে ছিলেন। একের পর এক ব্যবসাসফল ছবি নির্মাণের মাধ্যমে তাঁর প্রতিভার জানান দিতে ছিলেন । বিধাতা তাঁর সহায় হননি, তাই তাঁর প্রতিভার পরিপূর্ণ বিকাশ আমরা দেখতে পাইনি। তারপরেও
আহমেদ সাত্তার, চলচ্চিত্রসংশ্লিষ্ট অনেকের স্মৃতিতেই থাকবেন- অমলিন চিরদিন ।

সাবস্ক্রাইব
Notify of
guest
0 মন্তব্য
Inline Feedbacks
View all comments
Advertisements
সর্বশেষ
- Advertisements -
এ বিভাগে আরো দেখুন